Scores

ফাইনালের দুই হার বাদে টাইগারদের সেরা বছর!

দুই ম্যাচের টেস্টের পর আগামীকাল (৯ ডিসেম্বর) থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-উইন্ডিজ ওয়ানডে সিরিজ। বছরের শেষ সিরিজটা ভালোভাবে কাটাতে চান বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

শেষ হতে যাচ্ছে ২০১৮ সাল। এই বছরে আর একটি ওয়ানডে সিরিজ খেলবে টাইগাররা। ২০১৮ সালে এখন পর্যন্ত দুইটা টুর্নামেন্ট ও দুইটি দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ খেলেছিল বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে হার দিয়ে বছরটা শুরু করেছিল টাইগাররা। এরপর উইন্ডিজে গিয়ে ওয়ানডে সিরিজ সিরিজে জিতেছে। এরপর এশিয়া কাপের ফাইনালে হার, তারপর আবার ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৩-০ তে সিরিজ জয়।

সবমিলিয়ে একদিনের ফরম্যাটে টাইগারদের জন্য ভালো একটি মৌসুম গেছে। আসন্ন সিরিজেও তা ধরে রাখতে চান বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। উইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম একদিনের ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে পুরো বছরে ওয়ানডে ফরম্যাটে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স নিয়ে মাশরাফি বলেন, “এই বছর আমার কাছে মনে হয়, আমাদের পারফরম্যান্স অনেক ভালো। শুধু দুইটা ফাইনাল বাদে। একটা জিততে পারলে ভালো হতো। বিশেষ করে এশিয়া কাপ ফাইনাল। এই বছরের রেটিং খুব ভালো। তাই শেষটা ভালো করলে বছরটা ভালো যাবে।”

Also Read - বিসিএলে আশরাফুলের ব্যাটে রান


সর্বশেষ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের সব ম্যাচ জিতলেও কোনও ম্যাচে সফরকারীদের অলআউট করতে পারেনি বাংলাদেশ। এর কারণ ব্যাখ্যায় মাশরাফি বলেন, “হ্যা, জিম্বাবুয়েকে আমরা কোনও ম্যাচেই অলআউট করতে পারিনি। তবে ম্যাচ জেতার জন্য যা প্রয়োজন তা করতে পেরেছি। তবে আমরা কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছিলাম। যেমন রুবেল জিম্বাবুয়ে সিরিজে ছিল না। এশিয়া কাপে আমাদের সেরা বোলার ছিল সে, কিন্তু ছিল না। “

এদিকে ইনজুরি সঙ্গী করেই এশিয়া কাপে খেলেছিলেন মাশরাফি। দেশে ফিরে পুরোপুরি ফিট না হয়েই খেলেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজ। নিজের বর্তমান অবস্থা জানিয়ে মাশরাফি বলেন, “এশিয়া কাপ থেকেই কিছু ইনজুরি ছিল। এখন ভালোভাবে অনুশীলন করছি। আশা করছি, উইন্ডিজ সিরিজে সব ঠিক থাকবে।”

[আরও পড়ুনঃ মুখোশ পরে উদযাপন করা নিষিদ্ধ করলো আইসিসি]

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন


Related Articles

এনসিএলের প্রথম রাউন্ডে নেই এশিয়া কাপের বড় অংশ

“৪০% জরিমানা খেয়েছি, আর খাবার ইচ্ছে নেই”