Scores

ফাইনালে পা রাখল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স

comilla-rangpur-bdcricteam
আজমল তানজীম সাকির

লড়াইটাকে বলা যেতে পারে বাঘে-সিংহে লড়াই। পয়েন্ট টেবিলের দুই সেরা দল। যারা জিতবে তারাই পা দিবে ফাইনালে। আর রংপুর রাইডার্সকে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করলো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

৭২ রানের বড় ব্যবধানের জয়ের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি অবদান রাখেন বোলাররা। রংপুর রাইডার্সকে কুমিল্লার বোলাররা আউট করে মাত্র ৯১ রানে। সিমন্স, নবী ও পেরেরা ছাড়া কাউকে দুই অঙ্কের ঘরে পৌছাতে দেয়নি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বোলাররা।

Also Read - ইমরুল-জাইদিতে কুমিল্লার ১৬৩


যদিও প্রথম দিকে বেশ সাবলীল ব্যাটিং করছিল রংপুর রাইডার্স। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের ছুঁড়ে দেয়া ১৬৪ রানের লক্ক্য তাড়া করতে নেমে সিমন্স ও সৌম্য সরকার উদ্বোধনী জুটিতে রান সংগ্রহ করেন ৩৬। আবু হায়দার রনির বলে শুভাগত হোম দুর্দান্ত এক ক্যাচ ধরলে ব্যক্তিগত ৯ রান করে বিদায় নেন সৌম্য। অপর প্রান্তে সিমন্স খেলছিলেন দাপট দেখিয়ে। কিন্তু পরের বলেই রনির বিধ্বংসী ইয়োর্কারে বোল্ড হন তিনি। ২০ বল মোকাবেলা করে দলীয় সর্বোচ্চ ২৫ রান করেন সিমন্স।

comilla-rangpur-bdcricteamতারপর রংপুর রাইডার্সের ব্যাটিং লাইন পরিণত হয় তাসের ঘরে। এক ওভারে জাইদি দুই উইকেট নিলে ম্যাচের পাল্লা কুমিল্লার জন্য। মিথুন স্টাম্পিং আর শূন্য রান করে সাকিব ক্যাচ আউট হন। জহুরুল আউট হন  ৯ রান করে। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকলে ম্যাচ রংপুর রাইডার্সের হাত থেকে বেরিয়ে আসতে থাকে। নবী ও পেরেরা প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করলেও তা ভেঙে যায় মাশরাফি-রনির কাছে। চোট নিয়ে বোলিং করে মাত্র ১৩ রানের বিনিময়ে ১ উইকেট শিকার করেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। আর ৪ টি করে উইকেট পান রনি ও জাইদি।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ১৬৩ রান করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। বল হাতে ৪ উইকেট পাওয়া জাইদি ব্যাট হাতেও ছিলেন অসাধারণ। ১৫ বলে মূল্যবান ৪০ রান করেন তিনি। ওপেনার কায়েস সর্বোচ্চ ৬৭ রান করেন। আরেক ওপেনার লিটন করেন ২৮। দুই ওপেনার মিলে দলকে ৭৯ রানের ভিত গড়ে দেন। থিসারা পেরেরার বোলিং তোপে পড়ে কিছুটা পথ হারিয়ে ফেলে কুমিল্লা। তবে শেষদিকে জাইদি ও শুভাগত হোমের ব্যাটে চড়ে ১৬২ রান করতে সক্ষম হয় ভিক্টোরিয়ান্স।

এ ম্যাচ জিতে কুমিল্লা জায়গা করে নিল ফাইনালে। অন্যদিকে রংপুর রাইডার্সকে অপেক্ষা করতে হবে আরও একটি ম্যাচ। আর সেটি তাদের জন্য বাঁচা-মরার লড়াই।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ১৬৩/৭
কায়েস ৬৭, জাইদি ৪০ (অপ.)
পেরেরা ২৬/৫, সজীব ১৯/১

রংপুর রাইডার্সঃ ৯১/১০ (১৭ ওভার )
সিমন্স ২৫, নবী ১২
জাইদি ১১/৪, রনি ১৯/৪

ম্যাচসেরাঃ আশার জাইদি

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে হাসপাতালে মাশরাফি

এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতলো ভারত

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

শঙ্কা কাটিয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলছেন মুস্তাফিজ

দুদকের শুভেচ্ছাদূত হলেন সাকিব