Scores

নাসিরের সেঞ্চুরিতে জয় পেল শেখ জামাল

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের ‘সুপার লিগ’ পর্বে নাসির হোসেনের সেঞ্চুরিতে জয় পেয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। তার করা ১১২ রানের অপরাজিত ইনিংসে প্রাইম ব্যাংককে ৬ উইকেটে হারিয়েছে শেখ জামাল। বল হাতে ৩ উইকেটের পাশাপাশি ব্যাট হাতে ওপেনিংয়ে নেমে ৬৭ রান করেন ইলিয়াস সানি।

ফতুল্লায় টস জিতে আগে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন শেখ জামালের অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান। বোলিং নিয়ে শুরুতেই সাফল্যর দেখা পায় শেখ জামাল। ইনিংসের প্রথম বলে এনামুল হক বিজয়ের স্ট্যাম্প উড়িয়ে দেন খালেদ আহমেদ। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে অবশ্য ঘুরে দাঁড়ায় প্রাইম ব্যাংক। সুপার লিগের জন্য ভারত থেকে উড়িয়ে আনা নামান ওঝা দলের ধরেন রুবেল মিয়াঁকে নিয়ে।

নিজের প্রথম ম্যাচেই বড় রানের ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন নামান ওঝা। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে যোগ হয় ১২০ রান। এরই মধ্যে ফিফটি হাঁকান রুবেল মিয়াঁ। এই দুইজনের জুটি ভাঙেন ইলিয়াস সানি। নামানকে ৪৬ রানে আউট করেন তিনি। তার বিদায়ের একটু পরেই আউট হন রুবেল মিয়াঁও। ৬৬ রান করে তানভীর হায়দারের বলে আউট হন তিনি। তারপর যেন একটানা উইকেট পড়তেই থাকে প্রাইম ব্যাংকের। ১৪ রান যোগ করতেই ৪টি উইকেট হারায় প্রাইম ব্যাংক।

Also Read - সাইফ থাকছেন, তাসকিনে সংশয়; বাড়বে স্পিনার!

১৪০ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে দল যখন বিপদে তখন সেখান থেকে দলকে টেনে তুলেন আরিফুল হক। ফতুল্লায় ঝড় তোলেন আরিফুল। তার ঝড়ো ৫১ বলে ৭৪ রানের ইনিংসে ২৩৬ রান করে প্রাইম ব্যাংক। তিনটি করে উইকেট লাভ করেন সানি ও তানভীর। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই করেন দুই ওপেনার ইলিয়াস ও ইমতিয়াজ। তবে দলীয় ৪৫ রানে ভাঙে তাদের জুটি।

সুপার লিগ পর্বের জন্য শ্রীলঙ্কা থেকে উড়িয়ে আনা দিলশান মুনাভিরাও কিছু করতে পারেননি। তবে প্রথম পর্বে ব্যাট হাতে তেমন সফল হতে না পারা নাসির যেন প্রাইম ব্যাংকের বিপক্ষে জ্বলে উঠলেন। শুরু থেকেই বড় স্কোরের আশা দেখাচ্ছিলেন নাসির। নাসির-সানির জুটি দলকে জয়ের দিকেই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলো। ফিফটি হাঁকান ইলিয়াস সানি। ব্যক্তিগত ৬৭ রান করে আব্দুর রাজ্জাকের বলে আউট হন ইলিয়াস সানি।

সানির পর ফিফটি তুলে নেন নাসিরও। ব্যাট হাতে রান করতে ব্যর্থ হন নুরুল হাসান। ফিফটির পর সেঞ্চুরিও তুলে নেন নাসির। শেষ পর্যন্ত ১১২ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন নাসির হোসেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

প্রাইম ব্যাংক: ২৩৬-১০

আরিফুল ৭৪, রুবেল ৬৬: সানি ৩-৩৫

শেখ জামাল: ২৩৯-৪

নাসির ১১২*, সানি ৬৭: নাহিদুল ২-৩০

ফল: শেখ জামাল ৬ উইকেটে বিজয়ী।
ম্যাচসেরা: ইলিয়াস সানি (শেখ জামাল)।

Related Articles

উপেক্ষিত থাকছেন না ডিপিএলের পারফর্মাররা

সৌম্যকে যেভাবে সাহায্য করেছেন জাফর

ওয়াসিম জাফরের পরামর্শ কাজে লাগানোর প্রত্যাশা

তাণ্ডবের আগে ‘নার্ভাস’ ছিলেন সৌম্য

গর্বিত ‘অধিনায়ক মোসাদ্দেক’, কৃতিত্ব মাশরাফিকে