নাসির জামশেদকে ১০ বছরের নিষেধাজ্ঞা দিল পিসিবি

0
1196

পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগে পাকিস্তানি ক্রিকেটার নাসির জামশেদকে ১০ বছরের জন্য সব ধরণের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

নাসির জামশেদকে ১০ বছরের নিষেধাজ্ঞা দিল পিসিবি

Advertisment

শুক্রবার তার নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে পিসিবির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়। পিএসএলে ফিক্সিংয়ের অভিযোগে তাকে এই শাস্তি দিয়েছে পিসিবির অ্যান্টি করাপশন ট্রাইব্যুনাল।

এর আগে ফিক্সিংয়ের অভিযোগ আসলে ২০১৭ সালে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন জামশেদ। তার সেই নিষেধাজ্ঞা শেষ হয় চলতি বছরের এপ্রিলে। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার কয়েক মাসের মাথায়ই আবারও শাস্তি পেলেন তিনি, যা তাকে রীতিমত ক্রিকেট থেকে দূরে ছিটকে দিয়েছে।

পিএসএলের ২০১৬-১৭ মৌসুমের আসরে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগে বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার অভিযুক্ত হয়েছিলেন। অভিযুক্ত ক্রিকেটারদের তালিকায় ছিল জামশেদের নামও। জামশেদ অবশ্য তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন। তদন্তের স্বার্থে তখন তিন সদস্য বিশিষ্ট অ্যান্টি করাপশন ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়, যেখানে ছিলেন সাবেক তিন ক্রিকেটার ফজলে মিরান চৌহান, শাহজাইব মাকসুদ ও আকিব জাভেদ। ট্রাইব্যুনাল সাতটি অভিযোগের মধ্যে পাঁচটিতেই জামশেদের সংশ্লিষ্টতা পায়। এরই ধারাবাহিকতায় তাকে ১০ বছরের জন্য সব ধরণের ক্রিকেটে নিষেধাজ্ঞা দেয় বোর্ড।

এই নিষেধাজ্ঞায় জামশেদের ক্যারিয়ারের ইতিই দেখছেন অনেকে। ২৮ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার আগামী ডিসেম্বরে পূর্ণ করবেন ২৯ বছর। ১০ বছর পর ৩৯ বছর বয়সকে সঙ্গী করে তার ক্রিকেটে ফেরার সুযোগ নেই বললেই চলে। নিষেধাজ্ঞার আগে পাকিস্তানের জার্সি গায়ে ২টি টেস্ট, ৪৮টি ওয়ানডে ও ১৮টি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন এই ক্রিকেটার। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শেষবার তাকে দেখা গিয়েছিল ২০১৫ সালে।

উল্লেখ্য, জামশেদ পিএসএলের যে আসরে ফিক্সিং করেছিলেন সেই আসরে একই অপরাধ করার অভিযোগে ইতিপূর্বে বিভিন্ন মাত্রায় শাস্তি পেয়েছেন চার পাকিস্তানি ক্রিকেটার শারজিল খান, খালিদ লতিফ, মোহাম্মদ ইরফান ও মোহাম্মদ নেওয়াজ।

আরও পড়ুন: জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট থেকে সরে দাঁড়ালেন মুজারাবানি