Scores

নিউজিল্যান্ডের মেয়েদের ৪৯০ রানের কীর্তি

নিউজিল্যান্ড নারী দল আয়ারল্যান্ড নারী দলের বিপক্ষে ডাবলিনে করেছে এক অনন্য রেকর্ড। আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে ছেলে এবং মেয়েদের ক্রিকেট মিলিয়ে তুলেছে সর্বোচ্চ রান। একটুর জন্য থেমেছে ৫০০ এর দশ রান আগে।

ছবিঃ ক্রিকইনফো

৫০০ রান ছুঁতে শেষ ওভারে দরকার ছিল ২৯ রান। কিন্তু পারে নি নিউজিল্যান্ডের মেয়েরা। থেমেছে ৪৯০ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে। জবাবে আয়ারল্যান্ড নারী দল ব্যাট করতে নেমে ৩৫.৩ ওভারে গুটিয়ে যায় ১৪৪ রানে। নারী ক্রিকেটে রানের ব্যবধানে চতুর্থ সর্বোচ্চ জয় পায় ৩৪৬ রানে। সবচেয়ে বড় জয়টিও তাদের দখলে ক্রাইস্টচার্চে ৫ উইকেটে ৪৫৫ রান করেছিল ১৯৯৭ সালে।

অধিনায়ক সুজি বেটস ও তিন নম্বরে নামা ম্যাডি গ্রিন আসলে নিউজিল্যান্ডের এই পাহাড় সমান রানের ভিত গড়ে দেন। ৯৪ বলে ১৫১ রান করেন কাপ্তান সুজি বেটস। অন্যদিকে ৭৭ বলে ১২১ করেন ম্যাডি গ্রিন। বেটস এবং অভিষিক্ত জেস ওয়াটকিন দুর্ধর্ষ উদ্বোধনী জুটি গড়েন। ১৮.৫ ওভারে ৯.১৩ রান রেটে তোলেন ১৭২ রান। বদলি ফিল্ডার রেচেলের অসাধারণ ক্যাচে ভাঙ্গে জুটি। ৫৯ বলে ৬২ করে ফিরে যান ওয়াটকিন।

Also Read - নাসিরের অস্ত্রোপচার সফলভাবে সম্পন্ন


৫৯ বলে  ৮৯ রানে থাকা বেটস ৭১ বলে দশম শতক তুলে নেন। অস্ট্রেলিয়ান কাপ্তান ম্যাগ ল্যানিং এক সেঞ্চুরি বেশি নিয়ে তাঁর থেকে এগিয়ে আছেন। লুইস, লিটল ও লারা মারিটজ তিনজনে প্রত্যেকে দিয়েছেন ৯২ রান করে। বেটস এর বিদায়ে কিছুটা কমে যায় রানের চাকার গতি। গ্রিনের আগের সর্বোচ্চ ছিল ৪৬ রান, সেই গ্রিন তুলে নিয়েছেন ৬২ বলে নয় চার আর তিন ছয়ে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি।

কের অপরাজিত থাকেন নয় চার আর তিন ছয়ে ৪৫ বলে ৮১ রান করে। ৫ম উইকেট জুটিতে ৩৮ বলে ৭৬ রান যোগ করে দলের রান ৫০০ এর কাছাকাছি নিয়ে আসেন কের।

অফস্পিনার কাস্পেরেক মাত্র ২.৩ ওভার বল করে ১৭ রান দিয়ে চার উইকেট নিয়ে ধ্বসিয়ে দেন আইরিশদের ইনিংস।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

নিউজিল্যান্ডঃ ৪৯০/৪( ৫০ ওভার )

বেটস ১৫১ , গ্রিন ১২১, কের ৮১*

মারে ২/১১৯

আয়ারল্যান্ডঃ ১৪৪/১০ (৩৫.৩ ওভার)

ডিলানি ৩৭, গ্রে ৩৫

কাস্পেরেক ৪/১৭

আরো পড়ুনঃ  শীর্ষে রশিদ, উন্নতি রিয়াদ-মুশফিকের

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

জয় দিয়েই টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু শ্রীলঙ্কার

দেখুন ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে রিভিউই নিল ইংল্যান্ড?

গলে জয়ের ভেঁপু শুনছে শ্রীলঙ্কা

অধিনায়কত্ব নিয়ে ভাবতে চান মরগান

দুই কূলই হারিয়েছেন হেসন!