প্রতিপক্ষ নয়, নিজেকে নিয়েই চিন্তায় থাকেন মেহেদী

0
617

টানা দুইটি সিরিজে স্কোয়াডে ডাক পেলেন শেখ মেহেদী হাসান। দেশের মাটিতে সর্বশেষ ওয়ানডে সিরিজের স্কোয়াডে থাকলেও খেলার সুযোগ পাননি। নিউজিল্যান্ডে সুযোগ পেলেই কাজে লাগাতে চান এবং তারজন্য আগে সেখানে অনুশীলনে নিজেকে খাপখাওয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা তার। সেসব পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন বিডিক্রিকটাইমকে।

'কারো খেলা কখনো ছোট করে দেখতে নেই' (2)
মেহেদী হাসান

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) নিউজিল্যান্ড সফরের জন্য বাংলাদেশের ১৯ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়েছে। এই সফরে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। স্কোয়াডে ডাক পাওয়া মেহেদীর সামনে সুযোগ সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতিতে একাদশে সুযোগ পেলে অলরাউন্ড পারফর্ম করে নিজেকে প্রমাণ করা। তবে সেক্ষেত্রে বাধা হতে পারে নিউজিল্যান্ডের বৈরি কন্ডিশন।

Advertisment

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দেশের মাটিতে ওয়ানডে সিরিজের স্কোয়াডেও ছিলেন মেহেদী। কানাঘুষা ছিল ওই সিরিজেই তার ওয়ানডে অভিষেক হবে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেটা হয়নি। এবার সামনে নিউজিল্যান্ডের অচেনা কন্ডিশন। দলে ডাক পাওয়ার পরে মেহেদী মুঠোফোনে বিডিক্রিকটাইমকে বলেন, দেশের মাটিতে খেললে চেনা পরিবেশে আত্মবিশ্বাসটা বেশি থাকতো আর নিউজিল্যান্ডে আগে নিজেকে মানিয়ে নিতে হবে; এটুকুই পার্থক্য। তাছাড়া সবসময়ই তার একই লক্ষ্য, ভালো পারফর্ম করা।

মেহেদীর কণ্ঠে, ‘দেশের মাটি হোক আর দেশের বাইরে হোক নিজেকে মানিয়ে নেওয়াটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। দেশের মাটিতে হলে যে আমার জন্য খুব ভালো হতো এমন না। কারণ পারফর্ম করার চেষ্টা করি কিন্তু ওইটা তো আর আমার হাতে থাকে না, আল্লাহরও চাওয়া লাগে। সেই জন্য বলবো, যেখানেই সুযোগ হোক না কেন আল্লাহ চাইলে সব জায়গায় পারফর্ম করা সম্ভব। দেশের মাটিতে খেলা হলে একটা আত্মবিশ্বাস কাজ করে নিজের ভেতরে কারণ এখানে আমরা অনেক ঘরোয়া ম্যাচ খেলি, পিচগুলো চেনা থাকে।’

নিউজিল্যান্ডে অনুশীলনের সময়টা কাজে লাগিয়ে মানিয়ে নিতে চান তিনি এবং তখনই করবেন নিজের বোলিং নিয়ে পরিকল্পনা,ওই কন্ডিশনে এখনো আমার যাওয়া হয়নি। তবে খেলা শুরুর আগে আমাদের অনুশীলনের সুযোগ আছে। কোয়ারেন্টিন শেষে আমাদের হয়তো ১০-১২ দিন অনুশীলনের সুযোগ থাকবে। ওখানে অনুশীলন করলেই আসলে বুঝতে পারব যে আমি আমার স্পিনটা কীভাবে কাজে লাগাতে পারব।’

নিউজিল্যান্ড এখনো স্কোয়াড ঘোষণা করেনি। তবে গুঞ্জন আছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে খেলার জন্য কিউইদের অনেক বেশ কয়েকজন সিনিয়র ক্রিকেটার বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজে নাও থাকতে পারেন। কিন্তু প্রতিপক্ষকে মোটেও ভাবছেন না মেহেদী, নজর কেবল নিজের পারফর্মে।

তিনি বলেন, ‘কে খেলবে না খেলবে সেটা আসলে আমি চিন্তা করি না। আমি যদি দলে থাকি এবং খেলার সুযোগ পাই, আমি নিজেকে নিয়েই চিন্তায় থাকি যেহেতু আমি দলে নতুন। প্রত্যেকটা খেলোয়াড়ই নিজের জায়গায় চেষ্টা করে। আমার ক্ষেত্রেও সেটাই, নিজের যা সামর্থ্য আছে তা নিজেই পারফর্ম করার চেষ্টা করব।’

বাংলাদেশ স্কোয়াড : তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নাজমুল হোসেন শান্ত, মোহাম্মদ মিঠুন, লিটন দাস, আফিফ হোসেন ধ্রুব, সৌম্য সরকার, নাঈম শেখ, তাসকিন আহমেদ, সাইফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, রুবেল হোসেন, শেখ মেহেদী হাসান, আল আমিন হোসেন, শরিফুল ইসলাম, হাসান মাহমুদ।