Scores

দ্বিতীয় রাউন্ডের ২য় দিনে ব্যাটসম্যানদের দাপট!

Mossaddek-Hossain1443954308


ইমরান হাসান ও আজমল তানজীম সাকির

বরিশাল-সিলেট ম্যাচঃ  বৃষ্টির হানায় ৫ উইকেটে ২৯৫ রান করে  প্রথম দিন শেষ করেছিল বরিশাল বিভাগ। সেখান থেকে ২য় দিনে ব্যাটসম্যানদের দৃঢ়তায় প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহ পায় বরিশাল বিভাগ। আগের দিনে ৪৬ রান নিয়ে অপরাজিত থাকা মোসাদ্দেক হোসেন এই দিন ১৭ তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে দ্বি-শতকের দেখা পান। তার দ্বি-শতকের পাশাপাশি নিচের সারির ব্যাটসম্যানদের ছোট- ছোট ইনিংসের সুবাধে প্রথম ইনিংসে ৯ উইকেটে ৫২৭ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে বরিশাল। প্রতিওক্ষ দলের বোলারদের মধ্যে আবুল হাসান ও এনামুল হক ৩ টি করে উইকেট পান। জবাবে, সিলেট বিভাগও তাদের ১ম ইনিংসে দারুণ সূচনা করে। দুই ওপেনার ইমতিয়াজ ও শাহনাজের অর্ধ-শ্তকে ২য় দিন শেষে বেশ স্বস্তি অবস্থানেই আছে সিলেট বিভাগ!

Also Read - ওয়ানডেতেও হার দিয়ে শুরু বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের!


সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-

বরিশালঃ ৫২৭-৯ ডিক্লে.. (মোসাদ্দেক ২০০*, ফজলে ১০৩, আবুল হাসান ৪৫-৩)

সিলেটঃ ১১২-০ ( ইমতিয়াজ ৫১*, আহমেদ ৫৮*)

Mithun 100

খুলনা-ঢাকা মেট্রোঃ খুলনা ও ঢাকা মেট্রোর ম্যাচও প্রথম দিন বৃষ্টির বাধায় পড়েছিল! আগের দিনের ২২৭ রান নিয়ে ২য় দিন শুরু করে ৪৫৫ রানে থামে খুলনা বিভাগের প্রথম ইনিংস। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৮৬ রান করেন মোহাম্মদ মিথুন। এছাড়াও এই দিন অর্ধশতকের দেখা পেয়েছেন মোহাম্মদ মিরাজ। আর দলীয় অধিনায়ক আব্দুর রাজ্জাক করেছেন ৪৬ রান। জবাবে, ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের শুরুতেই মোস্তাফিজের ভেলকিতে ৩১ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে ঢাকা মেট্রো! পরবর্তীতে মার্শাল ও আসিফের কল্যাণে  আর কোন উইকেট না হারিয়ে ৭১ রানে ২য় দিন শেষ করে ঢাকা মেট্রো।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-

খুলনাঃ৪৫৫-১০ ( মিথুন ১৮৬, মিরাজ ৬৭ ; শহীদ ৮৪-৪)

ঢাকা মেট্রোঃ ৭১-৪ (মার্শাল২৭*, আসিফ ২৫* ; মোস্তাফিজ ১৯-৩)

চট্টগ্রাম-রাজশাহীঃ চট্টগ্রামের ৩৮৩ রানের জবাবে ৩০৮ রানে অলআউট হয়েছে রাজশাহী। ফলশ্রুতিতে প্রথম ইনিংসে চট্টগ্রাম ৭৫ রানের লিড পেয়েছে।  দ্বিতীয় দিন দলীয় সংগ্রহ ৩৪৬ এর সাথে আরো ৩৭ রান যোগ করতে সমর্থ হয় চট্টগ্রাম। রাজশাহীর হয়ে তিনটি করে উইকেট নেন  জাবির ও মুক্তার। রাজশাহীর শুরুটা হয় দুর্দান্ত। জুনায়েদ-শান্ত মিলে গড়ে তুলেন ১৪৪ রানের জুটি।  দলের হয়ে অর্ধশতক হাঁকান জুনায়েদ, শান্ত ও ফরহাদ। অধিনায়ক জুনায়েদ ৮০ বলে ৮১ রান করেন। তবে লেগ স্পিনার জুবায়েরের ঘূর্ণিতে ৩০৮ রানেই থামতে হয় রাজশাহীকে।  জুবায়ের চার উইকেট শিকার করেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-

চট্টগ্রাম ৩৮৩-১০ (শুক্কুর ১০২, ইয়াসির ৯১; জাবির ৫৩-৩)

রাজশাহী ৩০৮-১০ (জুনায়েদ ৮১, ফরহাদ ৬৯; জুবায়ের ১০৪-৪)

ঢাকা-রংপুরঃ টস জিতে ব্যাট করতে নেমে বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে ঢাকা। দ্বিতীয় দিনে তাদের ইনিংস থেমেছে ৪৪৯ রানে। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ১১১ রান করেছেন নাদিফ।  এছাড়া ৫৯ রান সংগ্রহ করেছেন রনি তালুকদার। রংপুরের তানভীর চারটি ও শুভ তিনটি উইকেট শিকার করেছেন। পাহাড়সম স্কোর তাড়া করতে নেমে দ্বিতীয় দিন শেষে রংপুরের সংগ্রহ ৯৮/৩।  এখনো ৩৫১ রানে পিছিয়ে রংপুর। ঢাকার হয়ে মোশারফ একাই তিনটি উইকেট শিকার করেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-

ঢাকা ৪৪৯-১০ (নাদিফ ১১১, রকিবুল ৫২; তানভীর ৬২-৪)

রংপুর ৯৮-৩ (লিটন ৫১, তানভীর ১৭*; মোশারফ ৩৩-৩)

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

‘মাশরাফি একজন ফাইটার’

ধারাবাহিকতাই মূল মন্ত্র ওয়ালশের কাছে

এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতলো ভারত

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

শঙ্কা কাটিয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলছেন মুস্তাফিজ