নবীর যে কীর্তি রফিকও গড়েছিলেন

0
498

দেরাদুনে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে নিজেদের প্রথম জয়ের দেখা পেয়েছে আফগানিস্তান। আইসিসির নব্য দুই সদস্যের লড়াইয়ে এই ম্যাচে দলের জয় অর্জনে কার্যকরী ভূমিকা রেখেছেন মোহাম্মদ নবী। অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারের এই ম্যাচে অংশগ্রহণ মনে করিয়ে দিচ্ছে বাংলাদেশের সাবেক খ্যাতিমান ক্রিকেটার মোহাম্মদ রফিকের কথা।

নবীর যে কীর্তি রফিকও গড়েছিলেন

Advertisment

আফগানিস্তান ভিন্ন তিনটি ফরম্যাটে তাদের প্রথম জয়গুলো পেয়েছে যে ম্যাচে, সেই তিনটি ম্যাচেই দলে ছিলেন নবী। একই ব্যাপার ঘটেছিল রফিকের ক্ষেত্রেও। সাবেক এই স্পিনার বাংলাদেশের তিন ফরম্যাটের প্রথম তিন জয়ের দলেই ছিলেন একাদশে!

১৯৯৮ সালে নিজেদের প্রথম ওয়ানডে জয়ের স্বাদ পায় বাংলাদেশ। এখন একদিনের ক্রিকেটে জয় সহজলভ্য অর্জন হলেও তখন একটি জয় ছিল যেন সোনার হরিণ। হায়দরাবাদে কোকা-কোলা কাপের ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ছিল কেনিয়া। ঐ ম্যাচে দলের একাদশে ছিলেন রফিক। এমনকি ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়ও নির্বাচিত হয়েছিলেন।

নবীর যে কীর্তি রফিকও গড়েছিলেন

২০৫ সালে বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট জয়ের ম্যাচেও একাদশে ছিলেন রফিক। চট্টগ্রামের ঐ ম্যাচে ব্যাট ও বল হাতেও ছিলেন উজ্জ্বল। এনামুল হক জুনিয়র ম্যাচ সেরার খেতাব পেলেও জয়ের পেছনে বড় অবদান ছিল রফিকের।

২০০৬ সালে বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের প্রথম জয় পায়। খুলনায় জিম্বাবুয়েকে হারানো ঐ ম্যাচেও একাদশে ছিলেন রফিক। ব্যাট চওড়া না হলেও কিংবা বল হাতে মাত্র একটি উইকেট তুলে নিলেও সেদিন খরুচে বোলিং করেছিলেন দেশের ইতিহাসের অন্যতম সেরা এই স্পিনার।

আফগানিস্তান ওয়ানডেতে নিজেদের প্রথম জয় পায় ২০০৯ সালে। স্কটল্যান্ডকে হারানো সেই ম্যাচে নবী করেছিলেন অর্ধ-শতক। এরপর ২০১০ সালে টি-টোয়েন্টিতে প্রথম জয়ের দেখাও পেয়ে যায় আফগানরা। পারফরম্যান্স আহামরি ভালো না হলেও খারাপ করেছেন- এমনটি বলার সুযোগ নেই। এরপর দেরাদুনে সদ্য সমাপ্ত টেস্ট ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে হারায় তার দল আফগানিস্তান। এই ম্যাচেও একাদশে ছিলেন নবী, বল হাতে দারুণ করে বড় অবদান রেখেছেন দলের প্রথম টেস্ট জয়েও।