Scores

“নিজের বইকে আকর্ষণীয় করতেই গম্ভীরের সমালোচনায় আফ্রিদি”

সম্প্রতি প্রকাশিত আত্মজীবনীতে ভারতীয় ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীরের এত কড়া সমালোচনা করেছেন যে রীতিমত গম্ভীরকে ‘ধুয়ে দিয়েছেন’ শহীদ আফ্রিদি। ভারতীয় পেসার বরুণ অ্যারন মনে করেন, পাঠকদের জন্য নিজের বইয়ে আকর্ষণীয় করতেই গম্ভীরের সমালোচনায় মেতেছেন এই পাকিস্তানি ক্রিকেটার।

নিজের বইকে আকর্ষণীয় করতেই গম্ভীরের সমালোচনায় আফ্রিদি
বরুণ অ্যারন ও গৌতম গম্ভীর। ফাইল ছবি

কিছুদিন আগেই প্রকাশিত হয়েছে আফ্রিদির আত্মজীবনীমূলক বই। যেখানে সাবেক ভারতীয় ব্যাটসম্যান গম্ভীরকে নেতিবাচক ব্যক্তিত্বের একজন বলে উল্লেখ করেছেন পাকিস্তানি অলরাউন্ডার। এই নিয়ে ক্রিকেটপাড়ায় চলছে আলোচনা-সমালোচনা। তবে ভারতীয় বোলার বরুণ এটাকে বড় ইস্যু হিসেবে দেখছেন না।

 

Also Read - প্রশংসা কুড়াল শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ জার্সি


বরুণ অ্যারনের ভাষ্যমতে, ‘সবাই নিজের বইয়ে পাঠকদের কাছে আকর্ষণীয় করে তুলতে চায়। এজন্য তারা ইচ্ছাকৃতভাবে বইয়ে বিশেষ কিছু বিষয় অন্তর্ভুক্ত করে থাকে। তবে আমি যতদূর দেখি, ভারত ও পাকিস্তানের সব ক্রিকেটারেরই মাঠের বাইরে ভালো সম্পর্ক রয়েছে।’

দুই দেশের ক্রিকেটারদের ভাইয়ের মতো উল্লেখ করে বরুণ বলেন, ‘পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের সাথে পরিচিত হওয়ার মাধ্যমে বলতে পারি, আমরা ভিন্ন দেশের হলেও ভাইয়ের মতোই। সবাই নিজেদের মধ্যে পাঞ্জাবি ভাষাতেই কথা বলে। তাছাড়া এই ইস্যুটাকে (গম্ভীর-আফ্রিদি বিতর্ক) আমি বড় কিছু মনে করছি না।’

 

আফ্রিদি তার বইয়ে গম্ভীর সম্পর্কে লিখেছেন, ‘কিছু শত্রুতা ব্যক্তিগত, কিছু পেশাগত। গম্ভীরের ক্ষেত্রে বিষয়টা ব্যক্তিগত পর্যায়ের। গম্ভীর খুবই দাম্ভিক। তার মানসিকতায় সমস্যা আছে। তার কোনো ব্যক্তিত্ব নেই। সে এমন একটা বিরল চরিত্র যাকে ক্রিকেটের বড় লজ্জা বলা যায়। তার আহামরি কোনো রেকর্ড নেই। পুরোটাই দম্ভ।’

গম্ভীর নিজেকে স্বাভাবিকের চেয়েও বেশি ‘সেরা’ হিসেবে জাহির করতে চান বলেই অভিমত আফ্রিদির। তার ভাষ্য, ‘গম্ভীর এমন আচরণ করে, যেন সে ডন ব্র্যাডম্যান ও জেমস বন্ডের মিলিত কিছু। করাচিতে এরকম লোকেদের আমরা সরিয়াল বলি। গম্ভীর ইতিবাচক নয়, সবটাই নেগেটিভ।’

আত্মজীবনীতে গম্ভীরের সাথে নিজের এক দ্বন্দ্বের কথাও তুলে ধরেছেন আফ্রিদি। তিনি উল্লেখ করেন, ‘আমার মনে আছে ২০০৭ সালে ভারত-পাকিস্তানের এশিয়া কাপের ম্যাচে হয়েছিল ওই ঘটনা। সিঙ্গেল নিয়ে সে সরাসরি আমার দিকে দৌড়ে এসেছিল। আমি বা আম্পয়ারের কাউকে এটা শেষ করতে হতো। তবে আমাদের দুজনের মধ্যে নিজেদের মায়ের দিকের আত্মীয়স্বজনদের নিয়ে বেশ কথাবার্তা হয়েছে।’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ফাইনালে সুপার ওভারের নিয়ম নিয়ে বিতর্ক

গম্ভীরকে ‘বেকুব’ বললেন আফ্রিদি

মাশরাফির ভাগ্য বরণ করে নেওয়া হল গম্ভীরেরও

আফ্রিদিকে মনোবিদের কাছে নিয়ে যাবেন গম্ভীর!

এভাবে গম্ভীরকে ধুয়ে দিলেন আফ্রিদি!