Scores

নেটে ওয়াকারের মন জিতে নেন রানা

সর্বশেষ বিপিএলে নজরকাড়া বোলিং দিয়ে আলোচনায় আসেন ২৩ বছর বয়সী পেসার মেহেদী হাসান রানা। বাঁহাতি এই পেসার বঙ্গবন্ধু বিপিএলে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের জার্সিতে খেলতে নেমে মাঠ মাতিয়েছেন। তবে তারও আগে রানা মুগ্ধ করেছিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি সাবেক পেসার ওয়াকার ইউনিসকে।

ওয়াকার ইউনিসকেও মুগ্ধ করেছিল রানার বোলিং

এক আসরে মেন্টর হিসেবে কাজ করার পর পঞ্চম বিপিএলে সিলেট অঞ্চলের প্রতিনিধিত্বকারী দল সিলেট সিক্সার্সের প্রধান কোচের আসনে বসেছিলেন ওয়াকার। নেটে রানার বোলিং দেখে তিনি মুগ্ধ হয়ে যান। রানার একাদশে সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা না থাকলেও বাংলাদেশের টেস্ট স্পেশালিষ্ট বোলার এবাদত হোসেনকে রেখে রানাকেই আগে সুযোগ দেন একাদশে।

Also Read - ভারত-অস্ট্রেলিয়ার যৌথ কৌশলে বাদ পড়বে বিশ্বকাপ!






ওয়াকারের সেই মুগ্ধতার গল্প শুনিয়ে দেড় বছর আগের সেই বিপিএলে সিলেট সিক্সার্সের ম্যানেজার হিসেবে কাজ করা হান্নান সরকার জানান রানার সামর্থ্যের উপর তার অগাধ আস্থা সম্পর্কে। জাতীয় দলের সাবেক এই ক্রিকেটারের মতে, ষষ্ঠ বিপিএলে নজর কাড়লেও রানার দুর্দান্ত স্কিল ছিল আগেও।

বিডিক্রিকটাইম এর লাইভ আড্ডায় হান্নান বলেন, ‘এই বিপিএলে তো রানা ভালোই করেছে। তবে গত বছর সিলেট সিক্সার্সে ছিল। আমি সিলেট সিক্সার্সের টিম ম্যানেজার ছিলাম তখন, দল গঠনের দায়িত্ব ছিল আমার উপর। রানাকে লাস্ট কলে দলে নিয়েছিলাম। রানাও জানতো, তাকে প্রথমে খেলানোর পরিকল্পনা থেকে দলে নেওয়া হয়নি।’






তবে সেই রানার উপরই শুরুতেই আস্থা রেখেছিলেন কোচ ওয়াকার। কিংবদন্তি এই কোচ নেটে রানার বোলিং দেখেই মুগ্ধ হয়ে যান। হান্নান জানান, ‘ওয়াকার ইউনিস আমাদের হেড কোচ ছিলেন। এবাদত তখন জাতীয় দলের ক্যাম্পে আছে। ওয়াকার নেটে রানার বোলিং দেখে এবাদতের আগেই একাদশে সুযোগ দিলেন। ওয়াকারের চোখ তো আর ভুল প্রমাণ করবে না। তার অভিজ্ঞতা, তার বিচার-বিবেচনা কোন পর্যায়ের আমরা সবাই জানি।’ 

হার্নিয়াজনিত অসুস্থতার কারণে রানাকে যেতে হয়েছিল অস্ত্রোপচার কক্ষে। সেই জটিল ইঞ্জুরি সারাতে প্রায় দেড় বছর ছিলেন মাঠের বাইরে। এতে সমবয়সী পারফর্মারদের চেয়ে রানা কিছুটা পিছিয়ে গেছেন বলে মনে করেন বিভিন্ন ভূমিকায় ক্রিকেটের সাথে যুক্ত পরিচিত মুখ হান্নান সরকার।

তিনি বলেন, ‘রানার মেধা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। ইঞ্জুরির কারণে একটু পেছনে পড়ে গিয়েছিল। তবে চমৎকারভাবে ইঞ্জুরি কাটিয়ে মাঠে ফিরেছে। এত বড় গ্যাপের পর ফিরে এসে ভালো করা বিশাল চ্যালেঞ্জ। পেসারদের জন্য আরও চ্যালেঞ্জিং। সেই চ্যালেঞ্জ রানা জয় করতে পেরেছে।’

 

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

আজহারউদ্দিনের স্ত্রীর জন্য দর্শক পিটিয়েছিলেন ইনজামাম

শচীনের শক্তির জায়গা ‘নিরহঙ্কারতা’

অদ্ভুত কারণে সোশ্যাল মিডিয়াকে বিদায় বললেন ওয়াকার

আইসিসির পরিকল্পনার ঘোরতর বিরোধী ওয়াকার-হোল্ডিং

পাকিস্তানকে ফাঁকি দিয়েছেন আমির-ওয়াহাব!