Scores

নিয়মিত হবে টি-টোয়েন্টি লিগ

সোমবার শেষ হলো ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট লিগের প্রথম আসর। প্রথম বারের এই আয়োজনে ১২টি দলের অংশগ্রহণে পাঁচ দিনের টুর্নামেন্ট আয়োজনে মাঠ কিংবা মাঠের বাইরের আয়োজনে বেশ সফলই হয়েছেন আয়োজকরা। এমনকি বেশ দর্শকপ্রিয়তাও পেয়েছে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট লিগ।

 

নিয়মিত হবে টি-টোয়েন্টি লিগ

Also Read - তামিম-সৌম্যদের থেকে শিখছেন তরুণ সাদমান

এদিকে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট লিগের প্রথম আসরের প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব বনাম শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের মধ্যকার ফাইনাল ম্যাচটি দেখতে মাঠে উপস্থিত ছিল প্রায় হাজার পাঁচেক দর্শক। যা দেখা যায়নি এর আগের ঘরোয়া ক্রিকেটের পাঁচ-সাত বছরেও।তাই এমন একটি সফল আয়োজন শেষে এ টুর্নামেন্টটি নিয়মিত ভিত্তিতে করার কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

সোমবার মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামের মাঠে দাঁড়িয়েই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘এই টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের টুর্নামেন্টটি আমরা প্রতিবছর আয়োজনের চেষ্টা করবো। এ টুর্নামেন্টটি আমাদের নিয়মিত আয়োজনের অংশ হিসেবেই থাকবে।’

নাজমুল হাসান পাপন আরও বলেন, ‘জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের জন্য ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত অংশ নেয়া কঠিন। তাদের আন্তর্জাতিক সূচিতে ব্যস্ত থাকতে হয়। এদিকে আমরাও জাতীয় ক্রিকেটারদের ছাড়া ঘরোয়া ক্রিকেট বিশেষ করে ক্লাব ক্রিকে খেলতে চাই না। তবে এবারের আসরটিতে ব্যতিক্রম হয়েছে। জাতীয় তারকাদের নামমাত্র অংশগ্রহণের পরেও এবারের টুর্নামেন্ট সফল ছিল।’

তাই এমন টুর্নামেন্ট নিয়মিত ভিত্তিতে যদি করা হলে দেশের ক্রিকেট অনেক লাভবান হবে বলে জানান বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। এ বিষয়ে তিনি আরো বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করবো প্রতি বছর এমন টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে। যাতে করে তরুণ ক্রিকেটাররা নিজেদের মেলে ধরতে পারে। পাশাপাশি জাতীয় দলের বাইরে থাকা খেলোয়াড়রাও নিজেদের প্রমাণ করতে পারে।’

উলেখ্য, প্রথম টি-টোয়েন্টি লিগে জমজমাট আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব।

[আরও পড়ুনঃ ক্রিকেটার মোহাম্মাদ আমিরের মায়ের মৃত্যু, ক্রিকেটারদের শোক]

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন


Related Articles

২০১৯ সালে ম্যাচ সংখ্যা কমছে টাইগারদের!

অস্ট্রেলিয়ার নতুন কোচ ল্যাঙ্গার

আগামীকাল ঘোষণা করা হবে বাংলাদেশের প্রাথমিক দল