Score

বাজে ব্যাটিং-বোলিংকে দুষলেন মাশরাফি

ব্যাটিংয়ে শেষ ১০ ওভারে মাশরাফি, রুবেলদের বিপক্ষে আফগানিস্তান তুলেছে ৯৭ রান। শেষদিকে বাংলাদেশের বাজে বোলিংয়ের পর আফগানদের বোলিং অ্যাটাকের কাছে হার মানতে হয়েছে বাংলাদেশ। ফলে আফগানদের কাছে হারার পেছনে বাজে বোলিং ও বাজে ব্যাটিংকে দুষলেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা।

বাজে ব্যাটিং-বোলিংকে দুষলেন মাশরাফি

৪০ ওভার শেষে আফগানিস্তানে সংগ্রহ ছিল ১৬০। সেখান থেকে আরও ৯৫ রান যোগ করেন রশিদ খান ও গুলাবউদ্দীন নাইব। রশিদ তো নিজের ২০তম জন্মদিনে ফিফটিই পেয়ে যান। শেষ পর্যন্ত আফগানদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৫৫ রান। অথচ ৪০ ওভারেও আফগানদের সংগ্রহ ছিল ৭ উইকেটে ১৬০! শেষদিকে বাংলাদেশের বাজে বোলিংয়ের কারণে ম্যাচ থেকে অনেকটাই ছিটকে যায় দল।

ব্যাটিং লাইনআপে মুশফিকবিহীন বাংলাদেশ দাঁড়াতে পারেনি রশিদ-মুজিবদের সামনে। বাজে বোলিংয়ের পর, বাজে ব্যাটিংও করেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। মুশফিক, তামিমের পরিবর্তে সুযোগ পাওয়া মুমিনুল ও শান্ত সুবিধা করতে পারেনি। ফলে আফগানদের কাছে ১৩৬ রানে হারতে হয় বাংলাদেশকে। ম্যাচ শেষে এই হারের পেছনে বাজে বোলিং ও বাজে ব্যাটিংকেই কাঠগড়ায় দাড় করাচ্ছেন মাশরাফি।

Also Read - রশিদের নৈপুণ্যে বাংলাদেশকে হারাল আফগানিস্তান

“প্রথম ইনিংসে আফগানরা ৪০ ওভারের পর থেকে অসাধারণ খেলেছে। আমাদের ব্যাটিং আপ টু দ্য মার্ক ছিল না এবং বোলিংয়ে শেষ ১০ ওভার খুব বাজে হয়েছে। আমাদের নতুন করে পরিকল্পনা করতে হবে আগামীকালের (আজ) ম্যাচের জন্য। এইখান থেকে উঠে আসাটা আমাদের জন্য মোটেও সহজ হবে না। আশা করছি আমরা আগামীকাল (আজ) শক্তভাবে ঘুরে দাঁড়াবো।”

তিনি আরও যোগ করেন, “তামিম দলের সঙ্গে নেই। মুশিও (মুশফিক) আজ বিশ্রামে ছিল। মুস্তাফিজও ইনজুরি থেকে মাত্র সেরে উঠেছে। আশা করছি তাদের নিয়ে আগামীকাল (আজ) বড় ম্যাচে মাঠে নামবো আমরা।”

উল্লেখ্য, পাঁজরের ব্যথার কারণে আফগানিস্তানের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল মুশফিকুর রহিমকে। সেই সাথে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমানকেও। আজ দুবাইতে সুপার ফোরের ভারতের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ।

আরও পড়ুনঃ রশিদের নৈপুণ্যে বাংলাদেশকে হারাল আফগানিস্তান

Related Articles

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’

এক নয় মাশরাফির তিন ইনজুরি