Scores

প্রস্তুতি ম্যাচে উজ্জ্বল লিটন-মুশফিক-সৈকত

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের আগে সাবিনা পার্কে ইউনিভার্সিটিজ অব ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভাইস চ্যান্সেলর একাদশের বিপক্ষে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ইউনিভার্সিটিজ অব ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভাইস চ্যান্সেলর একাদশের ছুঁড়ে দেওয়া ২২৮ রানের লক্ষ্য বাংলাদেশ টপকে গিয়েছে চার উইকেট হাতে রেখেই।

৭০ রানের ইনিংসের পথে লিটন দাস
৭০ রানের ইনিংসের পথে লিটন দাসের শট। ছবিঃ ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের টুইটার

ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের হয়ে ইনিংস সর্বোচ্চ অপরাজিত ৭৫ রান করেন মুশফিকুর রহিম। ৭০ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন লিটন কুমার দাস। বোলিংয়ে চার উইকেট শিকার করেছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

২২৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ইনিংসের তিন নম্বর বলেই আন্দ্রে রাসেলের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন ওপেনার এনামুল হক বিজয়। ০ রানে প্রথম উইকেট হারানোর পর দলের হাল ধরেন লিটন কুমার দাস ও নাজমুল হোসেন শান্ত।

Also Read - ১০০ বলের ফরম্যাটের প্রস্তুতি শুরু করেছে ইংল্যান্ড


শান্ত ও লিটনের ব্যাটে প্রাথমিক বিপর্যয় সামলে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। ১৯ তম ওভারে দলীয় ১০১ রানের মাথায় পাওয়েলের বলে ফিরে যান নাজমুল হোসেন শান্ত। ৪৩ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। এর আগে হাতে ব্যথা পেয়ে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠ ছাড়েন লিটন দাস।

শান্ত ও লিটনের ব্যাটে প্রাথমিক বিপর্যয় সামলে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ
শান্ত ও লিটনের ব্যাটে প্রাথমিক বিপর্যয় সামলে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। ছবিঃ ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের টুইটার

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মুশফিকুর রহিমের জুটি বেশিক্ষণ টিকেনি। দুজন মিলে যোগ করেন ২১ রান।  ১২২ রানের মাথায় অটলির বলে স্টাম্পিং হন রিয়াদ। ১০ রান করেন তিনি। সাব্বির রহমান ফিরে যান পরের ওভারেই। চার রান করে ফিরেন সাজঘরে। ১ উইকেটে ১০১ থেকে ১২৭ রানে ৪ উইকেট হয়ে যায় বাংলাদেশের।

পঞ্চম উইকেটে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে নিয়ে হাল ধরেন মুশফিকুর রহিম। এ জুটি থেকে আসে ২৯ রান। দলীয় ১৫৬ রানের মাথায় সিয়ারলেসের বলে বোল্ড হন সৈকত। ১১ রান করেন তিনি। এক প্রান্ত আগলে রাখেন মুশফিকুর রহিম।

সৈকতের বিদায়ের পর ক্রিজে ফেরত আসেন লিটন দাস। দুজন মিলে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যান জয়ের পথে। ৬১ বলে নিজের অর্ধশতক পূর্ণ করেন লিটন দাস। মুশফিকুর রহিম খেলছিলেন কিছুটা আগ্রাসী হয়ে। ৫০ বলে অর্ধশতক পূরণ করেন তিনি।  ষষ্ঠ উইকেটে ৫৭ রান তুলেন লিটন ও মুশফিক। ৭০ রান করে হজের বলে ওয়ালটনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন লিটন দাস। এরপর মিরাজকে নিয়ে বাকি কাজ সম্পন্ন করেন মুশফিক। বাউন্ডারি হাঁকিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করেন মুশফিক। ৭৫ রান করে অপরাজিত ছিলেন তিনি। অপর প্রান্তে মিরাজ অপরাজিত থাকেন চার রান করে।

টস জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় ইউনিভার্সিটিজ অব ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভাইস চ্যান্সেলর একাদশ। তাদের অধিনায়ক চাডউইক ওয়ালটনকে বোল্ড করে দেন বাংলাদেশের ডানহাতি ফাস্ট বোলার রুবেল হোসেন।

রান আটকে রাখার পাশাপাশি নিয়মিত উইকেট শিকার করতে থাকেন মোসাদ্দেক। গেইলকে ফেরানোর পর শিকার করেন আরো তিন উইকেট। তার বোলিংয়ে বিপাকে পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভাইস চ্যান্সেলর একাদশ। এরপর আন্দ্রে রাসেলকে মুস্তাফিজুর রহমান আউট করলে ৮৯ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে আরও ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে স্বাগতিকরা। ১১ রান করে ফিরেন রাসেল। ক্যাচ দেন এনামুলকে।

সপ্তম উইকেটে ঘুরে দাঁড়ায়  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভাইস চ্যান্সেলর একাদশ। ওটলি এবং হজ যোগ করেন ৯০ রান। তাদের জুটিতে লড়াই করার পুঁজি পায়  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভাইস চ্যান্সেলর একাদশ। তাদের জুটি ভাঙে ৪৫ তম ওভারে। ৪৪ রান করে রুবেলের শিকার হন হজ। এক প্রান্ত আগলে রেখে ৫৮ রানের ইনিংস খেলেন ওটলি। তাকেও ফেরান রুবেল। ৫০ ওভার শেষে ২২৭ রান করতে সক্ষম হয় তারা।

২২ জুলাই শুরু হবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ।

স্কোরকার্ড-
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভাইস চ্যান্সেলর একাদশ: ২২৭/৯, ৫০ ওভার
ওটলি ৫৮, হজ ৪৪, জাঙ্গো ৩৬, গেইল ২৯
মোসাদ্দেক ১৪/৪, রুবেল ৪০/৩

বাংলাদেশ: ২৩০/৬, ৪৩.৩ ওভার
বিজয় ০, লিটন ৭০, শান্ত ৪৩, মুশফিক ৭৫, রিয়াদ ১০, সাব্বির ৪, সৈকত ১্১, মিরাজ ৪*


আরো পড়ুনঃ প্রস্তুতি ম্যাচ : মিডল অর্ডারে বিপর্যয়


 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

প্রস্তুতি ম্যাচ : মিডল অর্ডারে বিপর্যয়