Scores

নাফিস ইকবালকে স্মরণ করলেন রোহিতের স্ত্রী

তামিম ইকবাল ও রোহিত শর্মার আড্ডায় উঠে এলো রোহিতের স্ত্রী ও তামিমের বড় ভাইয়ের বন্ধুত্বের গল্প। ২০১৮ সালে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সাথে ছিলেন নাফিস ইকবাল। তখনই রোহিতের পরিবারের সাথে তার ভালো সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল।

নাফিস ইকবালকে স্মরণ করলেন রোহিতের স্ত্রী

২০১৮ সালে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলেছিলেন কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। মুস্তাফিজের ম্যানেজার ও দোভাষী হিসাবে দলটাকে যোগ দিয়েছিলেন নাফিস। মুম্বাইয়ের কোচ ছিলেন মাহেলা জয়াবর্ধনে এবং তিনি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) খুলনা টাইটান্সেরও কোচ ছিলেন। সেই সময় খুলনা টাইটান্সের ম্যানেজার ছিলেন নাফিস। এখান থেকে যোগসাজশ হয়।

Also Read - মুশফিকের ব্যাট কিনতে চেয়েছিল টাইগার উডস ফাউন্ডেশন


তখন প্রায় দুই মাস মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সাথে ছিলেন নাফিস। মুম্বাইয়ের অধিনায়ক রোহিতের স্ত্রী ঋতিকা সাজদেহ একজন ক্রিকেট অনুরাগী এবং স্বামীর ব্যাটিং দেখার জন্য ছুটে আসতেন মাঠে। আইপিএল বিভিন্ন শহরে খেলা হয়ে থাকে। দলের সাথে তিনিও যেতেন। এভাবেই নাফিসের সাথে তার পরিচয় এবং ভালো বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। রোহিত জানান, একবার এয়ারপোর্টে তার স্ত্রীকে ফ্রেঞ্চ ফ্রাই খেতে দিয়েছিলেন এই সাবেক বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান।

রোহিতের ভাষায়, ‘যখন মুস্তাফিজ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে খেলেছিল সে বছর নাফিস ইকবাল আমাদের সাথে মুম্বাইয়ে ছিল। আমার স্ত্রী বলছিল নাফিস ভাইকে হাই বলতে। আমার স্ত্রী নাফিস ভাইকে কীভাবে চেনে জানো, উনি এয়ারপোর্টে আমার স্ত্রীকে ফ্রেঞ্চ ফ্রাই খেতে দিয়েছিলেন। ও খুব ফ্রেঞ্চ ফ্রাই পছন্দ করে আর ওকে যে ফ্রেঞ্চ ফ্রাই দেয় তাকেও পছন্দ করে।’

তাদের আরও একটা মজার গল্প জানান তামিম, ‘ভাবি (রোহিতের স্ত্রী) ও আমার বড় ভাইয়ের একটা গল্প আছে। তারা একসাথে বসে মুম্বাইয়ের খেলা দেখছিল। আমার ভাইয়ের তখন খুব ক্ষুধা লেগেছিল এবং সে কিছু খাওয়ার জন্য বাইরে যেতে চাচ্ছিল; কিন্তু ভাবি বলেছিল যে তখন যাওয়া যাবে না। ম্যাচ শেষ হবে তারপর বাইরে যাওয়া যাবে। আমার ভাই বলছিল, ওই সময় তার এমন অবস্থা হয়েছিল যেন ক্ষুধায় মরে যাওয়ার মতো।’

রোহিত তার স্ত্রীর ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসা সম্পর্কে জানান, ‘আসলে ও এসব ব্যাপারে একটু বেশি সিরিয়াস। যদি ম্যাচ দেখার সময় ওর আশেপাশে কেউ থাকে ও তাদেরকে নড়তে চড়তে কোথাও যেতে দেয় না। কিন্তু আমি নিশ্চিত নাফিস ভাই আর আমার স্ত্রীর মধ্যে ভালো বন্ধুত্ব ছিল। তারা একসাথে ভ্রমণ করেছিল, একসাথে ফ্যামিলি বক্সে বসে ম্যাচ দেখেছিল। প্রায় দুইমাস আমরা একসাথে ছিলাম।’

এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান আরও জানান, যখন তিনি ব্যাটিং করেন তার স্ত্রী মনোযোগ দিয়ে শুধু সেটাই দেখেন। তখন আর তিনি অন্য কোনো কাজ করেন না। উদাহরণ দিয়ে রোহিত বলেন, দুবাইয়ে অনুষ্ঠেয় এশিয়া কাপে প্রচন্ড গরমের মধ্যে তার স্ত্রী একটানা বসে ম্যাচ দেখে তারপর উঠেছিলেন। তবুও তখন তিনি গর্ভবতী ছিলেন। রোহিত তার আরামের জন্য বলেছিলেন এভাবে ম্যাচ না দেখতে কিন্তু তিনি শোনেননি। ম্যাচ দেখে তবেই উঠেছেন।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

Related Articles

ভিডিও: ডি ককের ছক্কা গিয়ে পড়ল রাস্তায়

একাদশের বাইরে থাকা কষ্ট দিয়েছে গেইলকে

ফেনিতে আইপিএল নিয়ে জুয়া থামাতে অভিনব উদ্যোগ

সিরাজ-চাহালের বোলিং তোপে ব্যাঙ্গালোরের সহজ জয়

চেন্নাইয়ের সর্বনিম্ন সংগ্রহের রেকর্ড, রাজস্থানের সহজ জয়