ফতুল্লার জলাবদ্ধতা নিষ্কাশনে বুয়েটের নকশা পেয়েছে বিসিবি

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়াম দেখলে মনে হবে, এ যেন এডিস মশার অভয়ারণ্য। এখানে একসময় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট হত, তা অন্তত বর্ষা মৌসুমে মনে হবে না কারোরই। ফতুল্লা স্টেডিয়ামের এই জলাবদ্ধতা নিরসনে বুয়েট ইতোমধ্যে জমা দিয়েছে নকশা।

ফতুল্লার জলাবদ্ধতা নিষ্কাশনে বুয়েটের নকশা পেয়েছে বিসিবি
সম্প্রতি তোলা ছবিতে পানিতে নিমজ্জিত ফতুল্লা স্টেডিয়ামের মাঠ। ছবি : প্রথম আলো

নারায়ণগঞ্জের এই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে টানা বৃষ্টি হলেই জমে থাকে পানি। ড্রেনেজ ব্যবস্থা উন্নত নয়, একইসাথে মাঠ মূল রাস্তার চেয়ে নিচু হওয়ায় জমে থাকা পানি সহজে বের করার সহজ উপায় নেই। তাই বলতে গেলে কোনো কাজেই আসছে না কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত স্টেডিয়ামটি।

Advertisment

স্টেডিয়ামের জলাবদ্ধতা নিষ্কাশন ও নিরসনের জন্য বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) দ্বারস্থ হয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। বুয়েটের করা নকশা ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) হাতে এসে পৌঁছেছে। আর সেই নকশা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ বা ন্যাশনাল স্পোর্টস কাউন্সিলের (এনএসসি) কাছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন জানান, এনএসসি শীঘ্রই ব্যবস্থা গ্রহণ করলে জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি পাবে স্টেডিয়ামটি।

তিনি বলেন, ‘ইতোমধ্যে ফতুল্লার ড্রেনেজ সিস্টেম ও পারিপার্শ্বিক বিষয়গুলো নিয়ে সংশ্লিষ্ট সবার সাথে আমাদের যোগাযোগ হয়েছে। বুয়েটকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ডিটেল ড্রয়িং ডিজাইন করার জন্য। বুয়েট সেই ডিজাইন সাবমিট করেছে এবং আমরা জাতীয় ক্রীড়া পরিষদে পাঠিয়েছি।’

‘আমরা আশা করছি জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ শীঘ্রই পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন এবং স্টেডিয়ামটিকে পূর্ণাঙ্গ রূপ দেওয়ার চেষ্টা করা হবে।’– বলেন তিনি।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।