প্রমীলা ক্রিকেটের স্বপ্নসারথি দেবিকা

0
820

দেশের পুরুষ ক্রিকেট যেভাবে আগাচ্ছে, সেভাবে এগোতে পারছে না প্রমীলা ক্রিকেট। তবে ক্রিকেট অঙ্গনের মেয়েদের আছে এক বুক স্বপ্ন। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্যই তাদের সাথে যুক্ত হয়েছেন নতুন একজন কোচিং স্টাফ।

প্রমীলা ক্রিকেটের স্বপ্নসারথি দেবিকা

Advertisment

তিনি হলেন ভারতের পুনের মেয়ে দেবিকা পালশিখর। ইতিপূর্বে ভারতের হয়ে খেলেছেন। বর্তমানে পুরোদস্তুর কোচ। সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে এবার তিনি যুক্ত হলেন বাংলাদেশ মহিলা দলের কোচিং স্কোয়াডে।

দেবিকা জানালেন, বাংলাদেশ দলকে বেশ কদিন ধরেই পর্যবেক্ষণ করছেন তিনি। তাই সালমা-রুমানাদের সাথে কাজ করতে সুবিধাই হওয়ার কথা তার। দেবিকার ভাষ্য, ‘গত ছয়-সাত বছর ধরে আমি বাংলাদেশ দলকে দেখছি। ওদের আত্মবিশ্বাস আছে। আমার মনে হয় ওদের মধ্যে কিছুটা কৌশলগত ও দলীয় প্রচেষ্টার অভাব আছে। আপনি যখন আরো বড় জায়গায় খেলতে যাবেন, আপনাকে মানসিকভাবে আরো শক্ত হতে হবে। এত বছর আমি ওদেরকে দূর থেকে দেখেছি। এখন দেখব কাছ থেকে। আর সবচেয়ে বড় ব্যাপার হলো, এখনই ওদের বিষয়ে মন্তব্য করলে সেটা অনেক দ্রুত হয়ে যাবে। কাজ করলে বুঝতে পারব।

বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটে বেশ ভালো সম্ভাবনা দেখছেন তিনি। দেবিকা সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘আমার মনে হয় ওদের মধ্যে খুব ভালো সম্ভাবনা আছে। ওদের এখন শুধু সঠিক পথটা দেখিয়ে দিতে হবে, যাতে ওরা সামনে এগোতে পারে। সালমা আছে। জাহানারা আছে, সে অধিনায়কত্বও করেছে। দুই-তিনজন আছে। আরো যারা আছে তাদের সঙ্গে মিশতে হবে, দেখতে হবে।’

কোন বিভাগ নিয়ে কাজ করবেন, এমন প্রশ্নের জবাবে দেবিকা বলেন, ‘ভারতে আমি তিনটি বিভাগ নিয়েই কাজ করেছি। এখানে প্রধান কোচ আছেন। উনি যে জায়গায় মনে করবেন আমার সাহায্য দরকার, আমি তা করতে প্রস্তুত আছি… যদি এমন হয় যে ওরা বল ৩০ গজও পার করতে পারছে না, তার মানে ওদের পাওয়ার হিটিং দক্ষতা প্রয়োজন। এই দক্ষতার সঙ্গে ফিটনেসেরও একটা সম্পর্ক আছে। কাজেই পাশাপাশি ওদের ফিটনেস নিয়েও কাজ করতে হবে।’

উল্লেখ্য, আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত সালমাদের নিয়ে বাংলাদেশে কাজ করবেন দেবিকা।

আরও পড়ুনঃ আইপিএলে মুখোমুখি সাকিব-মুস্তাফিজ