ফাইনালে উঠার মিশনে ‘সমর্থন’ চাইলেন সাকিব

0
779

চলমান ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) আগামী ৬ অক্টোবর ফাইনালে উঠার মিশনে গায়ানা ওয়ারিয়ার্সের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ দলের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের দল বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস। কোয়ালিফায়ার ১ এর সেই ম্যাচের আগে আজ (শনিবার) সিপিএলের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে সমর্থকদের কাছে বাংলায় দো’আ আর সমর্থন চেয়েছেন সাকিব।

Advertisment

সিপিএলে এলিমিনেটর নিশ্চিত হয়েছিলো আগেই। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে আজ (৫ অক্টোবর) গায়ানা ওয়ারিয়ার্সের কাছে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স হেরে যাওয়াতে রান রেটে সুক্ষ্ম ব্যবধানে সেরা দুইয়ে থেকে কোয়ালিফায়ার পর্ব নিশ্চিত করেছে বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস। আগামীকাল তারা ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে মাঠে নামবে টেবিলের সেরা দল গায়ানার বিপক্ষে।

এই ম্যাচের আগে সিপিএলের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে টাইগার সমর্থকদের উদ্দেশ্যে এক ভিডিও বার্তায় সাকিব বলেন, ‘আশাকরি আপনারা সবাই আমাদেরকে সাপোর্ট করবেন, আপনারা যারা বাংলাদেশে আমাদের খেলা দেখছেন। অনেক গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ আমাদের জন্য। এবং আমি নিশ্চিত যে আপনারা আমাদেরকে পুরোপুরি সমর্থন দিবেন। এবং আমরা ভালো একটা রেজাল্ট করতে পারবো।

https://www.facebook.com/531409136874496/posts/3036777136337671/

 

প্রসঙ্গত, সিপিএলের চলতি মৌসুম শুরু হয়েছে গত ৫ সেপ্টেম্বর থেকে। যেখানে রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে চলা এই টুর্নামেন্টে এর মধ্যে শেষ দিকে এসে পৌঁছেছে। আসর শুরুর আগে ক্রিকেটার্স ড্রাফটে সাকিবের নাম না থাকলেও মাঝপথে এসে বাংলাদেশি এই অলরাউন্ডারকে দলে ভিড়িয়েছে টুর্নামেন্টির দল বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টেস।

বার্বাডোজের হয়ে তিন ম্যাচ মাঠে নেমে ভালোই আলো ছড়িয়েছেন সাকিব। যেখানে নিজের প্রথম ম্যাচে সেন্ট কিটসের কাছে নাটকীয়ভাবে ১ রানে ম্যাচ হারলেও ব্যাটে-বলে উজ্জ্বল ছিলেন টাইগার অলরাউন্ডার। ব্যাট হাতে খেলেছিলেন ২৫ বলে ৩৮ রানের ঝড়ো এক ইনিংস। বোলিংয়ে এসে ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ১৪ রান খরচায় নিয়েছিলেন ১ উইকেট।

দ্বিতীয় ম্যাচে সেন্ট লুসিয়ার বিপক্ষে অবশ্য ব্যাটিংয়ে খুব ভালো করতে পারেননি টাইগার অলরাউন্ডার। ফাওয়াদ আহমেদকে উইকেট দিয়ে আসার আগে ২০ বলে করেছিলেন ২১ রান। বল হাতে বরাবরের মত কৃপণ ছিলেন সাকিব, ২০ রানে তুলে নিয়েছিলেন কলিন ইনগ্রামের উইকেট।

নিজের তৃতীয় ম্যাচে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্ডের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৩ রান করলেও বোলিংয়ে ২৫ রান দিয়ে তুলে নিয়েছিলেন ২ উইকেট।