Scores

ফাইনালের টিকিটের চড়া মূল্য হাঁকছেন ভারতীয়রা

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ এর ফাইনালের ৪১ শতাংশ টিকিট ক্রয় করেছিল ভারতীয় সমর্থকরা। ভারত ফাইনালে না যাওয়ায়, অধিকাংশ এখন টিকিট বিক্রি করে দিচ্ছেন। তবে তারা আইসিসির নিয়মানুযায়ী পুনঃবিক্রি না করে, ভ্রমণ বিষয়ক ওয়েবসাইটে চড়া মূল্যে বিক্রির চেষ্টা করছেন।

ইংল্যান্ডের দ্য টাইমস”এর প্রতিবেদন অনুযায়ী ফাইনালের টিকিটের ৮৫ শতাংশ বিক্রি করা হয়েছিল যুক্তরাজ্যের প্রবাসীদের কাছে। যারমধ্যে ৪১ শতাংশই ছিল ভারতীয় সমর্থক। কিন্তু ভারতকে সেমিফাইনালে পরাজিত করে টানা দ্বিতীয়বারের মতো ফাইনালে উঠেছে নিউজিল্যান্ড।

Also Read - ডি ভিলিয়ার্সকে যুবরাজ-কোহলির আবেগঘন বার্তা


আশাহত ভারতীয় সমর্থকদের জন্য টিকিট পুনঃবিক্রির সুবিধা রেখেছে আইসিসি। কিন্তু ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার সে নিয়ম আর ক”জন মানছেন! আইসিসির নিয়মানুযায়ী পুনঃবিক্রি না করে ভ্রমণ বিষয়ক বিভিন্ন ওয়েবসাইটে চড়া মূল্য হাঁকছেন তারা। এখন ফাইনালের টিকিট হয়ে উঠেছে সোনার হরিণ।

টিকিট কেনাবেচার ওয়েবসাইট স্টাবহাব’এ একটি টিকিটের মূল্য চাওয়া হয়েছে ১৬ হাজার ৫৮৪ পাউন্ড। অথচ ওই টিকিটের প্রকৃত মূল্য ২৯৫ পাউন্ড। আবার লর্ডসের কম্পটন স্ট্যান্ডের দুইটি সিটের মূল্য ধরা হয়েছে ৩৩ হাজার ১৬৮ পাউন্ড।

অথচ আইসিসির নিয়মানু্যায়ী টিকিটের প্রকৃত মূল্য ৯৫ পাউন্ড থেকে ৩৯৫ পাউন্ড পর্যন্ত। যেখানে প্লাটিনাম, গোল্ড, সিলভার ও ব্রোঞ্জ- এই চার ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয়েছে। ফাইনালের জন্য অবশ্য পরে আরও ২০০ অতিরিক্ত টিকিট বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে আইসিসি। তবে চাহিদানুযায়ী সেটা নিতান্তই কম হওয়ায় চড়া মূল্যের টিকিটের দিকেই ঝুঁকছেন সমর্থকরা।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

‘আমি সর্বদা বলি, সমর্থকরা আমাদের দ্বাদশ খেলোয়াড়’

আইসিসিকে নিশামের খোঁচা

সুপার ওভারের নিয়মে পরিবর্তন আনল আইসিসি

বিশ্বকাপ-ফাইনালের বিতর্কিত নিয়ম ‘চলবে না’ বিগ ব্যাশে!

ড্রেসিংরুমের ভেতরের কথা বাইরে না যাওয়াই ভালো: মুশফিক