নতুন বলে চাই ‘উইকেট’, পুরনো বলে ‘শৃঙ্খলা’

আগামী ১৫ মে থেকে শুরু হবে স্বাগতিক বাংলাদেশ ও সফরকারী শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। এই সিরিজকে সামনে রেখে বোলাররা কঠোর পরিশ্রম করে নিজেদের প্রস্তুত করে তুলছেন। চট্টগ্রামে অনুশীলনের সময় পেস বোলিং কোচ অ্যালান ডোনাল্ড জানালেন নতুন ও পুরনো বল ব্যবহারের টোটকা।

নতুন বলে চাই 'উইকেট', পুরনো বলে 'শৃঙ্খলা'
প্রথম টেস্টকে সামনে রেখে চট্টগ্রামে চলছে টাইগারদের জোর অনুশীলন।

চট্টগ্রামের উইকেটে সাধারণত ব্যাটারদের দাপট থাকে। তবে নতুন বলে প্রতিপক্ষকে কাবু করার সুযোগ পান বোলাররা। চট্টগ্রাম টেস্টকে সামনে রেখে ডোনাল্ডের চাওয়া, নতুন বলের ফায়দা লুটে শুরুতে যেন লঙ্কানদের যত বেশি সম্ভব উইকেট আদায় করতে পারে বাংলাদেশ। সে অনুযায়ী প্রস্তুতিও চলছে।

Advertisment

ডোনাল্ড বলেন, ‘এরকম পিচে, কিংবা আমার খেলার অভিজ্ঞতা থেকে যদি বলি পাকিস্তান, ভারত ও শ্রীলঙ্কার পিচে বল সোজা আসে। নতুন বলে ভালো করা তাই গুরুত্বপূর্ণ। গত কিছু দিনের অনুশীলনে আমরা জোর দিয়েছি নতুন বলের ওপর। এটা কতটা গুরুত্বপূর্ণ, হট জোন কোথায় পেতে হবে, অনেক সময় ধরে চেষ্টা করতে হবে। খুব বেশি বৈচিত্র্য বা ইনসুইং আউটসুইংয়ের পেছনে ছোটা যাবে না। প্রক্রিয়া ঠিক রাখতে হবে।’

তবে ম্যাচের গতিবিধির নিয়ামক হবে প্রথম দিনগুলোর পুরনো বল, যখন কিনা ব্যাটাররা সুবিধা পাবেন। ডোনাল্ড বলেন, ‘এখানে সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল পুরনো বলে বল করা। আজ এটা নিয়েই সব কাজ করা হয়েছে। প্রত্যেক অনুশীলন সেশনে আমি বলি- বল পুরনো হয়ে গেলে ধৈর্য ধরো এবং পুরনো বল নিয়ে কারিকুরি দেখাও। নিজেদের কন্ডিশনে কীভাবে বল করতে হবে এটা তো ছেলেদের বলার প্রয়োজন নেই। তারা জানে এই উইকেটে কেমন হতে পারে। তবে সার্বিকভাবে ধৈর্য, চেষ্টা আর সৃজনশীলতার পরীক্ষা হবে।’

নতুন বলে চাই 'উইকেট', পুরনো বলে 'শৃঙ্খলা'
সংবাদ সম্মেলনে অ্যালান ডোনাল্ড।

নিজের কোচিং দর্শন থেকে ডোনাল্ড তাই শরিফুল-এবাদতদের জানিয়েছেন, নতুন বলে বের করতে হবে উইকেট, আর পুরনো বলে দেখাতে হবে ধৈর্য ও শৃঙ্খলা।

তিনি বলেন, ‘নতুন বলে ফুলার লেন্থে বল করতে হবে। প্রথম ৩০ ওভারে নিজেদের সেরাটা দিতে হবে যাতে ৪০ রানের মধ্যে শ্রীলঙ্কার ৩ উইকেট ফেলা যায়। বলের অবস্থা কাজে লাগানোও গুরুত্বপূর্ণ। এখানে অনেক গরম, আর্দ্রতা বেশি। উপমহাদেশের কন্ডিশন যেমন হয় আরকি। ৩০ ওভার পর ধৈর্য আর শৃঙ্খলা দেখাতে হবে, এটা দিয়েই চাপ তৈরি করতে হবে। বল পুরনো হলে রিভার্স সুইং আসতে পারে। তাই প্রক্রিয়া মেনে খেলতে হবে। শৃঙ্খলা, মানসিকতা আর সৃজনশীলতা বড় ভূমিকা রাখবে।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।