Scores

ফিরে দেখা: ২০০৭ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ

২০০৭ সালে তৃতীয় বারের মতো বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করে টাইগাররা। হাবিবুল বাশার সুমনের নেতৃত্বে নবীন একটি দল নিয়ে বিশ্বকাপে যায় বাংলাদেশ। দলটিতে অধিনায়ক বাশার, মোহাম্মদ আশরাফুল ও মোহাম্মদ রফিকের শুধু ষাটোর্ধ্ব ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা ছিল। সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবালরা তখন কেবল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে চলতে শুরু করেছিলেন। বিশ্বকাপের নবম আসরে মোট ৯টি ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ। যারমধ্যে ৩টি জয় আসে। ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার মতো শক্তিশালী দলকে পরাজিত করে বিশ্ব ক্রিকেটে রাজ করার আগমণী বার্তা দেয় মাশরাফি-সাকিবরা।

ভারতের বিপক্ষে বিজয় নিশ্চিতের পর মুশফিকের উদযাপন!

বিশ্বকাপের নবম আসর বলেছিল ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে। ১৭ মার্চ নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতের মুখোমুখি হয় টাইগাররা। মাশরাফি বিন মুর্তজা, আব্দুর রাজ্জাক ও মোহাম্মদ রফিকের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শক্তিশালী ভারতকে মাত্র ১৯১ রানে আটকে দিতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। জবাবে দ্রুত অর্ধশতক তুলে নেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। অর্ধশতক আসে সাকিব ও মুশফিকুর রহিমের ব্যাট থেকেও। চার মেরে দলের জয় নিশ্চিত করেছিলেন মুশফিক। ৩৮ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট শিকার করে ম্যাচ সেরা হন বর্তমান অধিনায়ক মাশরাফি।

নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে যায় টাইগাররা। তবে লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে বারমুডার বিপক্ষে ৭ উইকেটের বড় জয় বাংলাদেশের সুপার এইট নিশ্চিত হয়। বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে ২১ ওভারে ৯ উইকেটের বিনিময়ে ৯৪ রান সংগ্রহ করে বারমুডা। সাকিব ও আশরাফুলের ব্যাটে সহজেই এই মামুলি লক্ষ্য পেরিয়ে যায় বাংলাদেশ।

Also Read - শেষ ম্যাচেও পাকিস্তানের বড় পরাজয়


সুপার এইটে ইংল্যান্ড, উইন্ডিজ, আয়ারল্যান্ড, দক্ষিন আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয় হাবিবুল বাশারের দল। এই রাউন্ডে একটি মাত্র জয় পায় বাংলাদেশ। পরাশক্তি দক্ষিন আফ্রিকাকে ৬৭ রানের বিশাল ব্যবধানে পরাজিত করে। তবে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে হেরে যেয়ে অঘটনের জন্ম দেয় বাংলাদেশ।

গায়ানায় টস হেরে আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ পায় টাইগাররা। আশরাফুলের ৮৭ রানের ঝলমলে ইনিংসে ২৫১ রান সংগ্রহ করে করে তারা। জবাবে মাত্র ১৮৪ রানেই অলআউট হয়ে যায় প্রোটিয়ারা। তিন বাঁহাতি সাকিব, রফিক ও আব্দুর রাজ্জাক ৬টি উইকেট ভাগাভাগি করে নেন।

বিশ্বকাপের পরে অবসরের ঘোষণা দেন হাবিবুল বাশার ও মোহাম্মদ রফিক। বাশার বর্তমানে বাংলাদেশ জাতীয় দলের নির্বাচক হিসেবে দায়িত্বরত আছেন।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

বিশ্বকাপে মুশফিকের ভুল নিয়ে কথা বললেন ডমিঙ্গো

আবারো পর্যালোচনা করা হবে ফাইনালের সেই ওভারথ্রো

ইন্টারনেটে রেকর্ড গড়লো বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসর

নেতৃত্ব থেকে অব্যহতি দেয়া হচ্ছে ডু প্লেসিকে!

বিশ্বকাপের পারফরম্যান্সের রিপোর্ট এখনও পায়নি বিসিবি