বাংলাদেশের কাছে হেরে অস্ট্রেলিয়ার অবনমন

0
8274

বাংলাদেশ সফরে আসার আগে অস্ট্রেলিয়ার মাথাব্যথা যা ছিল এখানকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েই। তবে সফরে আসার পর স্মিথ-ওয়ার্নার-ম্যাক্সওয়েলরা বুঝতে পারেন, নিরাপত্তা নিয়ে কোনো সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা এখানে নেই। তবে বাংলাদেশ সফরকারীদের মাঠের বাইরের নিরাপত্তা দিতে পারলেও মাঠের ভেতরে দেয়নি এতটুকু ছাড়। আর তাই ঢাকা টেস্টে অপ্রত্যাশিতভাবে হেরে পরাজিতের বেশে মাঠ ছেড়েছে অজিরা।

Advertisment

হারের পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট শুনেছে আরেক্তি দুঃসংবাদ- সেটি র‍্যাংকিংয়ে অবনমনের। বাংলাদেশ সফরে অস্ট্রেলিয়া এসেছিল আইসিসি টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের চারে থেকে। বাংলাদেশের বিপক্ষে হারার কথা ঘুণাক্ষরেও মাথায় ছিল না অজিদের, তাই ছিল না র‍্যাংকিং নিয়ে মাথাব্যথাও। তবে ঢাকা টেস্টে ২০ রানে হেরে যাওয়ার রেটিংয়ের হিসেবনিকেশে ৩ পয়েন্ট কমে গেছে বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের। এতে চতুর্থ স্থান খুইয়ে স্টিভ স্মিথের দল এখন অবস্থান করছে আইসিসি টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের পাঁচে।

অস্ট্রেলিয়া পাঁচে চলে যাওয়ায় র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি ঘটেছে অজিদের পার্শ্ববর্তী দেশ নিউজিল্যান্ডের। দুই দেশেরই রেটিং পয়েন্ট বর্তমানে সমান- ৯৭ করে। তবে ভগ্নাংশের হিসেবে কিউইরা অজিদের চেয়ে একটু বেশি পয়েন্টের অধিকারী। যে কারণে অস্ট্রেলিয়াকে পাঁচে ঠেলে সর্বশেষ বিশ্বকাপের রানার্সআপ দল উঠে এসেছে টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের চারে।

এদিকে অস্ট্রেলিয়ার রেটিং ১০০ থেকে ৯৭ হয়ে গেলেও বেড়েছে ঢাকা টেস্টের জয়ী বাংলাদেশের রেটিং। ৬৯ থেকে বেড়ে বাংলাদেশের পয়েন্ট এখন ৭৩- অর্থাৎ বেড়েছে ৪ পয়েন্ট। মুশফিকরা অস্ট্রেলিয়া-বধের ঠিক আগের দিন ইংল্যান্ডকে হারিয়ে বসে আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, তা না হলে মুশফিকের দল উঠে যেত টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের অষ্টম স্থানে।

অবশ্য বাংলাদেশের আটে উঠে আসার সম্ভাবনা রয়েছে এখনও। সিরিজের শেষ ম্যাচে, অর্থাৎ চট্টগ্রাম টেস্টে অজিদের হারিয়ে স্বপ্নের ২-০ ব্যবধানের সিরিজ জয় নিশ্চিত করতে পারলে মুশফিকের দল উঠে আসতে পারে ৮-এ। সেক্ষেত্রে তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের শেষ ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ড অবশ্যই সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজকে পরাভূত করতে হবে।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম