Score

বাংলাদেশকে হালকাভাবে নিচ্ছে না ভারত

এশিয়া কাপের ফাইনালে দুই দল এর আগে মুখোমুখি হয়েছে একবার, সেটিও গত আসরে। একপেশে ঐ ম্যাচে অবশ্য জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছিল ভারত। এবার ফরম্যাট ভিন্ন, যে ফরম্যাটে আবার ভালো খেলে বাংলাদেশ। তাছাড়া আহত বাঘের মত তেড়েফুঁড়ে আসা বাংলাদেশের ভয়ঙ্কর রুপ এবার প্রতিপক্ষের মনে কাঁপন ধরাতে যথেষ্ট। সব মিলিয়েই হয়ত ভারতের সহজ কথা- বাংলাদেশকে হালকাভাবে নিচ্ছি না!

বাংলাদেশকে হালকাভাবে নিচ্ছে না ভারত

এশিয়া কাপের ফাইনাল ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে ভারতের হয়ে আসা শিখর ধাওয়ান বারবার বোঝাতে চাইলেন সেটিই। শক্তি-সামর্থ্য, ইতিহাস কিংবা পরিসংখ্যানের বিচারে ভারতই এই ম্যাচের ফেভারিট। কিন্তু যেকোনো দলকে হারিয়ে দেওয়ার বাংলাদেশের যে অলৌকিক ক্ষমতা, সেটি তো অগ্রাহ্য করার কোনো সুযোগ নেই। বিশেষ করে ভারতের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠার পর বাংলাদেশের বিপক্ষে বাজি ধরা তো নয় চাট্টিখানি কথা! আর তাই স্বাভাবিকভাবেই বাংলাদেশকে হালকাভাবে নিচ্ছে না ভারত।

ধাওয়ান বলেন, আমরা বাংলাদেশকে কোনোভাবেই হালকা করে দেখি নাকারণ পাকিস্তান ক্রিকেটের একটি বড় দল আর সে দলকে বাংলাদেশ হারিয়েই এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলছেকাগজ-কলমের হিসাব আর মাঠের খেলার পার্থক্য অনেকসুতরাং মাঠের লড়াইয়ে একটি নির্দিষ্ট দিনে যে দল ভালো খেলবে, তারাই বড় দল হিসেবে পরিচিত হবে

Also Read - তামিমই এশিয়া কাপ জিতিয়ে গেছেন মাশরাফিকে!

ধাওয়ানের মতে, বাংলাদেশের কোচিং স্টাফ বেশ অভিজ্ঞ এবং অভিজ্ঞ দলের ক্রিকেটাররাও। এ সময় তিনি প্রশংসা করেন বাংলাদেশের সাম্প্রতিক চাপ জয়ের বিষয়টিও। বড় দলের বিপক্ষে ভালো খেলা টাইগারদের জন্য এখন আর কঠিন কিছু নয়- এমনটাই ইঙ্গিত করে ধাওয়ান বলেন, আপনারা সবাই জানেন তাদের কোচিং স্টাফ খুবই অভিজ্ঞ এবং তারা বেশ ধারাবাহিক ক্রিকেটই খেলছেএশিয়া কাপের ফাইনালে খেলছে তারাতাদের দলে বেশ কয়েকজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার আছেনতারা সবাই জানে পরিকল্পনা ও কৌশল অনুযায়ী কীভাবে খেলতে হয়চাপের মুখেও ভালো খেলতে পারে। তারা জানে বড় দলের বিপক্ষে কীভাবে খেলতে হয়

কাগজে-কলমে ভারতের অভিজ্ঞতা বেশি থাকলেও ১৮ বছর ধরে টেস্ট খেলে আসা বাংলাদেশের অভিজ্ঞতাও কম নয়, সেটি মানছেন ভারতীয় ওপেনারও। টাইগারদের বিপক্ষে জয় ভিন্ন কোনো কিছু ধাওয়ানের ভাবনায়ই আসার কথা না, স্বভাবতই। তবে বাংলাদেশ খুব শীঘ্রই যে ট্রফি জেতার পূর্ণ যোগ্যতা অর্জন করে নিবে, জানালেন সেটিও। সেই সাথে হয়ত একটু শোনালেন চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ব্যাপারে নিজেদের আত্মবিশ্বাসও!

বাংলাদেশ গত ১৮ বছর ধরে টেস্ট খেলছেতাদের ট্রফি জিততে হয়তো সময় লাগবেঅনেক সময় অনেক দলেরই একটা শিরোপা জিততে অনেক সময় লেগে যায়আমি ব্যাপারটা দুইভাবে দেখি, আমি অবশ্যই চাইব কাল এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারত বাংলাদেশকে হারাককিন্তু আমি বিশ্বাস করি আমরা খুব শিগগিরই দেখব বাংলাদেশ ট্রফি জেতা-না জেতার সূক্ষ্ম বিভক্তি রেখাটা পেরিয়ে আসবে

ফাইনালের মত বড় ম্যাচে ভারতের দলে থাকছেন না বিরাট কোহলি। নিয়মিত অধিনায়ক ছিলেন না পুরো আসর জুড়েই। কোহলির অনুপস্থিতি, সেই সাথে আরব আমিরাতের আবহাওয়া কিংবা নিজের উপর ঢাকা সহকারী অধিনায়কের চাপ, এসবের কোনোটিই দলের কিংবা খেলার উপর কোনো প্রভাব ফেলবে না বলেই মনে করেন ধাওয়ান, বিরাট না থাকলেও, আমাদের মনোভাব একইরকম আছেআমরা ইংল্যান্ডে ভালোভাবে অনুশীলন করেছিতাই আমরা এখন অনেক ফিটদলের সংস্কৃতি বদলে গেছেআমি উত্তর ভারতের ছেলেতাই গরমে খেলতে অভ্যস্তআমার উপরে সহ-অধিনায়কত্বের চাপ নেই

ভারত-পাকিস্তান ফাইনাল হয়নি, যা ছিল অনেক ক্রিকেটবোদ্ধার আকাঙ্ক্ষিত। তবুও ফাইনালে ভারত নিজেদের সেরা পারফরম্যান্স প্রদর্শনের চেষ্টা করবে জানিয়ে সাংবাদিকদের তিনি আরও বলেন, ফাইনালে আমরা আমাদের সর্বোচ্চটা দেয়ার চেষ্টা করবোটুর্নামেন্টের প্রতিটি দল শক্তিশালীঅনেকেই ভেবেছিল ভারত-পাকিস্তান ফাইনাল হবেকিন্তু দারুণ একটি ম্যাচ জিতে তারা এখানে এসেছেআমরা বাংলাদেশকে সহজভাবে নিতে পারছি না

আরও পড়ুন: প্রথম শিরোপা না তৃতীয় স্বপ্নভঙ্গ?

Related Articles

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’

এক নয় মাশরাফির তিন ইনজুরি