Scores

বল হাতে আশরাফুল ঝলক, দাপুটে জয় মোহামেডানের

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আজকে আগে ব্যাটিং করে রকিবুল হাসানের শতকে ২৯৬ রান সংগ্রহ করে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। জবাবে ৯ উইকেটে ১৫০ রান সংগ্রহ করা প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব বৃষ্টি আইনে ম্যাচ হারে ১৩৩ রানে।

নিউজিল্যান্ডে ভাল করার উপায় বাতলে দিলেন আশরাফুল

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা মোহামেডানে দলীয় রান শতক পেরোনোর আগেই ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে দলটি। ওপেনার ইরফান শুক্কুর প্রথমেই ফিরলেও ৩৬ রান করে ফেরেন লিটন দাস। দলে ফেরা মোহাম্মদ আশরাফুল করেন ১৪ বলে ৪ রান।

Also Read - একসাথে অনুশীলন করলেন মাহমুদউল্লাহ-তাসকিন


ষষ্ঠ উইকেটে ১৪৬ রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় সামাল দেন রজত ভাটিয়া ও রকিবুল হাসান। ভাটিয়া করেন ৬০ বলে ৬৬ রান। তার ইনিংসে ছিল ৪টি চার ও ৩টি ছয়। রকিবুলের ব্যাট থেকে আসে ১০৪ বলে ১০২ রান। তার ইনিংসে ছিল ১১টি চার ও ১টি ছয়।

শেষের দিকে ২ চার ও ৩ ছয়ে সোহাগ গাজী ১৪ বলে ৩৩ রান করেন। নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ২৯৬ রানের বড় সংগ্রহ পায় মোহামেডান। প্রাইম ব্যাংকের মনির হোসেন, নাইম হাসান, আল আমিন হোসেন ও আব্দুর রাজ্জাক ২টি করে উইকেট নেন।
জবাবে শুরু থেকেই উইকেট হারাতে থাকে প্রাইম ব্যাংক। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৮ রান করেন নাহিদুল ইসলাম। অধিনায়ক এনামুল হক বিজয় করেন ২৬ রান। ভারতীয় ক্রিকেটার অভিমন্যু ঈশ্বরনের ব্যাট থেকে আসে ২২ রান। আর কোনো ব্যাটসম্যানের ২০ রানের কোটা পেরোতে পারেনি।

ব্যাটিংয়ের পর বোলিংয়েও আলো ছড়িয়েছেন সোহাগ গাজী। ডানহাতি ঘূর্ণিতে ২৫ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট নেন তিনি। আরেক স্পিনার নাসুম আহমেদ নেন ২ উইকেট।

৩৯.১ ওভারে বৃষ্টি নামলে আর মাঠে গড়ায়নি খেলা। ফলে ১৩৩ রানের জয় পায় মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

মোহামেডান: ২৯৬/৯ (রকিবুল ১০২, ভাটিয়া ৬৬, লিটন ৩৬, গাজী ৩৩, অভিষেক ২০; মনির ২/৩৭, নাইম ২/৫৩, আল আমিন ২/৫৪, রাজ্জাক ২/৬৫)

প্রাইম ব্যাংক: ১৫০/৯ (নাহিদুল ২৮, বিজয় ২৬, ঈশ্বরন ২২, মিলন ১৯, নাইম ১৮, কাপালি ১৫, আরিফুল ১২; গাজী ৪/২১, আশরাফুল ৩/৩৭)

ফল: ১৩৩ রানে জয়ী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

‘লোভের বশে’, ‘লুকিয়ে’ ডিপিএল খেলেছেন সাইফউদ্দিন!

উপেক্ষিত থাকছেন না ডিপিএলের পারফর্মাররা

সৌম্যকে যেভাবে সাহায্য করেছেন জাফর

ওয়াসিম জাফরের পরামর্শ কাজে লাগানোর প্রত্যাশা

তাণ্ডবের আগে ‘নার্ভাস’ ছিলেন সৌম্য