Score

বাংলাদেশের দুর্বলতা জানেন হাথুরুসিংহে!

এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা। বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে দলের হেড কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহই বড় শক্তি শ্রীলঙ্কার জন্য বললেন লঙ্কান ব্যাটসম্যান ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। বাংলাদেশ দলের সাবেক কোচ হওয়াতে তাদের সম্পর্কে ভালোই ধারণা আছে হাথুরুর।

বাংলাদেশের দুর্বলতা জানেন হাথুরুসিংহে!

২০১৪ সালে বাংলাদেশ দলের হেড কোচ দায়িত্ব পান হাথুরুসিংহে। তারপর থেকেই বাংলাদেশ দলের চেহারাই পরিবর্তন হয়ে যায়। তার অধীনে পেয়েছে অনেক সফলতা। দীর্ঘ ৩ বছর দলের সঙ্গে কাজ করার পর ২০১৭ তে দলের কোচের পদ থেকে পদত্যাগ করেন হাথুরুসিংহে। তারপরেই দায়িত্ব নেন নিজ দেশ, শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের।

শ্রীলঙ্কা দলের দায়িত্ব নেওয়ার পর হাথুরুর প্রথম সফর ছিল বাংলাদেশ সফর। অবশ্য সে সফরে সফলও হন তিনি। বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা-জিম্বাবুয়ে সম্মিলিত ত্রিদেশীয় সিরিজের ট্রফি ঘরে তুলেন তিনি। ঘরের মাঠে বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ হারলেও দ্বিতীয় ও তৃতীয়টিতে জয় পায় হাথুরু। শুধু ত্রিদেশীয় সিরিজিই নয় জয় পায় বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজেও।

Also Read - বাংলাদেশ সফরের জন্য জিম্বাবুয়ের স্কোয়াড ঘোষণা

সেবার বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের শক্তি ও দুর্বলতার জায়গায়টা ঠিকই জানতেন হাথুরুসিংহে। যার কারণে পেয়েছেন সাফল্যও। শনিবার এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে আবারো মুখোমুখি হতে যাচ্ছে এই দুই দলের। নিজের পুরনো শীর্ষদের বিপক্ষে যে জানা দুর্বলতা গুলো কাজে লাগাবেননা সেটিও নয়। হাথুরুর এই পূর্ব অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চান লঙ্কান ব্যাটসম্যান ডি সিলভা। দুবাইয়ে আইসিসির একাডেমী মাঠে অনুশীলনের সময় মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলার সময় এমনটি জানান তিনি।

“এটা আমাদের জন্য শক্তির জায়গা। তার (হাথুরুসিংহে) বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান ও বোলারদের দুর্বলতা সম্পর্কে ভালো আইডিয়া আছে। আমি মনে করি, এখান থেকে ইতিবাচক দিকগুলো তুলে নেওয়ার সুযোগ রয়েছে আমাদের।”

এশিয়া কাপের আগেই ইনজুরির কারণে ছিটকে গিয়েছেন চান্দিমাল। তবে চান্দিমালের বাদ পড়া যেমন তাদের ব্যাটিং লাইনআপে বড় ধাক্কা তেমনি বোলিং অ্যাটাকে মালিঙ্গার অন্তর্ভুক্তি বড় ব্যাপার শ্রীলঙ্কার জন্য। তরুণ দল নিয়ে এশিয়া কাপে ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদী ধনঞ্জয়া।

“এটা আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। দলে বেশ কয়েকজন তরুণ ক্রিকেটার রয়েছে। আমারা আমাদের স্বাভাবিক খেলাটাই, খেলার চেষ্টা করবো। গত সপ্তাহে সাঙ্গাকারার সঙ্গে আমাদের বৈঠক হয়েছে। সেখানে পরিবেশের সঙ্গে কীভাবে মানিয়ে নিতে হবে সে ব্যাপারে পরামর্শ দিয়েছেন আমাদের।”

আরও পড়ুনঃ বাংলাদেশ সফরের জন্য জিম্বাবুয়ের স্কোয়াড ঘোষণা

Related Articles

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’

এক নয় মাশরাফির তিন ইনজুরি