নিজের প্রথম ম্যাচেই শেষ দেখে ফেলেছিলেন শচীন!

0
448

দীর্ঘ দুই যুগের বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ার। ব্যাট হাতে যাবতীয় রেকর্ডের সিংহভাগই নিজের দখলে নিয়েছেন শচীন টেন্ডুলকার। প্রথম এবং একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে সেঞ্চুরির সেঞ্চুরিও করে দেখিয়েছেন তিনি। অথচ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের শুরুর ম্যাচেই নিজের ক্যারিয়ারের শেষ দেখে ফেলেছিলেন শচীন। সেদিন অঝোরে কেঁদেছিলেন তিনি।

বন্ধ হয়ে গেল শচীনদের টুর্নামেন্ট

Advertisment

১৯৮৯ সালে মাত্র ১৬ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষিক্ত হন শচীন। করাচিতে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলতে নামেন নিজের প্রথম ম্যাচ। তখন বিশ্বের সেরা পেস বোলিং ইউনিট নিয়ে মাঠে নামতো পাকিস্তান। ইমরনা খানের সাথে ওয়াসিম আকরাম, ওয়াকার ইউনিসরা বিশ্বের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানের মনে ভয় ধরিয়ে দিতেন।

এমন বোলারদের বিপক্ষে নিজের অভিষেক ম্যাচটা একেবারেই সুখকর হয়নি লিটল মাস্টারের। পাকিস্তানি বোলারদের গতি আর বাউন্সের কাছে রীতিমত নাস্তানাবুদ হতে হয়েছিল শচীনকে। সেদিন মাত্র ১৫ রানে আউট হয়ে নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের শেষ দেখে ফেলেছিলেন তিনি। সম্প্রতি স্কাই স্পোর্টসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন শচীন।

বিষদ জানিয়ে শচীন বলেন, ‘ওয়াসিম ও ওয়াকারকে শুরু থেকে আক্রমণাত্মক মেজাজে খেলতে গিয়ে সমস্যা হচ্ছিল। স্কুল জীবনে যেভাবে খেলতাম, সেভাবে ব্যাট করছিলাম। তারা গতির পাশাপাশি ক্রমাগত শর্ট বলও করছিল। আগে এই ধরনের বোলিংয়ের বিপক্ষে খেলার কোনও অভিজ্ঞতা ছিল না৷ স্বাভাবিকভাবেই আমি বেশ অস্বস্তিবোধ করেছিলাম৷’

‘তাদের গতি ও বাউন্সের কাছে আমি বারবার পরাজিত হচ্ছিলাম৷ মাত্র ১৫ রানে আউট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফিরে প্রচন্ড হতাশ লাগছিল। নিজেক জিজ্ঞেস করেছিলাম, ‍কেন আমি এভাবে খেললাম! ড্রেসিংরুমে ঢুকে সোজা বাথরুমের কাছে চলে গিয়েছিলাম৷ সেখানে দাঁড়িয়ে কেঁদে ফেলেছিলাম৷’- সাথে আরও যোগ করেন তিনি।

মাত্র ১৬ বছর বয়সে এমন চাপ একেবারেই নিতে পারছিলেন না শচীন। এতোটাই হতাশ হয়ে পড়েছিলেন যে, নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের শেষই দেখে ফেলেছিলেন তিনি। পরে রবি শাস্ত্রীর পারমর্শে আবার ঘুরে দাঁড়ান তিনি।

শচীন জানান, ‘আসলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ঠিক কেমন সেই সম্পর্কে কোনও ধারনা করতে পারছিলাম না। মনে হচ্ছিল, এটাই আমার প্রথম ও শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ হতে চলেছে৷ এই পরিস্থিতিতে রবি শাস্ত্রী আমাকে বলে, স্কুল ম্যাচের মানসিকতা নিয়ে না খেলতে। বিশ্বের সেরা বোলারদের বিপক্ষে খেলছ। তাদেরও তো সম্মান করতে হবে।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।