Scores

প্রিমিয়ার লীগের শীর্ষ পাঁচে যারা

চলছে দেশীয় ক্রিকেটারদের রুটি-রুজির আসর খ্যাত ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগ, যা একইসাথে পরিচিত ঢাকা প্রিমিয়ার লীগ হিসেবে। ২১ মে শেষ হয়েছে চলমান আসরের প্রথম পর্ব। এ পর্ব শেষে ব্যাটিংয়ে-বোলিংয়ে শীর্ষ পাঁচে থাকা ক্রিকেটারদের নিয়ে এবারের আয়োজন।

আয়ারল্যান্ড সফর ও ইংল্যান্ডে প্রস্তুতি ক্যাম্পের কারণে জাতীয় লীগের প্রথম পর্বের পুরোটা খেলতে পারেননি জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। জাতীয় দলের বাইরে থাকা ক্রিকেটাররা লুফে নিয়েছেন সেই সুযোগকেই। যার সাক্ষ্য দিচ্ছে শীর্ষ পাঁচে বর্তমান জাতীয় দলের কারও নাম না থাকা। যারা আছেন তাদের মধ্যে সুপার লীগ পর্বে কোয়ালিফাই করা দলের খেলোয়াড়দের প্রাধান্যই আবার বেশি।

Also Read - আনফিট আকমলকে দেশে ফেরত পাঠালো পিসিবি


ব্যাটিংয়ের সেরা পাঁচ

১. লীগের প্রথম পর্ব শেষে রান সংগ্রহের দিক দিয়ে সবার উপরে আছেন জাতীয় দল থেকে বাদ পড়া ক্রিকেটার লিটন দাস। নিজ দল আবাহনীকে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রাখায় বড় ভূমিকা তার। ১০ ম্যাচ খেলে ৫৭৮ রান এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানের আছে দুটি ন্সেঞ্চুরি ও তিনটি হাফসেঞ্চুরিও।

২. লিটনের সমানসংখ্যক ম্যাচ খেলে ৫২৭ রান নিয়ে শীর্ষ ব্যাটসম্যানদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছেন জাতীয় দলের আরেক বাদ পড়া ক্রিকেটার নাঈম ইসলাম, যিনি পয়েন্ট টেবিলের সপ্তম দল লিজেন্ডস অফ রূপগঞ্জের অধিনায়ক। আসরে এখন পর্যন্ত দুটি সেঞ্চুরি ও দুটি হাফসেঞ্চুরি আছে ‘ছক্কা নাঈম’ খ্যাত এই ক্রিকেটারের।

৩. তৃতীয় স্থানে আছেন যিনি, একসময় বাংলাদেশ দল মাতিয়েছেন তিনিও। ১১ ম্যাচের সবগুলোতে অংশ নিয়ে ব্রাদার্স ইউনিয়নের বাঁহাতি ওপেনার জুনায়েদ সিদ্দিকি করেছেন ৪৯০ রান। যদিও শীর্ষ ছয়ে জায়গা করে নিতে পারেনি তার দল। আসরে দুটি সেঞ্চুরি ও দুটি হাফসেঞ্চুরি আছে তারও।

৪. ১১ ম্যাচে ৪৬৩ রান করে তালিকার চতুর্থ স্থানে আছেন পরীক্ষিত ক্রিকেটার এনামুল হক বিজয়। পাঁচটি পঞ্চাশ ছাড়ানো ইনিংস খেলে ইতোমধ্যে নির্বাচকদের জানান দিয়েছেন, ফুরিয়ে যাননি এখনও। বিজয়ের দল গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স লীগের প্রথম পর্ব শেষ করেছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থেকে।

৫. শীর্ষ পাঁচের সবচেয়ে অবাক করা নাম রবিউল ইসলাম রবি। আসরের নতুন দল খেলাঘর সমাজকল্যাণ সমিতির হয়ে লীগে অংশ নিয়েছেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। ১১ ম্যাচে দুটি করে সেঞ্চুরি ও হাফসেঞ্চুরি করে ক্রিকেটসংশ্লিষ্টদের নজরে পড়েছেন বেশ কয়েক বছর ধরে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলে যাওয়া রবি।

বোলিংয়ের সেরা পাঁচ

১. বিতর্ক আর বাজে সময়কে পেছনে ফেলে প্রিমিয়ার লীগে সরূপে ফিরেছেন জাতীয় দলের বাইরে থাকা স্পিনার আরাফাত সানি। লীগে এখন পর্যন্ত ১১ ম্যাচ খেলে ২৮ উইকেট শিকার করেছেন প্রাইম দোলেশ্বরের এই বাঁহাতি বোলার। দুটি ম্যাচে নিয়েছেন চারেরও বেশি উইকেট।

২. তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছেন তাইজুল ইসলাম। মোহামেডানের এই বাঁহাতি স্পিনার ১১ ম্যাচে শিকার করেছেন ২৫ উইকেট, এক ইনিংসে আছে ৬ উইকেটের রেকর্ডও।

৩. দল খুব একটা ভালো করতে না পারলেও ব্রাদার্স ইউনিয়নের নিহাদউজ্জামান ছিলেন ফর্মে। ১১ ম্যাচে ২৩ উইকেট শিকার করেছেন ১৮ বছর বয়সী তরুণ এই স্পিনার।

৪. প্রথম পর্ব শেষে শীর্ষ পাঁচ বোলারের মধ্যে একমাত্র পেসার তিনি। ১১ ম্যাচে তার সংগ্রহ ২২ উইকেট। তার দল গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকার পেছনেও রয়েছে দীর্ঘদেহী এই ক্রিকেটারের বড় অবদান।

৫. মাত্র ৭ ম্যাচ খেলে ইনজুরির কারণে মাঠ ছাড়তে হয়েছে, তবে নিজের নামের প্রতি সুবিচার করে বাংলাদেশের সবচেয়ে অভিজ্ঞ স্পিনার আবদুর রাজ্জাক আছেন শীর্ষ পাঁচ বোলারের পঞ্চম হয়ে। ৭টি ম্যাচ খেলেই শিকার করেছিলেন ২১টি উইকেট। দুটি ম্যাচে ৫টি করে উইকেট নিয়েছেন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের এই ক্রিকেটার।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন


Related Articles

মানকাডিংয়ের সুযোগ ছাড়লেন আরাফাত সানি

টি-টোয়েন্টিতে আরাফাত সানির উইকেটের শতক

মায়েদের জয় উৎসর্গ করলো রাজশাহী

আশরাফুলের সাবধানী শুরু

নাসুম-সানির বোলিং ঘূর্ণিতে জয় প্রাইম দোলেশ্বরের