Scores

বাট-আসিফের জন্য জাতীয় দলের দরজা বন্ধ!

ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে নাম লিখিয়েছিলেন পাকিস্তানের তিন ক্রিকেটার সালমান বাট, মোহাম্মদ আসিফ ও মোহাম্মদ আমির। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে বাঁহাতি পেসার আমির জাতীয় দলে ফিরলেও ফিরতে পারেননি বাকি দুই ক্রিকেটার। জাতীয় দলের তাদের ফেরার সম্ভবনা খুবই কম জানিয়েছেন পাকিস্তান ঘরোয়া ক্রিকেটের পরিচালক।

বাট-আসফের জন্য জাতীয় দলের দরজা বন্ধ!

২০১০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ফিক্সিং কান্ডে জড়িত থাকেন বাট ও দুই পেসার আমির এবং আসিফ। সেসময়ই দোষী প্রমাণিত হন এই তিন ক্রিকেটার। শাস্তিস্বরূপ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হন বাট, আমির ও আসিফ। তবে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে জাতীয় দলের ফিরেছেন মোহাম্মদ আমির অনেক আগেই। জাতীয় দলে বেশ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন এই বাঁহাতি পেসার।

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরেছেন সালমান বাট ও মোহাম্মদ আসিফ। তবে জাতীয় দলে ফেরা হবে কিনা এই দুই ক্রিকেটারের সেটা অনেকটাই অনিশ্চিত। পাকিস্তান ঘরোয়া ক্রিকেটের পরিচালক হারুন রশিদ জানিয়েছেন এই দুই ক্রিকেটারের জাতীয় ফেরার সম্ভবনা নেই বললেই চলে।

Also Read - বাংলাদেশে আসছে বিশ্বকাপ ট্রফি


“আমির যখন ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িয়েছিলেন, তখন তার বয়স ছিল ১৯-এর কম। তিনি তার ভুল স্বীকার করে আইসিসি এবং পিসিবির কাছে সঙ্গে সঙ্গেই ক্ষমা চেয়েছিলেন। অন্যদিকে আসিফ আর বাট তাদের ভুল প্রথমে স্বীকার করেননি। পরে দোষ প্রমাণিত হলে স্বীকার করেন। আমার মনে হয়, এই দুই খেলোয়াড়ের বদলে তরুণদের দিকে নজর দেয়া উচিত। পিসিবি তরুণদের দিকেই মনোযোগ দিচ্ছে। ক্যারিয়ার দীর্ঘ করার মতো সামর্থ্যবান অনেক খেলোয়াড় আছে আমাদের।”

তবে জাতীয় দলে ফেরার আশা ছাড়েননি পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক বাট। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো ফর্মে ছিলেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ বাংলাদেশে আসছে বিশ্বকাপ ট্রফি

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ছয় মাসের মধ্যেই টি-টোয়েন্টি দলে ভারসাম্য আসবে!

বয়স নিয়ে সমালোচনাকারীদের নিয়ে ভাবেনই না রশিদ!

মিসবাহর দলে ব্রাত্য মালিক-হাফিজ!

র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থান ধরে রাখলেন দুই অস্ট্রেলিয়ান

একাধিক রেকর্ড দিয়ে অ্যাশেজ শেষ করলেন স্মিথ