নেতৃত্ব উপভোগ করছেন শান্ত

0
1817

নাজমুল হোসেন শান্ত, ১৯ বছর বয়সী তরুণ ক্রিকেটার। অনূর্ধ্ব-১৯ দল মাতিয়ে চলতি বছর টেস্ট অভিষেক ঘটিয়েছেন। যদিও সেটিই ছিল শান্তর একমাত্র আন্তর্জাতিক ম্যাচ। [আরো পড়ুনঃ আবারও প্রশ্নবিদ্ধ বোলার হাফিজ!]

শান্ত

Advertisment

অবশ্য জাতীয় দলের জার্সি গায়ে চাপানো নিয়ে কোনো তাড়াহুড়া নেই বাংলাদেশ ‘এ’ দলের বর্তমান অধিনায়কের। বরং নিজের কাজ অর্থাৎ ব্যাট হাতে পারফরমেন্সটাই ঠিকমতো করে যেতে চান রাজশাহীর ছেলে।

সম্প্রতি কালের কণ্ঠকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে উঠে আসে শান্তর ক্যারিয়ার সম্পর্কিত ভাবনা-গল্প।

বয়সভিত্তিকের পর এইচপি দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন, এখন ‘এ’ দলেরও অধিনায়ক। অনেক সিনিয়র ক্রিকেটারকে রেখে নির্বাচকরা ভরসা রেখেছেন তার উপরই। নেতৃত্ব দেওয়ার অভিজ্ঞতা সম্পর্কে জানতে চাইলে শান্ত বলেন, ‘সব মিলিয়ে ভালোই। ইংল্যান্ড সফরে হাই পারফরমেন্স স্কোয়াডকে (এইচপি) নেতৃত্ব দিতে হবে শুনে প্রথম একটু রোমাঞ্চিতই ছিলাম। সেখান থেকে আসার পর এখন ‘এ’ দলকেও নেতৃত্ব দিচ্ছি। এত দিনে অনেকটাই অভ্যস্ত হয়ে গেছি। উপভোগও করছি।’

আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মাত্র ১৯৫ রানের লক্ষ্যেই কষ্টার্জিত জয় পেতে হয়েছে। এর কারণ জানতে চাইলে দলের অধিনায়ক বলেন, ‘আমার মনে হয় ব্যাটসম্যানরা আরেকটু দায়িত্ব নিয়ে খেললে এ রকম হতো না। তবে আইরিশ দলটিকেও ছোট করে দেখার কারণ আছে বলে মনে করি না। ওদের দলেও বেশ কয়েকজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার আছে। তানভীর (হায়দার) ভাই অবশ্য দারুণ ফিনিশ করে জয়টি এনে দিয়েছেন।’

একটি টেস্ট খেলেছেন। জাতীয় দল নিয়ে এখন কেমনটি ভাবছেন তিনি? শান্ত জানান, জাতীয় দলের ভাবনা তার মাথায়ই নেই! তিনি বলেন, ‘সত্যি কথা বললে জাতীয় দল ভাবনা আমার মাথাতেই নেই। এটা নিয়ে চিন্তা করতে পছন্দও করি না। আমার কাজ হলো যখন যেখানে সুযোগ পাই, পারফর্ম করে যাওয়া। কারণ আমি জানি তা করে যেতে থাকলে সুযোগ একদিন ঠিকই আসবে। তাই আগাম ভাবনার কিছু দেখি না।’

শান্ত আরও বলেন, ‘এটা নিয়ে ভাবতে গেলে তা আমার খেলায় প্রভাব ফেললেও ফেলতে পারে। তাই ভবিষ্যৎ না ভেবে বর্তমান নিয়েই থাকতে চাই। তা ছাড়া আমি যে জায়গায় ব্যাটিং করি, সেখানে অনেক পারফরমার। আমার কথা হলো কেউ যদি ১০০ রান করে, তাহলে তাকে টপকাতে হলে আমাকে করতে হবে ১৫০। আপাতত আমার চিন্তার ধরনটি এমনই।’

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম