পিএসএল ২০২১ : পুরস্কারের ছড়াছড়ি

0
1308

আবুধাবিতে পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) ফাইনালে পেশোয়ার জালমিকে ৪৭ রানে হারিয়ে প্রথমবাবরের মতো শিরোপার দেখা পেয়েছে মুলতান সুলতান্স। শিরোপার পাশাপাশি পুরস্কার হিসেবে মোটা অঙ্কের অর্থও পেয়েছে দলটি।

পিএসএল চ্যাম্পিয়ন মুলতান পেল ৪ কোটি টাকা

Advertisment

বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) আবুধাবির শেখ আবু জায়েদ স্টেডিয়ামে পিএসএলের ফাইনালে মুখোমুখি হয় পেশোয়ার জালমি ও মুলতান সুলতান্স। ফাইনালে মুলতানের দেওয়া ২০৬ রানের বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ১৫৯ রানেই থেকে যায় পেশোয়ারের ইনিংস। ফলে ৪৭ রানের জয় নিয়ে প্রথমবারের মতো শিরোপার দেখা পায় মুলতান।

চ্যাম্পিয়নের ট্রফির পাশাপাশি প্রাইজমানির অর্থ হিসেবে সাড়ে তিন কোটি ভারতীয় রূপি বা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৪ কোটি টাকা পেয়েছে মুলতান সুলতান্স। আর রানার্স-আপ পেশোয়ার জালমির অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে দেড় কোটি রূপি বা প্রায় ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা।

ফাইনালে ছয়টি বাউন্ডারি ও তিন ছক্কায় মাত্র ৩৫ বলে ৬৫ রান করে দলকে বড় সংগ্রহ এনে দেওয়া শোয়েব মাকসুদ পেয়েছেন ম্যাচসেরার পুরস্কার। ট্রফির সঙ্গে ম্যাচসেরার প্রাইজমানির ৩.৭৫ লাখ রুপি বা প্রায় ৪ লাখ ২৮ হাজার টাকা পেয়েছেন এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান।

পিএসএলের এবারের আসরে মোট ৪২৮ রান করে মুলতানের শিরোপা জয়ের পেছনে বড় ভূমিকা রাখায় টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কারও গেছে মাকসুদের ঘরেই। তাইতো আরও ১৪ লাখ রূপি বা প্রায় ১৬ লাখ টাকা তার হাতেই উঠেছে।

এছাড়া আরও চারটি ক্যাটাগরিতে প্রাইজমানি বাবদ সমান ৩.৭৫ লাখ রূপি বা প্রায় ৪ লাখ ২৮ হাজার টাকা করে তুলে দেওয়া হয়েছে বিজয়ীদের হাতে। ১১ ম্যাচে ৫৫৪ রান করে করাচি কিংসের ওপেনার বাবর আজম এবারের পিএসএলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। বাবরের সমান ১১ ম্যাচ খেলে ২০ উইকেট নিয়ে উইকেটশিকারীদের তালিকায় শীর্ষস্থান দখল করেছেন চ্যাম্পিয়ন মুলতানের শাহনেওয়াজ দাহানী।

এছাড়া সেরা উইকেটকিপার ও ফিল্ডারের হাতেও উঠেছে পুরস্কার। এই দুইটি পুরস্কার পেয়েছেন যথাক্রমে মুলতানের অধিনায়ক মোহাম্মদ রিজওয়ান ও করাচি কিংসের ইফতেখার আহমেদ।

এক নজরে পিএসএল ২০২১ আসরের প্রাইজমানি

চ্যাম্পিয়ন : মুলতান সুলতান্স- ৩.৫ কোটি রূপি বা প্রায় ৪ কোটি টাকা।

রানার্স-আপ : পেশোয়ার জালমি- ১.৫ কোটি রূপি বা প্রায় ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা।

প্লেয়ার অব দ্য ফাইনাল : শোয়েব মাকসুদ- ৩.৭৫ লাখ রূপি বা প্রায় ৪ লাখ ২৮ হাজার টাকা।

প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট : শোয়েব মাকসুদ- ১৪ লাখ রূপি বা প্রায় ১৬ লাখ টাকা।

সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক : বাবর আজম- ৩.৭৫ লাখ রূপি বা প্রায় ৪ লাখ ২৮ হাজার টাকা।

সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী : শাহনেওয়াজ দাহানী- ৩.৭৫ লাখ রূপি বা প্রায় ৪ লাখ ২৮ হাজার টাকা।

সেরা উইকেটকিপার : মোহাম্মদ রিজওয়ান- ৩.৭৫ লাখ রূপি বা প্রায় ৪ লাখ ২৮ হাজার টাকা।

সেরা ফিল্ডার : ইফতেখার আহমেদ- ৩.৭৫ লাখ রূপি বা প্রায় ৪ লাখ ২৮ হাজার টাকা।