ফুটবল ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিতে প্রশিক্ষণ নিবেন অ্যান্ডারসন

0
436

দীর্ঘদিন ধরে ইনজুরির সাথে লড়ছেন ইংল্যান্ড জাতীয় দলের ক্রিকেটার জেমস অ্যান্ডারসন। চোট কাটিয়ে আবার মাঠে ফেরার অপেক্ষায় ৩৭ বছর বয়সী এই পেসার। সেকারণেই এখন অনুশীলনে মনোযোগ দিচ্ছে অ্যান্ডারসন। যেখানে তাকে সাহায্য করতে এগিয়ে এসেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের অন্যতম সেরা ফুটবল ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটি।

Advertisment

ঘরের মাঠে সদ্য সমাপ্ত অ্যাশেজ খেলতে নেমে প্রথম ম্যাচের প্রথম ইনিংসে মোটে ৪ ওভার বল করার পর মাংসপেশিতে টান পেয়ে মাঠ ছাড়েন অ্যান্ডারসন। এরপর পুরো সিরিজটাই থাকতে হয়েছে দর্শক হয়ে। সেই চোট এখনো পুরোপুরি কাটিয়ে উঠতে পারেননি ইংল্যান্ডের হয়ে টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ উইকেটের মালিক। সেকারণে জায়গা হারিয়েছেন আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরের দলে।

বয়সের কাটা ৩৭ এর ঘর পার করলেও এখনো ইংল্যান্ডের জার্সিতে নিজের খেলার মত যোগ্য মনে করছেন অ্যান্ডারসন। আবার বাইশ গজে ফিরতে মরিয়া তিনি। আগামী ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর দিয়ে আবার ইংল্যান্ড টেস্ট দলে ফিরতে চান অ্যান্ডারসন। যার জন্য শুরু করে দিয়েছেন কঠোর অনুশীলন।

ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফো জানিয়েছে, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দল ম্যানচেস্টার সিটির মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে প্রশিক্ষণ নেবেন অ্যান্ডারসন। যেখানে অনুশীলন চলাকালীন দুই মাস ক্লাবটির পক্ষ থেকে যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা পাবেন অ্যান্ডারসন। একই সাথে ক্লাবটির ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের প্রধান স্যাম এরিথ বিশেষভাবে দেখভাল করবেন অ্যান্ডারসনকে।

এই বয়সে একজন পেসার হিসেবে ক্রিকেট খেলে যাওয়ার অনুপ্রেরণা হিসাবে ফুটবলার রায়ান গিগসের উদাহরণ টেনে অ্যান্ডারসন জানিয়েছেন, ‘অ্যাশেজ খেলতে না পারাটা আমার জন্য হতাশার। তবে আমি এক সেকেন্ডের জন্যও অবসর নিয়ে ভাবিনি। রায়ান গিগস যেভাবে ফুটবলের সর্বোচ্চ পর্যায়ে ৪০ বছর বয়স পর্যন্ত খেলে গেছেন, সেটা আমি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করতে যাচ্ছি। আমিও এমন কিছু করতে চাই।’

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।