Scores

বাংলাদেশের সেরা ‘৩’ টেস্ট জয়

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের কারণে সকল ধরনের ক্রিকেট আপাতত বন্ধ। আইসিসি তাদের বিভিন্ন বাছাইপর্বের খেলা আগামী জুন মাস পর্যন্ত বন্ধ রেখেছে। লম্বা সময় ক্রিকেট ভক্তদের জন্য থাকছেনা কোনো ক্রিকেট। এই বিরতিতে তাই চলুন জেনে নেওয়া যাক বাংলাদেশ ক্রিকেটের স্মরনীয় কিছু ম্যাচ ও খেলোয়াড়দের কিছু ব্যক্তিগত সাফল্য-ব্যর্থতার গল্প। সেই ধারাবাহিকতায় আজকের আলোচনা বাংলাদেশের সেরা টেস্ট জয় নিয়ে।


ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঐতিহাসিক টেস্ট জয়ের পর বাংলাদেশ দলের উদযাপন
ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঐতিহাসিক টেস্ট জয়ের পর বাংলাদেশ দলের উদযাপন। ছবি : এএফপি

 

Also Read - নগদের সিদ্ধান্তকে মাশরাফির 'স্যালুট'


বাংলাদেশ ২০ বছরে টেস্টে খুব বেশি জয় পায়নি। তবে যেই জয়গুলো পেয়েছে তার মধ্যে সেরা জয় কোনটি? এই প্রশ্ন অনেকের মনেই উঠে। নানান জনের নানান মত। তবে প্রতিপক্ষ বিবেচনায় ৩টি জয় সবচেয়ে এগিয়ে আপাতত। সেই তিন জয়ের একটিই হয়তো দর্শকদের বেশি ভোট পাবে বাংলাদেশের সেরা টেস্ট জয় হিসেবে।

বাংলাদেশের সেরা টেস্ট জয়ের কথা বলতে গেলে প্রথমেই আলোচনায় উঠে আসে ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের কথা। মিরপুরে প্রথমে ব্যাট করে কঠিন পিচে তামিমের শতকে বাংলাদেশ করে ২২০ রান। ইংল্যান্ড অবশ্য প্রথম ইনিংসে লিড পায়।

তবে মেহেদি মিরাজের ৬ উইকেটে সেই লিডটা ২৪ রানের বেশি হয়নি। বাংলাদেশ নিজেদের ২য় ইনিংসে ইমরুল কায়েসের ৭৮ ও বাকিদের ছোট ছোট ইনিংসে ২৯৬ রান সংগ্রহ করে। ২৭৩ রানের পিছে ছুটতে গিয়ে একসময় ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ছিলো বিনা উইকেটে ১০০।

সেখান থেকে শেষ বিকেলে মিরাজ ও সাকিবের ঘূর্ণিতে বাংলাদেশ টেস্ট জিতে যায়। মিরাজ আবারো নেন ৬ উইকেট। জিতেন ম্যাচ ও সিরিজ সেরার পুরস্কার।

এই টেস্টের সাথেই মনে আসবে পরবর্তীতে ২০১৭ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে কলম্বো টেস্টের কথা। শততম টেস্টের আগে বাংলাদেশ বেশ চাপে ছিলো ১ম টেস্ট বাজেভাবে হারায়। তবে এই টেস্টে সকল সমালোচনার জবাব দেয় বাংলাদেশ।

আগে ব্যাট করে প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ছিলো ৩৩৮। বাংলাদেশ তাদের নিজেদের প্রথম ইনিংসে এক পর্যায়ে ১৯৮ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে। সেখান থেকে সাকিবের শতক ও সৈকত মুশফিকের দাপুটে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ৪৬৭ রান। নিজেদের ২য় ইনিংসে সাকিব ও ফিজের বোলিং দাপটে শ্রীলঙ্কা ৩৩১ রানের বেশি করতে পারেনি।

শেষ ইনিংসে ১৯১ রানের টার্গেট তাড়া করতে গিয়ে শুরুতেই বিপদে পরে বাংলাদেশ। তবে তামিম ইকবালের সাহসী ৮২ রানের সুবাদে দেশের বাইরে প্রথম কোনো শক্তিশালী দলের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম টেস্ট জয় করে বাংলাদেশ। তামিম হন ম্যাচ সেরা, সাকিব সিরিজ সেরা।

এই দুই টেস্টের সাথে যেই টেস্ট আলোচনায় আসতে পারে সেটি হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২০১৭ সালের মিরপুর টেস্ট। ঢাকায় প্রথমে ব্যাট করতে নেমে অস্ট্রেলিয়ার পেস ঝড়ে উড়ে যায় বাংলাদেশের টপ অর্ডার। তবে তামিম সাকিবের দাপটে বাংলাদেশ পায় ২৬০ রানের সংগ্রহ। তামিম করেন ৭১ ও সাকিব ৮৪। সাকিবের ৫ উইকেটে অস্ট্রেলিয়া প্রথমম ইনিংসে ২১৭ রানেই আটকে যায়।

দ্বিতীয়  ইনিংসে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ২২১, তামিম করেন দলীয় সর্বোচ্চ ৭৮। শেষ ইনিংসে ওয়ার্নারের শতকের পরও অস্ট্রেলিয়া ২৪৪ রানে অলআউট হয়ে যায়। আবারো ৫ উইকেট নিয়ে সাকিব হন ম্যাচ সেরা।

মূলত এই ৩টি টেস্টই আলোচনায় আসে বাংলাদেশের সেরা টেস্ট জয়ের কথা উঠলে। এর বাইরে কিছু টেস্টের কথা উঠতে পারে। তবে পছন্দভেদে বেশিরভাগ দর্শকেরই ভোট হয়তো পাবে এই তিনটির একটি।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

শনিবার থেকে অনুশীলন, কোয়ারেন্টিন শেষে ফিরবেন তামিম

দেশে ফিরেছেন তামিম

ছোটবেলা থেকে পাইলটকে অনুসরণ করতেন সাব্বির

চিকিৎসার জন্য ইংল্যান্ড গেলেন তামিম

চিকিৎসার জন্য ইংল্যান্ড যাচ্ছেন তামিম