Scores

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে বাংলাদেশের রেকর্ড গড়া সংগ্রহ

এখন পর্যন্ত দ্বাদশ বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রানের দলীয় ইনিংস গড়ে লন্ডনের কেনিংটন ওভালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে লড়াকু সংগ্রহ পেয়েছে বাংলাদেশ। মুশফিকুর রহিম ও সাকিব আল হাসানের দুর্দান্ত দুই ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৩৩০ রান সংগ্রহ করে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল, যা নিজেদের ইতিহাসে টাইগারদের সবচেয়ে বড় দলীয় ইনিংস। জয়ের জন্য তাই প্রোটিয়াদের লক্ষ্য ৩৩১ রান।

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে বাংলাদেশের বড় সংগ্রহ
কৌশলী ব্যাটিংয়ে দলকে ভালো শুরু এনে দিয়েছিলেন দুই ওপেনার। ছবি: বিডিক্রিকটাইম

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে এদিন ভালো শুরুর ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। সৌম্যর চড়াও হয়ে খেলার সুবাদে দেখে-শুনে খেলছিলেন তামিম। যদিও তিনিই সবার আগে ফেরেন সাজঘরে।

দলীয় ৬০ রানের মাথায় আউট হওয়ার আগে তামিম ২৯ বলের মোকাবেলায় করেন ১৬ রান, হাঁকিয়েছেন ২টি চার। তার বিদায়ের পর সঙ্গী সৌম্যও অনুসরণ করে ধরেন সাজঘরের পথ। তার আগে ৯টি চারের সাহায্যে ৩০ বলে ৪২ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে দলকে এনে দিয়েছেন সাবলীল ব্যাটিংয়ের ভিত।

Also Read - সাকিব-মুশফিকের ব্যাটে সর্বোচ্চ রানের জুটির রেকর্ড


দুই ওপেনারের বিদায়ের পর দলের হাল ধরেন সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম। তৃতীয় উইকেটে দুজনে গড়েন রেকর্ড জুটি। ২০১৫ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পঞ্চম উইকেটে মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের গড়া ১৪১ রানের জুটির রেকর্ড ভেঙে করেন ১৪২ রান। যদিও জুটি ভাঙে রেকর্ড ভাঙার পরপরই।

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে বাংলাদেশের বড় সংগ্রহ
মুশফিক-সাকিবের সাবলীল ব্যাটিংয়ে দল পায় বড় সংগ্রহের ভিত। ছবি: বিডিক্রিকটাইম

৮টি চার ও ১টি ছক্কার সহায়তায় ৮৪ বলে ৭৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন সাকিব। নতুন ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন ২১ বলে ২১ রান করে ধরেন সাকিবের পথ।

মুশফিকও অবশ্য এরপর বেশিক্ষণ ক্রিজ আঁকড়ে থাকতে পারেননি। ৮০ বলে ৮টি চার হাঁকিয়ে ৭৮ রান করেই নেন বিদায়। শেষদিকে দলের রানের গতি ধরে রাখেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ৪৯তম ওভারের শেষ বলে মোসাদ্দেক আউট হয়ে গেলেও শেষ ওভারেও দলের হাল ধরে রাখেন রিয়াদ।

বিদায়ের আগে ২০ বলের মোকাবেলায় ২৬ রান করা মোসাদ্দেক হাঁকিয়েছেন ৪টি চার। শেষ ওভারে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ১৪ রান। নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারানো দলের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৩৩০। ৩টি চার ও ১টি ছক্কা হাঁকানো রিয়াদ অপরাজিত থাকেন ৩৩ বলে ৪৬ রান করে। ৩ বলে ৫ রান করে অপরাজিত থাকেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

প্রসঙ্গত, নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে এটিই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের দলীয় ইনিংস। এর আগে সর্বোচ্চ রানের দলীয় ইনিংস ছিল ৩২৯ রানের।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

টস: দক্ষিণ আফ্রিকা

বাংলাদেশ ৩৩০/৬ (৫০ ওভার)
মুশফিক ৭৮, সাকিব ৭৫, রিয়াদ ৪৬* সৌম্য ৪২, মোসাদ্দেক ২৬
ফেলকায়ো ৫২/২, তাহির ৫৭/২, মরিস ৭৩/২

জয়ের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার লক্ষ্য ৩৩১ রান।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ড্রেসিংরুমের ভেতরের কথা বাইরে না যাওয়াই ভালো: মুশফিক

উইলিয়ামসনের সেই রান আউট হাতছাড়া নিয়ে মুখ খুললেন মুশফিক

সাকিবও বলছেন— মাশরাফির নিষ্প্রভতায় পিছিয়ে পড়েছিল বাংলাদেশ

নিজের জন্য নয়, দেশের জন্যই খেলি: সাকিব

নিশামকে একমাস তাড়া করেছে ফাইনালের দুঃস্বপ্ন!