Scores

নিউজিল্যান্ডের লজ্জার রেকর্ডের ৬৪ বছর পূর্তি

ক্রিকেট খেলতে গিয়ে স্বস্তির রেকর্ড যেমনি হয়, তেমনি কত লজ্জার রেকর্ডও তো হয়। এমনই এক লজ্জার রেকর্ড আছে নিউজিল্যান্ডেরও। তবে এই লজ্জার মাত্রা অন্যান্য যেকোনো রেকর্ডকেই নির্দ্বিধায় ছাড়িয়ে যেতে পারে!

নিউজিল্যান্ডের লজ্জার রেকর্ডের ৬৪ বছর পূর্তি

ঠিক ৬৪ বছর আগে নিউজিল্যান্ড টেস্টে এক ইনিংসে অলআউট হয়েছিল মাত্র ২৬ রানে। এখন পর্যন্ত এটিই ইতিহাসের সর্বনিম্ন স্কোর। নিউজিল্যান্ড এমন এক বিব্রতকর রেকর্ড গড়েছিল যে হাজার বাজে ব্যাটিংয়েও সেই রেকর্ড আর ভাঙছে না!

Also Read - ভিডিও বার্তার পর তীব্র সমালোচনার মুখে ব্রেট লি


১৯৫৫ সালের ২৫ মার্চ অকল্যান্ডে শুরু হয় স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড ও সফরকারী ইংল্যান্ডের মধ্যকার দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচ। আগের ম্যাচ জিতে ইংল্যান্ড সিরিজ জয় অনেকটাই সহজ করে রেখেছিলো। তবে ঘরের মাঠে দ্বিতীয় টেস্টে ছেড়ে কথা বলবে না নিউজিল্যান্ড- এটিই ছিল অনুমেয়।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড অলআউট হয় ২০০ রানে। নিজেদের প্রথম ইনিংসে দলের পক্ষে অর্ধ-শতক হাঁকিয়েছিলেন জন রেইড। এছাড়া বার্ট সাটসলাইফ ৪৯ ও অধিনায়ক জিওফ রাবোন করেছিলেন ২৯ রান। ইংল্যান্ডের ব্রায়ান স্ট্যাথাম চারটি ও বব এপ্লেয়ার্ড তিনটি উইকেট শিকার করেছিলেন।

জবাবে খুব বেশিদূর গড়ায়নি ইংল্যান্ডের ইনিংসও। স্বাগতিক স্পিনার অ্যালেক্স ময়েরের বোলিং তোপে ইংল্যান্ডের ইনিংস থামে ২৪৬ রানে।

মাত্র ৪৬ রানের লিড পাওয়া ইংল্যান্ডকে বড় লক্ষ্য ছুঁড়ে দেওয়ার সুযোগ ছিল নিউজিল্যান্ডের সামনে। কিন্তু ২৮ মার্চ, অর্থাৎ ম্যাচের তৃতীয় দিন (তখনকার নিয়ম অনুযায়ী ২৭ মার্চ ছিল ‘রেস্ট ডে’ বা বিশ্রামের দিন) মুখ থুবড়ে পড়ে কিউইদের ব্যাটিং লাইনআপ।

দলীয় ৬ রানে প্রথম উইকেট হারানো নিউজিল্যান্ড ১০ রানের মধ্যে তিনটি, ২০ রানের মধ্যে পাঁচটি (১১-২০ রানের মধ্যে দুটি উইকেটের পতন), ২২ রানের মাথায় আরও তিনটি এবং ২৬ রানে শেষ দুটি উইকেট হারায়। ফলে ইনিংস ও ২০ রানের জয় পায় ইংলিশরা।

ঐ ম্যাচের পর গত ৬৪ বছরে মাঠে গড়িয়েছে ১৯৪৯টি টেস্ট ম্যাচ। তবুও নিউজিল্যান্ডের সেই লজ্জার রেকর্ডটি অক্ষুণ্ণই রয়েছে!

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

বিশ্বকাপের ব্যর্থতা নিয়ে ভাবতে নারাজ তামিম

শ্রীলঙ্কার উদ্দেশে দেশ ছাড়লেন ক্রিকেটাররা

টেস্ট খেলতে পাকিস্তানে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা!

ওভারথ্রোর নিয়ম পুনর্বিবেচনা করবে এমসিসি

মরগানও বলছেন- ন্যায্য হয়নি ফাইনালের ফলাফল!