নাইমে মুগ্ধ, তরুণদের নিয়ে আশাবাদী পাপন

0
758

ভারতের বিপক্ষে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানরা অবদান রাখতে না পারলেও তরুণ ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ নাইম শেখ একাই দলকে টেনে নিয়েছেন। তার একা কাঁধে ভর করে দল জয় না পেলেও তরুণদের নিয়ে আশাবাদী বোর্ড সভাপতি।

নাইমের প্রথম আন্তর্জাতিক অর্ধশতক উদযাপন।

Advertisment

 

গত সেপ্টেম্বরে জিম্বাবুয়ে ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজে প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়েছিলেন নাইম। কিন্তু সেবারে মাঠে নামা হয়নি। এবার তামিম ইকবালের অনুপস্থিতিতে সুযোগ পেয়েই কাজে লাগিয়েছেন। প্রথম দুই ম্যাচে ভালো শুরু করেছিলেন কিন্তু ইনিংস বড় করতে পারেননি। সিরিজের প্রথম ম্যাচে ২৮ বলে ২৬ রান এবং দ্বিতীয় ম্যাচে ৩১ বলে ৩৬ রান করেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

সিরিজের শেষ ম্যাচে এসে বড় ইনিংস খেলে নিজের জাত চিনিয়েছেন ওই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। ১৬৮.৭৫ স্ট্রাইক রেটে করেছেন ৮১ রান। তার ৪৮ বলের ইনিংসটি সাজান ছিল ১০ চার ও ২ ছয়ে।

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ১৪৩ রান নিয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক এই ২০ বছর বয়সী ক্রিকেটার। সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে ব্যাট হাতে একাই লড়ে যাওয়া নাইমের এমন ব্যাটিং প্রদর্শনী মুগ্ধ করেছে পাপনকে। ব্যাট শেষ ম্যাচে সুযোগ পেয়ে ২৭ রান করা মিঠুনকেও কৃতিত্ব দিচ্ছেন তিনি। অবশ্য মিঠুন খেলেছিল ধীরগতির ইনিংস।

পাপনের ভাষায়, ‘আমাদের স্বীকৃত ব্যাটসম্যানরা কিছুই দিতে পারিনি। দুই-একজনও দাঁড়াতে পারেনি। যাদের কাছে আমাদের প্রত্যাশা বেশি- লিটন, সৌম্য, মুশফিক, রিয়াদরা যেখানে কিছুই দিতে পারেনি মনে হয়েছিল বড় ব্যবধানে হারব। কিন্তু নাইম একাই অসাধারণ খেলেছে। মিঠুনও তাকে সমর্থন করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ স্কোরার হয়েছে নাইম যে কিনা এটাই প্রথম জাতীয় দলে খেললো। তারপরেও আবার ভারতের মাটিতে ওদের বিরুদ্ধেই। সে সাহস নিয়ে খেলেছে। এটা দেখে বোঝা যাচ্ছে, সামনে আরও নতুন ছেলেদের ভালো সম্ভাবনা আছে। এই ব্যাপারে আমি অত্যন্ত আশাবাদী।’

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।