SCORE

সর্বশেষ

‘প্রত্যেকদিন তো ভালো করা যায় না’

সর্বশেষ নিদাহাস ট্রফিতে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স সন্তোষজনক থাকলেও সন্তোষজনক ছিল না বাঁহাতি ওপেনার সৌম্য সরকারের পারফরম্যান্স। সিরিজের পাঁচটি ম্যাচেই সুযোগ পেয়েছিলেন, প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেননি কোনো ম্যাচেই।

'প্রত্যেকদিন তো ভালো করা যায় না'

১৪, ২৪, ১, ১০, ১- এই ছিল নিদাহাস ট্রফিতে সৌম্যর পাঁচ ইনিংস। এরপর অবশ্য অগ্রণী ব্যাংকের হয়ে ডিপিএলে একটি দেড়শ রানের ইনিংস খেলেছিলেন, তবে সেটিও যথেষ্ট ছিল না তাকে ফর্মে ফেরাতে। ঘরোয়া ক্রিকেটের বাকি ম্যাচগুলোতেও যে ম্লান সৌম্য!

Also Read - ইনজুরির শিকার কোহলি

সেই সৌম্যকে আফগানিস্তান সিরিজের দলে সুযোগ পেতে দেখে অবাক হয়েছেন অনেকেই। তবে সৌম্য জানিয়েছেন, সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে কঠোর পরিশ্রম ও নিজের মতো করে খেলে ভালো পারফরম্যান্স প্রদর্শন করতে চান তিনি।

বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমের সাথে আলাপকালে সৌম্য বলেন, ‘সবাই ভালো করতে চায়। কিন্তু প্রত্যেকদিনই তো ভালো করা যায় না। প্রত্যেকদিন ভালো করলে চাওয়া-পাওয়ার শক্তিটা কমে যায়।’

খারাপ সময় কাটানোর উপায় হিসেবে সৌম্য দেখছেন কঠোর পরিশ্রমকে, ‘যেহেতু খারাপ সময় দিয়ে যাচ্ছি, ওখান থেকে কে কতটা কঠোর পরিশ্রম করে আগাতে পারি ওটাই চিন্তা করি। আমি চেষ্টা করি আমার জায়গায় আমার খেলার। ভালো খেলারই চেষ্টা করি, তার মধ্যে খারাপ ভালো মিলিয়ে হয়ে যায়।’

নিদাহাস ট্রফিতে ভালো করতে পারেননি। ভালো পারফরম্যান্স ছিল না আগের সিরিজগুলোতেও। সব মিলিয়ে সৌম্যর মধ্যে কাজ করছে ভালো করার তাড়না, ‘শেষ কয়েক ম্যাচ তো ভালো করিনি। নিজের কাছে তাগিদ থাকে ভালো করার। তারপর মানুষের কথা শুনলে মনে হয় আসলেই খারাপ খেলছি। যত কথা শুনি তত মনে পড়ে। চেষ্টা করি এসব না শুনে অনুশীলনে জোর দিতে।

দলের প্রয়োজনে সাম্প্রতিক সময়ে সৌম্যকে খেলতে হয়েছে মিডল অর্ডারে, যদিও তিনি পরিচিত ওপেনার হিসেবে। এমন পরিবর্তনে অবশ্য সমস্যা নেই সৌম্যর, ‘খেললে তো সব জায়গায় খেলতে হবে। দল যদি মনে করে পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে হবে তাহলে সেখানেই করতে হবে। এখানে পারফর্ম করতে হবে, রান করতে হবে।’

আরও পড়ুনঃ মুস্তাফিজের মুম্বাই একাদশে না থাকার কারণ জানালেন নাফিস

Related Articles

এবার দাতব্য কাজে মন দিলেন রশিদ খান

আসগর স্টানিকজাই থেকে আসগর আফগান

ক্রিকেটের ৯০ শতাংশ দর্শকই উপমহাদেশের!

স্ট্রাইকিং প্রান্তে শুরু করতেই ভালোবাসেন তামিম

“খেলায় আপস অ্যান্ড ডাউনস থাকবেই”