পিসিবিই চায়নি ইউনিসকে, পদত্যাগের পর বিস্ফোরক দাবি

নিজের ইচ্ছায় পদ ছাড়ার কথা জানালেও এবার বিস্ফোরক দাবি করলেন পাকিস্তানের সদ্য সাবেক ব্যাটিং কোচ ও সাবেক কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান ইউনিস খান। তার দাবি, নিজের ইচ্ছা থাকলেও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডই তাকে ব্যাটিং কোচ হিসেবে চায়নি।

পিসিবিই চায়নি ইউনিসকে, পদত্যাগের পর বিস্ফোরক দাবি
পাকিস্তানের সদ্য সাবেক ব্যাটিং কোচ ইউনিস খান। ফাইল ছবি

খেলোয়াড়ি জীবন থেকে অবসরের পর পাকিস্তানের কোচিং প্যানেলে যুক্ত হওয়ার তীব্র আকাঙ্ক্ষা ছিল ইউনিসের। তার সেই স্বপ্ন পূরণ হয় গত বছর। ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত তার সাথে চুক্তি ছিল পিসিবির। তবে গত ২২ জুন হুট করেই ইউনিসের সাথে সম্পর্ক ছিন্নের কথা জানায় পিসিবি। পিসিবির দাবি ছিল, দুই পক্ষের মতামতের ভিত্তিতেই এসেছে এই সিদ্ধান্ত।

Advertisment

তবে পদ ছাড়ার পর পাকিস্তানের একটি টেলিভিশন চ্যানেলে ইউনিস বলেন, ‘২০১৭ সালে আমি একটা কাজের পর লর্ডস থেকে ফিরছিলাম, তখনই আমাকে ব্যাটিং কোচের দায়িত্ব নিতে বলা হয়। লোকাল খাবার বিক্রি করা লোকটা থেকে শুরু করে পিসিবি- গত তিন বছর ধরে অনেকেই আমাকে এই দায়িত্ব পালন করতে বলেছে, গত ৬-৭ মাস করেছিও। আমি পিসিবিকে সাহায্য করতে চেয়েছি। কিন্তু তারা যদি এটা না চায়, আমার কী করার আছে?’

গত জুনে অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন ইউনিস। সে সময় দায়িত্ব পেয়েছিলেন শুধু ইংল্যান্ড সফরের জন্য। নভেম্বরে তার সাথে চুক্তির মেয়াদ বাড়ানো হয় ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত। তবে পাকিস্তান জাতীয় দলের সাথে ইউনিসের যাত্রা ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও স্পর্শ করতে পারল না।

পাকিস্তানের কোচ হওয়ার আগে ইউনিসের আক্ষেপ ছিল- যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও তার মেধা কাজে লাগাচ্ছে না পিসিবি। সেই আক্ষেপ ঘুচে যাওয়ার সময় পেয়েছিলেন গুরুদায়িত্ব নিয়ে। তবে পিসিবির সাথে ইউনিসের সম্পর্ক মোটেও দীর্ঘস্থায়ী হল না। ৪৩ বছর বয়সী এই সাবেক ক্রিকেটার দীর্ঘ খেলোয়াড়ি জীবনে পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে ১১৮টি টেস্ট, ২৬৫টি ওয়ানডে ও ২৫টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন।