Scores

পরাগ-আর্চারের ঝড়ে রাজস্থানের রোমাঞ্চকর জয়

কলকাতা নাইট রাইদার্সের দীনেশ কার্তিকের খেলা ৫০ বলে ৯৭ রানের অপরাজিত ইনিংসটা দিনশেষে বৃথা গেল। রিয়ান পরাগ আর জোফরা আর্চারের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে টান টান উত্তেজনার ম্যাচটি রাজস্থান রয়্যালস জিতে নিয়েছে তিন উইকেটে।

 

পরাগ-আর্চারের ঝড়ে রাজস্থানের রোমাঞ্চকর জয়
©বিসিসিআই

টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং করতে নামে কলকাতা নাইট রাইডার্স। ইনিংসের প্রথম ওভারেই উইকেট হারায় তারা। পেসার ভরুন অ্যারনের বলে বোল্ড হন ক্রিস লিন (০)।  এরপর শুভমান গিল আর নিতিশ রানা মিলে গড়েন ৩১ রানের জুটি। ওপেনার শুভমান গিলের উইকেটতাও নেন ভরুন অ্যারন। ১৪ বলে ১৪ রান করে বোল্ড হন তিনি। নিতিশ রানা খেলছিলেন কিছুটা দেখে শুনে। থিতু হলেও ব্যর্থ হন ইনিংস লম্বা করতে। ২৬ বলে ২১ রান করে বিদায় নেন শ্রেয়াস গোপালের বলে।

Also Read - বিশ্বকাপ দলে ডাক না পেয়ে আলোচিত যারা


 

এরপর সুনিল নারাইন আর দীনেশ কার্তিক মিলে যোগ করেন ৩৮ রান। এক চার আর এক ছক্কা মেরে সম্ভাবনা জাগানো সুনিল নারাইন ১১ রান করে রান আউট হন। এরপর আন্দ্রে রাসেলকে সাথে নিয়ে ৩৯ রানের জুটি গড়েন দীনেশ কার্তিক। আরেক ক্যারিবিয়ান বোলার ওশান থমাসের বলে ফিরে যান আন্দ্রে রাসেল। তার ভয়ঙ্কর রূপ এ ম্যাচে দেখা যায়নি। ১৪ বলে ১৪ রান করেন তিনি। কার্লোস ব্র্যাথওয়েট ফিরে যান ৩ বলে ৫ রান করে। এক প্রান্ত আগলে রাখা দীনেশ কার্তিক ঝড় তুলেন শেষের দিকে। সপ্তম উইকেটের জুটিতে রিঙ্কু সিংকে নিয়ে যোগ করেন ১৬ বলে ৪৪ রান। তার মাঝে রিঙ্কু সিংয়ের অবদান ছিল মাত্র ৩ বলে ৩।

দীনেশ কার্তিকের ঝড়ো ব্যাটিংয়ের সুবাদে ১৭৫ রানের সংগ্রহ পায় কলকাতা নাইট রাইডার্স। ৫০ বলে ৯৭ রান করে অপরাজিত থাকেন দীনেশ কার্তিক। তার ইনিংসে ছিল ৭ চার আর ৯ ছক্কা।

জবাব দিতে নেমে রাজস্থান রয়্যালসের দুই ওপেনার আজিঙ্কা রাহানে আর সঞ্জু স্যামসন মিলে দলকে ৫৩ রানের ভিত গড়ে দেন। ষষ্ঠ ওভারে সুনিল নারাইনের বলে এলবিডব্লিউ হন আজিঙ্কা রাহানে। ২১ বলে ৩৪ রানের ইনিংস খেলেন আজিঙ্কা রাহানে। পরের ওভারে সঞ্জু স্যামসনকে বোল্ড করেন পিযুষ চাওলা। ১৫ বলে ২২ রান করেন সঞ্জু স্যামসন। পরের ওভারে ফের আঘাত হানেন সুনিল নারাইন। বোল্ড করেন ২ রান করা স্টিভ স্মিথকে।

বেশি সময় টিকতে পারেননি বেন স্টোকসও। ১১ রান করে চাওলার দ্বিতীয় শিকার হন তিনি। তার পদাঙ্কই যেন অনুসরণ করেন স্টুয়ার্ট বিনি। তিনিও ১১ রান করে ফিরেন চাওলার বলে। শ্রেয়াস গোপালকে সাথে নিয়ে রিয়ান পরাগ গড়েন ২৬ রানের জুটি। ৯ বলে ১৮ রানের এক ছোট্ট ঝড়ো ইনিংস খেলেন শ্রেয়াস গোপাল।

 

শ্রেয়াস গোপালের বিদায়ের পর রিয়ান পরাগকে সঙ্গ দেন জোফরা আর্চার। শেষ ৪ ওভারে দরকার ছিল ৪৬ রান। নারাইনের করা ওভারে এক চার ও এক ছক্কা হাঁকিয়ে ১৫ রান তুলেন পরাগ আর আর্চার। প্রদীশ কৃষ্ণার করা পরের ওভারেও হয় একটি চার আর একটি ছয়। পরের ওভারে আনা হয় আন্দ্রে রাসেলকে। ঐ ওভারের চতুর্থ বলেও ছক্কা হাঁকান পরাগ। পরের বলে হিট আউট হলে তার ইনিংসের সমাপ্তি ঘটে। ৩১ বলে ৪৭ রানের এক কার্যকরী ইনিংস খেলেন তিনি।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য নয় রান দরকার ছিল রাজস্থান রয়্যালসের। প্রথম দুই বলেই একটি চার আর ছক্কা মেরে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান জোফরা আর্চার। ২ চার ও ২ ছক্কা হাঁকানো আর্চার অপরাজিত থাকেন ১২ বলে ২৭ রান করে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

কলকাতা নাইট রাইডার্স ১৭৫/৬,  ২০ওভার
দীনেশ ৯৭*, রানা ২১, রাসেল ১৪, গিল ১৪
অ্যারন ২/২০, গোপাল ১/৩১, উনাদকাট ১/৫০

রাজস্থান রয়্যালস ১৭৭/৭, ১৯.২ওভার
পরাগ ৪৭, রাহানে ৩৪, আর্চার ২৭*,স্যামসন ২২
চাওলা ৩/২০, নারাইন ২/২৫, রাসেল ১/৩২


আরো পড়ুন প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে প্রমীলা ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে জাহানারা


 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

আইপিএল থেকে মালিঙ্গাদের উপর চাপ দেয়া হচ্ছে!

ফিরছেন রাইডু, হচ্ছেন হায়দ্রাবাদের অধিনায়ক!

অবসরের কথা অস্বীকার, ভারতের হয়ে খেলবেন রাইডু

আইপিএলে অধিনায়ক হচ্ছেন সাকিব, গুজব নাকি সত্য?

আইপিএলের মত লাভের ভাগ চায় ফ্র্যাঞ্চাইজিরা