বাংলাদেশে এসে গরমে কাহিল অস্ট্রেলিয়া

ম্যাচ তখন এক চতুর্থাংশও মাঠে গড়ায়নি। ব্যাট হাতে ক্রিজে থাকা সাকিব আল হাসানের জার্সি ভিজে জুবজুবে। পরবর্তীতে এমন বেসামাল ঘাম দেখা গেল অস্ট্রেলিয়ানদের শরীরেও।

বাংলাদেশে এসে গরমে কাহিল অস্ট্রেলিয়া

Advertisment

অ্যান্ড্রু টাই তো বোলিং করার সময় মাঠে বমিও উগড়ে দিলেন! ম্যাচের শেষ প্রান্ত পর্যন্ত মিচেল স্টার্কদের দেখে বোঝা গেছে, কতটা ভুগতে হচ্ছে তাদের। তাতে বাংলাদেশের স্পিনের ভূমিকা তো আছেই, ভূমিকা আছে গরমেরও।

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়াকে কাহিল বানিয়ে ফেলেছিল ঢাকার গরম আর আর্দ্রতা। দ্রুত সিরিজ শেষ করে চলে যাওয়ার জন্য অজিদের শর্ত মেনেই ৫টি ম্যাচ রাখা হয়েছে মাত্র ৭ দিনের মধ্যে। নিজেদের তৈরি করা ‘ফাঁদ’ নিজেদের জন্যই হয়ত অসুবিধার কারণ হচ্ছে। বাংলাদেশের কাছে হারের গ্লানি নিয়ে এই তপ্ত আবহাওয়ায় অস্ট্রেলিয়া আবারও মাঠে নামবে ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ের ব্যবধানে।

টাই যখন মাঠে বমি করছিলেন, তখন অনেকেই শঙ্কিত হয়ে পড়েন। করোনার ভয়ে এমনিতেই তটস্থ দলটি। পরবর্তীতে জানা যায়, গরমের কারণেই রানআপের সময় ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলেন টাই। অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটারদের শরীরী ভাষাই বলে দিচ্ছিল, ঢাকার গরম খাপ খাওয়াতে রীতিমত নাভিশ্বাস ওঠার জোগাড় তাদের।

৪৫ বলে সংগ্রাম করে ৪৫ রান করা মিচেল মার্শ ম্যাচ শেষে স্বীকার করেন, গরম আর আর্দ্রতায় খেলা চালিয়ে যাওয়া কঠিন ছিল। এমনকি অজিদের হারানোর নায়ক বাংলাদেশের স্পিনার নাসুম আহমেদও জানান, গরমে ঘেমেনেয়ে একাকার অবস্থা ভোগাচ্ছিল স্বাগতিকদেরও।

বাংলাদেশের গরম অবশ্য অজিদের বিশ্বকাপ প্রস্তুতিতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারে। আরব আমিরাতে বিশ্বকাপের ম্যাচগুলোতে বাংলাদেশের চেয়েও অস্বস্তিকর গরম সইতে হতে পারে ওয়েড-স্টার্কদের।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।