প্রস্তাবিত ওয়ানডে ক্রিকেট লিগকে স্বাগত জানালেন মাশরাফি

টেস্ট ক্রিকেটকে দ্বিখন্ডিত করার পাশাপাশি ওয়ানডে ক্রিকেটেও আমূল পরিবর্তনের চিন্তাভাবনা করছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। ২০১৯ সাল থেকে ১৩টি দেশকে নিয়ে ওয়ানডে লিগ পদ্ধতি আয়োজনের কথা ভাবছে তারা, যেখানে প্রতিটি দল তিন বছরে ৩৬টি ওয়ানডে খেলবে হোম ও অ্যাওয়ে ভিত্তিতে।

image

Advertisment

স্কটল্যান্ডের এডিনবার্গে সদ্য সমাপ্ত আইসিসির বাৎসরিক সভাতেই নতুন এই ওয়ানডে লিগের ব্যাপারে একটা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা ছিল। কিন্তু সদস্য দেশগুলোর মধ্যে মতানৈক্য, এবং প্রস্তাবনার কার্যকারিতা সম্পর্কে ধোঁয়াশা থাকায় শেষ অব্দি তা সম্ভব হয়নি। তবে সবকিছু ঠিক থাকলে সেপ্টেম্বরে দুবাইয়ে হওয়ার কথা রয়েছে নির্বাহী কমিটির যে ওয়ার্কশপ, সেখানে আলোর মুখ দেখতে পারে প্রস্তাবনাটি।

ইতোমধ্যে অনেক আলোচনা সমালোচনা হয়েছে প্রস্তাবনাটি নিয়ে। কেউ এর পক্ষে তো কেউ বা বিপক্ষে। তবে বাংলাদেশের সীমিত ওভারের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা একে স্বাগতই জানিয়েছেন। তাঁর মতে, নতুন এই প্রস্তাবনার যদি বাস্তব প্রয়োগ ঘটে, তবে সামগ্রিকভাবে লাভবান হবে বাংলাদেশ ক্রিকেট।

“এটা যদি সত্যিই হয়, তবে ৫০টির বেশি ওয়ানডে খেলা যাবে। সুতরাং এটা একটা ভালো চিন্তা। এই নিয়ম হলে আমাদের খেলোয়াড়রা অনেক উপকৃত হবে। তারা বিশ্ব ক্রিকেটে নিজেদের যোগ্য প্রমাণ করার ভালো সুযোগ পাবে,” বলেন মাশরাফি।

তবে বিতর্কিত দ্বি-স্তর টেস্ট ক্রিকেটের ব্যাপারে নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেন নি মাশরাফি। বরং বর্তমানে বাংলাদেশের টেস্টে কম সুযোগ পাওয়া নিয়েই বেশি ক্ষোভ দেখিয়েছেন তিনি, যার বহি:প্রকাশ তার কথায়: ” টেস্ট ক্রিকেটে আমরা তেমন সুযোগ পাচ্ছি না। যদি সুযোগ পেতাম, এখন আমাদের ভালো খেলোয়াড় আছে তাদের টেস্ট ক্রিকেটে ভালো করার সুযোগ আছে।

“যেমন তামিম কয়েকদিন আগে ডাবল সেঞ্চুরি করলো, ইমরুল দেড়শ রান করলো। এখন দলের অবস্থা ভালো। খেলার সুযোগ না থাকলে তো নিজেদের তুলে ধরারও সুযোগ পাবে না। আমরা টেস্ট ক্রিকেটে ভালো করবো সেই সুযোগ তো আমাদের পেতে হবে।”

– জান্নাতুল নাঈম পিয়াল, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটিম ডট কম