Scores

বাছাইপর্বে খেলতে হবে না বাংলাদেশকে

ICC

বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের উত্থান দেখে অবশেষে সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের চিন্তা করছে আইসিসি। ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দল সংখ্যা বাড়ানোর চিন্তা করছে আইসিসি। এখন থেকে ওয়ানডে বিশ্বকাপের মতো প্রতি চার বছর পরপর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসবে। যা এতদিন হতো দুইবছর পর পর।

আসলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট কোনো নীতিমালা অনুসরণ করেনি আইসিসি। ২০০৯ এবং ২০১০ সালে পরপর দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজন করেছিল। বিশ্বকাপের মত বড় মঞ্চে এরকম ঘটনার আর পুনরাবৃত্তি হবেনা বলেও জানায় আইসিসি। ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসবে অস্ট্রেলিয়া। ঐ আসর হবে আরো চমকপ্রদ আসর।

Also Read - আইসিসির বিশ্বকাপ সেরা দলে মুস্তাফিজ


আইসিসি জানিয়েছে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ধরনে আসছে বড় রকমের পরিবর্তন। সুপার টেনের বদলে কোয়ার্টার ফাইনাল থাকবে সেখানে। প্রথম পর্বের জায়গায় তখন হবে গ্রুপ পর্ব। ১০ দলের জায়গায় ২০২০ সালে ১৬টি দল চারটি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে লড়বে। প্রতিটি গ্রুপ থেকে দুটি করে দল উঠবে কোয়ার্টার ফাইনালে। আর সব থেকে বড় কথা হলো এবারকার মত আর বাছাইপর্ব খেলতে হবেনা বাংলাদেশকে।

২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবে দশটি টেস্ট খেলুড়ে দেশ। এ নিয়ে আইসিসির অনেক সমালোচনা করার পর অবশেষে দ্বার উন্মুক্ত হলো সহযোগী দেশগুলোর সামনে। ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে ১৬ দলে। ২০১৯ সালে ১৪টি সহযোগী দেশকে নিয়ে হবে বাছাইপর্ব। সেখান থেকে ছয়টি দল যোগ দেবে মূল পর্বে।

-রুশাদ রাসেল, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটিম.কম

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে হাসপাতালে মাশরাফি

এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতলো ভারত

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

শঙ্কা কাটিয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলছেন মুস্তাফিজ

দুদকের শুভেচ্ছাদূত হলেন সাকিব