Scores

প্রিটোরিয়াসের রেকর্ড গড়া বোলিংয়ে প্রোটিয়াদের সহজ জয়

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে সহজ জয়ে সিরিজে সমতা ফিরিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। আগে ব্যাটিং করে মোহাম্মদ রিজওয়ানের ফিফটিতে পাকিস্তান করে ১৪৪ রান। জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকা ২২ বল ও ৬ উইকেট হাতে রেখে জয় পেয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার ডুয়াইন প্রিটোরিয়াস শিকার করেন ৫টি উইকেট।

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টস জিতে পাকিস্তানকে আগে ব্যাটিং করার আমন্ত্রণ জানায় দক্ষিণ আফ্রিকা। টানা দ্বিতীয় ম্যাচেও ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম। ডুয়াইন প্রিটোরিয়াসের বলে এলডব্লিউ হওয়ার আগে করেন ৫ রান। দলীয় ৩৬ রানের মাথায় হায়দার আলিকে (১০) শিকার করেন অ্যান্ডিলে ফেহশুকাইয়ো। ৪৮ রানের মাথায় বিদায় নেন হুসাইন তালাত (৩)।

Also Read - ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতীয় আম্পায়ারের একাধিক ভুল সিদ্ধান্ত, উত্তাল টুইটার


চতুর্থ উইকেটে মোহাম্মদ রিজওয়ান ও ইফতিখার আহমেদ ৪৫ রানের জুটি গড়েন। তবে ধীরগতির ইনিংস খেলেন ইফতিখার। ২১ বলে ২০ রান করে প্রিটোরিয়াসের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন তিনি। পরের ওভারে এসেই রিজওয়ানকে শিকার করেন প্রিটোরিয়াস। ৯৭ রানে ৫ উইকেট হারায় পাকিস্তান।

রিজওয়ান করেন ৪১ বলে ৫১ রান। প্রথম পাকিস্তানি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে টানা তিন ইনিংসেই ফিফটি হাঁকানোর রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

খুশদিল শাহও কচ্ছপগতির এক ইনিংস খেলেন। করেন ১৮ বলে ১৫ রান। প্রিটোরিয়াসের চতুর্থ শিকারে পরিণত হন তিনি। একই ওভারে মোহাম্মদ নওয়াজকে শিকার করেন নিজের পঞ্চম উইকেট পূর্ণ করেন প্রিটোরিয়াস।

শেষদিকে ফাহিম আশরাফের ১২ বলে ৩০ রানের ক্যামিওতে পাকিস্তান পায় ১৪৪ রানের পুঁজি। ফাহিমের অপরাজিত ইনিংসে দুইটি করে চার ও ছক্কা ছিল।

প্রিটোরিয়াস ১৭ রানের বিনিময়ে শিকার করেন ৫টি উইকেট। দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এটিই সেরা বোলিং।

১৪৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতেই বিপদে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকাও। ৪ রানে বিদায় নেন জানেমান মালান। তাকে বোল্ড করেন শাহীন আফ্রিদি। জেজে স্মাটসকেও বাবরের তালুবন্দী করান এই পেসার। ২১ রানে ২ উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

তৃতীয় উইকেটে ৭৭ রানের জুটি গড়েন রিজা হেনড্রিকস ও পাইট ফন বিলওন। হেনড্রিকস ৩০ বলে ৪২ রান করে উসমান কাদিরের শিকার হন। পরের ওভারেই নওয়াজের শিকারে পরিণত হন পাইট। তার ব্যাট থেকে আসে ৩২ বলে ৪২ রান।

ডেভিড মিলার ও হেনরিখ ক্লাসেন দক্ষিণ আফ্রিকাকে ম্যাচ জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন। ২২ বল হাতে রেখেই ৬ উইকেটের জয় পায় তারা। মিলার ১৯ বলে ২৫ ও ক্লাসেন ৯ বলে ১৭ রানে অপরাজিত থাকেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

পাকিস্তান ১৪৪/৭ (২০ ওভার)
রিজওয়ান ৫১, ফাহিম ৩০*;
প্রিটোরিয়াস ৫/১৭।

দক্ষিণ আফ্রিকা ১৪৫/৪ (১৬.২ ওভার)
হেনড্রিকস ৪২, পাইট ৪২, মিলার ২৫*, ক্লাসেন ১৭*;
শাহীন ২/১৮।

দক্ষিণ আফ্রিকা ৬ উইকেটে জয়ী।

Related Articles

লকুহেতিগেকে ‘৮’ বছরের নিষেধাজ্ঞা দিল আইসিসি

বিশ্বকাপে খেলার সম্ভাবনা নিয়ে মুখ খুললেন ডি ভিলিয়ার্স

ব্যর্থতার সব দায়ভার নিজের কাঁধে নিলেন বাউচার

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের মিডল অর্ডারে মালিককে চান আফ্রিদি

জিম্বাবুয়ের টি-টোয়েন্টি দলে ‘৩’ নতুন মুখ