Scores

পাঁচ ছক্কার রাগ ছয় ছক্কায় ঝেড়েছিলেন যুবরাজ

২০০৭ সালের টি-=২০ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এক ওভারের ছয় বলে ছয়টি ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন যুবরাজ সিং। সেই ছয় ছক্কা ছিল পাঁচ ছক্কা হজমের বদলা! ‘সনি টেন পিট স্টেপ শো’ নামের একটি ফেইসবুক লাইভে এসে এমনটাই বলেছেন যুবরাজ।  সেই লাইভে তার সঙ্গে ছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ফুটবলার মার্কাস র‍্যাশফোর্ডও।

ছয় ছক্কার পর পরীক্ষা করা হয়েছিল যুবরাজের ব্যাট!

টি-২০ বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একটি ওয়ানডে ম্যাচে শেষ ওভারে যুবরাজ সিংয়ের হাতে বল তুলে দেওয়া হয়। ব্যাটিংয়ে ছিলেন দুই ইংলিশ ক্রিকেটার দিমিত্রি মাসকারেনহাস এবং ওয়াইজ শাহ। ওভারের দ্বিতীয় বল থেকে শুরু হয় মাসকারেনহাসের ঝড়। টানা পাঁচ ছক্কা মারেন এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

Also Read - ‘মানসিকতার ভাইরাস কোন মাস্ক দিয়ে আটকাবে?’


পাঁচ ছক্কা হজমের দুঃস্মৃতি দীর্ঘ সময় তাড়া করে যুবরাজকে। যুবরাজ বলেন, “আমি ওভালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একটি ম্যাচ খেলছিলাম এবং শেষ ওভার করেছিলাম। দিমিত্রি মাসকারেনহাস আমার ওভারে পাঁচটা ছক্কা মারে এবং আমি সম্ভবত পরের ১৫ দিন ঘুমাতে পারিনি। আমি আমার বন্ধুদের থেকে অনেক ফোন এবং বার্তা পাচ্ছিলাম যেগুলো আমার জন্য খুব কষ্টের ছিল। সেঞ্চুরি করার পরে আমি কখনো এতো ফোন পাইনি।”

বল হাতে পাঁচ ছক্কা হজমের জবাবটা দিতে বেশি সময় লাগেনি যুবরাজের। একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ছয় বলে ছয় ছক্কা মেরেছিলেন তিনি। ঐ মযাচে খেলেছিলেন ১৬ বলে ৫৮ রানের এক বিধ্বংসী ইনিংস। স্টুয়ার্ট ব্রডকে ছয় ছক্কা মারার পর যুবরাজের চোখ খুঁজে বের করেছিল মাসকারেনহাসকে।

যুবরাজ বলেন, “আমার মনে আছে আমি ছয় ছক্কা মারার পর আমি অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ বা স্টুয়ার্ট ব্রডের দিকে তাকাইনি। তাকিয়েছিলাম দিমিত্রি মাসকারেনহাসের দিকে।” 


বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।


 

Related Articles

টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিং : মালানের বিশ্বরেকর্ড, শীর্ষ ‘২০’-এ লিটন

মালান-বাটলার ঝড়ে হোয়াইটওয়াশ দক্ষিণ আফ্রিকা

চোট পেয়ে ইংল্যান্ড সিরিজ শেষ রাবাদার

শ্বাসরুদ্ধকর জয়ে সিরিজ জিতল ইংল্যান্ড

ডু প্লেসিকে ছাপিয়ে আলো কেড়ে নিলেন বেয়ারস্টো