Scores

প্রথম ইনিংসে ১৬৭ রানে থামল মিঠুনরা

সফরকারী শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের বিপক্ষে তৃতীয় ও শেষ চারদিনের ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ১৬৭ রানে অলআউট হয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ ‘এ’ দল। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪২ রান এসেছে জাকির হাসানের ব্যাট থেকে। তাছাড়া সানজামুল ইসলাম করেছেন ৪১ রান।

১৬৭-রানে-অলআউট-বাংলাদেশ

৭ উইকেটে ১৫৭ রান নিয়ে প্রথম দিনের চা বিরতির পর ব্যাটিং করতে গিয়ে ছন্দপতন ঘটে বাংলাদেশের। প্রতাপের বলে ২২ রান করা নাঈম হাসান আউট হলে বিচ্ছিন্ন হয় তার ও সানজামুলের মধ্যকার ৫৪ রানের জুটি। এরপর মুস্তাফিজুর রহমান ও খালেদ আহমেদ যোগ্য সঙ্গ দিতে ব্যর্থ হলে সানজামুল ৪১ রানে অপরাজিত থাকলেও দলের ইনিংস গুঁটিয়ে যায় ১৬৭ রানে।

Also Read - ব্যাট হাতে সানজামুল-নাঈমের চমক


এর আগে টস জিতে অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুনের আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্তের পর ক্রিজে এসে শুরুটা ভালো হয়নি স্বাগতিকদের। দলীয় ১৪ রানের সময় ব্যক্তিগত ৯ রানে আউট হন ওপেনার সাদমান ইসলাম। এরপর দলীয় ৩৭ রানে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে ২ চারে মাত্র ১৪ রান করে সাজঘরে ফিরেন সৌম্য সরকারও।

বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যানকে সরাসরি বোল্ড আউট করে স্বাগতিকদের প্রথম ইনিংসে চাপে ফেলেছেন লঙ্কান বোলার পুষ্পাকুমারা। চাপ থেকে বের হওয়ার আগে মাত ৫ বলের ব্যবধানে ১৪ রান করা মিজানুর রহমান জয়াসুরিয়ার ফাঁদে পড়লে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ।

৩৭ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা বাংলাদেশকে এরপর লড়াইয়ের স্বপ্ন দেখান সাইফ-জাকির জুটি। দলীয় স্কোরবোর্ডে আরও ১১ রান যোগ করে লাঞ্চ বিরতিতে যান তারা। বিরতি থেকে ফিরে প্রতিরোধ গড়ার সম্ভাবনা জাগালেও আবারও বাংলাদেশের ইনিংসে ছন্দপতন ঘটান জয়াসুরিয়া। তার বলে দলীয় ৭২ রানে থিরিমান্নের হাতে সাইফ তালুবন্দী হলে বিচ্ছিন্ন হয় দু’জনের মধ্যকার ৪৫ রানের চতুর্থ উইকেট জুটি।

এরপর ক্রিজে জাকিরের সাথে যোগ দেন অধিনায়ক মিঠুন। তবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনিও। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে জাকিরের সাথে আফিফ ২০ রান যোগ করে প্রতিরোধ গড়ার ইঙ্গিত দিলেও তা আর হয়ে ওঠেনি। পুষ্পকুমারার বলে বোল্ড হয়ে ১২ রান করা আফিফ সাজঘরে ফিরলে চাপে পড়ে বাংলাদেশ। এই চাপ সামাল দিতে ব্যর্থ হন এখন পর্যন্ত টাইগারদের হয়ে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলা জাকির হাসান। ব্যক্তিগত ৪২ রানে তিনি ফাঁদে পা দেন জয়াসুরিয়ার।

এর ফলে ১০৭ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে স্বল্প রানে অল-আউট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা জাগে টাইগারদের। এরপর শেষ দিকে সানজামুল ও নাঈমের মধ্যকার ইনিংসের সর্বোচ্চ ৫৪ রানের জুটিতে চড়ে ১৬৭ রান স্কোরবোর্ডে যোগ করতে সক্ষম হয় স্বাগতিক বাংলাদেশ ‘এ’ দল।

প্রতিপক্ষ শিবিরের বোলারদের মধ্যে ৩টি করে উইকেট লাভ করেন পুষ্পাকুমারা, জয়াসুরিয়া ও প্রতাপ।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-
বাংলাদেশ; ১৬৭/১০ (প্রথম ইনিংস)
(সাদমান ৯, সৌম্য ১৪, মিজানুর ১৪, সাইফ ৭, জাকির ৪২, মিঠুন ৩, আফিফ ১২, সানজামুল ৪১*, নাঈম ২২, মুস্তাফিজ ০, খালেদ ১)

 


আরও পড়ুনঃ আইপিএল খেলে যাবেন ডি ভিলিয়ার্স

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

নতুন সমস্যায় রংপুর

বিপিএল শেষ জাকিরের, বদলি নিলো রংপুর

ইমতিয়াজ-জাকিরের ব্যাটিং দৃঢ়তায় রিয়াদদের হারাল সিলেট

রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠ ছাড়লেন জাকির

বড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেলেন তিন ক্রিকেটার