Scores

নিউজিল্যান্ড সফরে যেতে পারলে ভালো লাগত : সাকিব

খেলার বাইরে সাকিবের বেশিরভাগ সময়ই এখন কাটে যুক্তরাষ্ট্রে। বলা যায়, সেখানেই থিতু হয়েছে তার পরিবার। নিষেধাজ্ঞাকাল ও করোনার সময়ে সাকিব ছিলেন পরিবারের সাথেই। সেখানেই তার দ্বিতীয় সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়। 

স্ট্রাইক রেট কম হলেও ব্যাটিং নিয়ে খুশি সাকিব

সাকিবের স্ত্রী শিশির আবারো সন্তানসম্ভবা। সন্তানের আগমনের ক্ষণে পরিবারের পাশে থাকতে চাইবেন যেকোনো বাবা। তৃতীয় সন্তানের অপেক্ষায় থাকা সাকিব বিসিবির কাছে নিউজিল্যান্ড সফর থেকে ছুটির জন্য আবেদন করেছিলেন। সাকিবের সেই আবেদন মঞ্জুর হয়েছে। শীঘ্রই তিনি ফিরে যাবেন যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে।

Also Read - রান খরা কাটাতে চুল কেটেছেন সাকিব!


তবে নিউজিল্যান্ড সফরে যেতে না পারায় আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন সাকিব। খেলার বাইরেও নিউজিল্যান্ড সাকিবের প্রিয় জায়গা। সেখানে খেলতে না পারায় আফসোস বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডারের কণ্ঠে।

একটি প্রতিষ্ঠানের পণ্যদূত হিসেবে ফেসবুক লাইভে সাকিব বলেন, ‘নিউজিল্যান্ড সফরে যেতে পারলে আমারও ভালো লাগত। নিউজিল্যান্ডে খেলার জন্য সবসময় মুখিয়ে থাকি। জায়গাটা এত সুন্দর। আমার অন্যতম প্রিয় জায়গা। একটা ওয়েস্ট ইন্ডিজ, আরেকটা নিউজিল্যান্ড। এই দুইটা জায়গা আমার খুবই পছন্দের। না যেতে পেরে খুবই খারাপ লাগছে। দুর্ভাগ্যবশত যাওয়া হচ্ছে না।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে চোট পেয়ে মাঠের বাইরে ছিটকে পড়েন সাকিব। খেলতে পারেননি ঢাকা টেস্টেও। হোয়াইটওয়াশ হওয়া এই টেস্ট সিরিজে সাকিবের অনুপস্থিতি ভুগিয়েছে বাংলাদেশকে। সাকিব বলেন, ‘আমিও মিস করেছি। খেলতে পারলে সবসময়ই ভালো লাগে। কোনো খেলোয়াড়ই কোনো ম্যাচ হাতছাড়া করতে চায় না, বিশেষ করে ইঞ্জুরির জন্য। দোয়া করবেন যাতে তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে যেতে পারি। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ক্রিকেটে ফিরতে পারি।’ 

 

Related Articles

বিসিবির পর্যবেক্ষণে মোসাদ্দেক

নিউজিল্যান্ড সফরের ব্যর্থতা নিয়ে ভেবে লাভ নেই : মুমিনুল

সব দলই নিউজিল্যান্ডে গিয়ে সংগ্রাম করে : বাশার

নিউজিল্যান্ডে সাকিব-মাশরাফিকে নিয়ে ভাবার সুযোগ পায়নি টাইগাররা

নিউজিল্যান্ডে আকাশ পরিস্কার, তাই ক্যাচ ছেড়েছে বাংলাদেশ!