Scores

বাংলাদেশি স্পিনারদের ‘স্কিল’ দেখে মুগ্ধ ভেট্টোরি

১০০ দিনের চুক্তিতে বাংলাদেশ দলের স্পিন বোলিং কোচ হয়ে এসেছেন ড্যানিয়েল ভেট্টোরি। তবে সম্প্রতি তার কাজের ধরণ বদলেছে। জাতীয় দলের পাশাপাশি কাজ করতে হচ্ছে পাইপলাইনের বোলারদের নিয়েও। যেখানে বাংলাদেশ ক্রিকেটের স্পিন শক্তি দেখে নিজেকে ‘ভাগ্যবান’ মানছেন ভেট্টোরি।

বিপ্লবদের সাথে আজ অনুশীলনে ভেট্টরি
বিপ্লবদের সাথে আজ অনুশীলনে ভেট্টোরি।

 

Also Read - র‍্যাঙ্কিংয়ে এগোলেন নাঈম-মুমিনুল-মুশফিকরা


গত বছর ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের পর জাতীয় দলের কোচিং স্টাফে বেশ বড়সড় বদল এনেছে বিসিবি। স্পিন বোলিং কোচের চেয়ারে বসানো হয়েছে নিউজিল্যান্ডের কিংবদন্তি এ ক্রিকেটারকে। তবে একনাগাড়ে ১০০ দিন কাজ না করে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত কয়েক ধাপে জাতীয় দলের স্পিনারদের নিয়ে কাজ করার কথা ছিল তার।

তবে সম্প্রতি ভেট্টোরির সাথে করা চুক্তিতে কিছুটা পরিবর্তন এনেছে টাইগার ক্রিকেট বোর্ড। জাতীয় দলের খেলা না থাকলে পাইপলাইনের স্পিনারদের নিয়ে কাজ করবেন কিউইদের সাবেক এ অধিনায়ক। তারই অংশ হিসেবে বাংলাদেশ দলের স্পিন ভবিষ্যতটাও দেখা হচ্ছে ভেট্টোরির।

যা দেখে রীতিমত মুগ্ধ তিনি। এমন স্পিনারদের সাথে কাজ করতে পেরে নিজেকে ভাগ্যবান বলছেন ভেট্টোরি, বাংলাদেশ দলে যেসব তরুণ স্পিনার আসছে তাদের সম্পর্কে ধারণা হচ্ছে। অনূর্ধ্ব-১৯ দলে থাকা কয়েকজনের খেলা টিভিতে দেখেছি। শুধু আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার না, উঠতি স্পিনারদের সঙ্গেও নেটে আলাপ হচ্ছে। তারা খুবই অভিজ্ঞ; ওহ দুঃখিত তারা খুবই স্কিলড।’

‘তাদের স্কিল লেভেল দেখাটা প্রশান্তির। আপনি নাঈম হাসানকে দেখতে পারেন। ২ বছর আগে সে অনূর্ধ্ব-১৯ দলে ছিল। এই সময়ে সে নিজেকে কতটা তৈরি করেছে। কতটা স্কিলফুল সে। আমি খুবই ভাগ্যবান এমন ভালো মানের স্পিনারদের সঙ্গে কাজ করতে পারছি। যত দিন যাবে তারা তত অভিজ্ঞ হবে।’ সাথে যোগ করেন তিনি।

নেটে অনুশীলনে আজ তরুণ তিন বোলারকে পেয়েছিলেন ভেট্টোরি। লেগ স্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লবের পাশাপাশি তার ক্লাসে উপস্থিত ছিলেন সদ্য সমাপ্ত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য হাসান মুরাদ এবং ঘরোয়া ক্রিকেটের পরিচিত ক্রিকেটার তানভীর ইসলাম। বাঁহাতি এ দুই স্পিনারকে কেমন দেখলেন?

এমন প্রশ্নের জবাবে ভেট্টোরি জানান, ‘তারা বেশ ভালো বল করে। যদিও নেটে বল করা আর ম্যাচে বল করাটা ভিন্ন। নেটে তাদের সঙ্গে কাজ করে তাদেরকে মাঠে খেলতে দেখাটা গুরুত্বপূর্ণ। এই মুহূর্তে আমার উদ্দেশ্য তাদের স্কিল ও শক্তির জায়গা দেখা।’

তরুণ এ স্পিনারদের ভালো করার সম্ভাবনা কতটুকু সেটাও জানিয়েছেন ভেট্টোরি, ‘একশ শতাংশ। তারা তরুণ, স্পিনাররা নিজেদের কাজটা বুঝতে পারে তাদের বয়স যত বাড়ে তত। নাঈমের মতো অনেকে অবশ্য আছে যারা অল্প বয়সেই ভালো করে। মিরাজও বেশ তরুণ। তারা সবাইই খুব ট্যালেন্টেড। এবং তারা কেবল ভালোই করতে পারে।’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

বিসিবির কর্মচারীদের ‘৪ লাখ’ টাকা দিলেন ভেট্টোরি

বাংলাদেশকেই বেছে নেওয়ার কারণ জানালেন ভেট্টোরি

বিসিবি কর্মীদের সাহায্যে হাত বাড়ালেন ভেট্টোরি

কোচদের বেতন কাটার কথা ভাবছে বিসিবি

করোনায় কপাল পুড়ছে ভেট্টোরির!