Score

নাঈমের স্পিন বিষে নীল ঢাকার ব্যাটসম্যানরা

চলমান জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) চতুর্থ রাউন্ডের ম্যাচে কক্সবাজারে ১৭ বছর বয়সী নাঈম হাসানের ঘূর্ণি জাদুতে প্রথম ইনিংসে চট্টগ্রাম বিভাগের বিপক্ষে ২৮৮ রানে অলআউট হয়েছে ঢাকা বিভাগ।

নাঈম হাসানকে ভালোই চেনেন হাথুরুসিংহে!অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে খেলার সময় নাঈম হাসান। ফাইল ছবি

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্তের পর দারুণ শুরু পায় ঢাকা। উদ্বোধনী জুটিতে ৮২ রান যোগ করেন সাইফ হাসান ও আব্দুল মজিদ। সাইফ ৪১ রান করে শাখাওয়াত হোসেনের বলে আউট হলে ভাঙ্গে উদ্বোধনী জুটি।

Also Read - মুশফিককে আদর্শ মানেন কায়েস

এরপর দলীয় ১১৮ রানে ১৭ রান করা রাকিবুল হাসানের বিদায়ের পর দলীয় ১৫১ রানে ব্যক্তিগত ৭২ রানে আউট হন মজিদ। তার ফিরে যাওয়ার পর ম্যাচে শুরু হয় নাঈম হাসানের ভেল্কি। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে দলটি।

শুভাগত হোম ৫৭ ও নাজমুল হোসেন মিলন ৩৫ রান করে স্কোরবোর্ডে দুই রানের ব্যবধানে আউট হলে দলীয় ২৩২ রানে আট উইকেট হারিয়ে বসে ঢাকা বিভাগ। দলের রান এ পর্যায়ে ২৫০ হবে না মনে হলেও শাহাদাত হোসেন ও মাহবুবুল আলমের মধ্যকার ৫৬ রানের নবম উইকেটের জুটিতে শেষ পর্যন্ত আরেকটু লড়াকু সংগ্রহ পেয়ে যায় দলটি।

শাহাদাত ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৫৭ বল মোকাবেলা করে ৩৪ রান করে আউট হলে বিচ্ছিন্ন হয় মূল্যবান ৫৬ রান যোগ করা এ জুটিটি। এরপর স্কোরবোর্ডে আর রান যোগ করতে পারেনি ঢাকা। প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ২৮৮ রানেই।

চট্টগ্রাম বিভাগের বোলারদের মধ্যে ৩৫ ওভার বল করে ১০৪ রান খরচায় নাঈম একাই তুলে নেন ৮ উইকেট। দ্যুতি ছড়িয়ে নিজের দিকে নাঈমের আলো কেড়ে নেওয়ার দিন একটি করে উইকেট লাভ করেচেন শাখাওয়াত হোসেন ও ইরফান হোসেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-

ঢাকা বিভাগ: ২৮৮/১০
মজিদ ৭২, শুভাগত ৫৭, মিলন ৩৫, শাহাদাত ৩৪; নাঈম ৩৫-৪-১০৬-৮।


আরও পড়ুনঃ তুষার-সৌম্য-বিজয়ের ব্যাটে রান অব্যাহত

Related Articles

ক্যারিয়ারের শেষ ইনিংসেও রঙিন রাজিন

জাতীয় লিগের শিরোপা জিতল রাজশাহী বিভাগ

ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচেও রাজিনের ব্যাটে রান

বিদায়ের কথা জানাতে গিয়ে অশ্রুসিক্ত রাজিন

আশা জাগিয়েও পারলেন না আশরাফুল