Scores

পাকা ফিনিশার হতে নিজেকে নিয়ে কাজ করছেন মোসাদ্দেক

ক্রিকেটে ফিনিশারদের ভূমিকা অন্যদের চেয়ে একটু আলাদা। ম্যাচে ভূমিকা রাখার সুযোগ আসবে খুবই কম সময়ের জন্য, তবে যখনই আসবে তখন সময়ক্ষেপণ না করে দলে বড় অবদান রাখতে হবে। কঠিন এই ভূমিকায় নিজেকে আরও শাণ দিতে কঠোর পরিশ্রম করছেন জাতীয় দলের অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

মারাঠা অ্যারাবিয়ান্সের সহ-অধিনায়ক হলেন মোসাদ্দেক
মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ফাইল ছবি

পরীক্ষিত এই ক্রিকেটার ডাক পেয়েছেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রাথমিক স্কোয়াডে। মিরপুরে অনুশীলনের সময় তিনি গুরুত্ব দিচ্ছেন ব্যাটিংকে।

মোসাদ্দেক জানান, ‘ব্যাটিংয়ে ফিনিশারের দায়িত্বটা সবসময় থাকে। দলকে ভালো অবস্থানে নিয়ে যাওয়া, ঠিকভাবে শেষ করা এটাই সবসময় কাজ থাকে। ভালো সময়ে ভালোভাবে ফিনিশ করার দায়িত্বটাই আমাদের (ফিনিশার) ওপর থাকে। নতুন করে কাজ করা বলতে… এই সময়টাতে ইয়র্কার এবং স্লোয়ার বেশি আসে। এটা নিয়েই কাজ করছি। এর বাইরে আমি মনে করি নতুন করে কাজ করার কিছু নেই।’

Also Read - 'বড় উদ্যোগ' নেওয়ায় বিসিবিকে মোসাদ্দেকের ধন্যবাদ


সাম্প্রতিক সময়ে চোট বেশ ভুগিয়েছে মোসাদ্দেককে। চোট সারিয়ে এখন অবশ্য পুরোদমে খেলার জন্য ফিট। তিনি জানান, ‘ইঞ্জুরি থেকে সেরে ওঠার পর মাত্র ২-৩ দিন প্র্যাকটিস করার সুযোগ পেয়েছি। এখানে আসার পরও ২ দিন প্র্যাকটিস করলাম। এখন পর্যন্ত ভালো বোধ করছি। পায়ের আগের অবস্থার চেয়ে অনেক উন্নতি হয়েছে। ব্যাটিং বোলিং সবকিছু করলাম, জিমও করলাম। কোনো কিছুতেই সমস্যা মনে হচ্ছে না।’

নিজেকে আত্মবিশ্বাসী দাবি করে মোসাদ্দেক আশা প্রকাশ করেন, জাতীয় দলের মাঠের বিবর্ণ পারফরম্যান্স শীঘ্রই পেছনে ফেলে ঘুরে দাঁড়াবে টাইগাররা। তিনি আরও বলেন, ‘অবশ্যই আগের চেয়ে অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী। যখন ব্যাটিং বোলিং করছি তখন মনে হচ্ছে আমার শেপটা আগের চেয়ে অনেক ভালো আছে। ঐ জায়গা থেকে বলব আগের চেয়ে এখন অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী এখন। সাম্প্রতিক সময়ে দলের যে অবস্থা, সবাই দেখছে যে একটা খারাপ সময় পার করছি। আশা করি খুব তাড়াতাড়ি এটা কাটিয়ে উঠবো এবং আমাদের দল ভালোভাবে কামব্যাক করবে, ইনশাআল্লাহ।’

Related Articles

চেনা কন্ডিশনে পেসারদের দায়িত্বশীলতা চান সাইফউদ্দিন

রোজা রেখে হার্ড ওয়ার্ক করছি, আমরা আশাবাদী : সাইফউদ্দিন

মুস্তাফিজের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সাকারিয়া

অনভিষিক্ত দুই পেসারকে নিয়ে বাংলাদেশে আসছে শ্রীলঙ্কা

ডমিঙ্গোকে ‘বলির পাঁঠা’ না বানানোর আহ্বান সুজনের