Scores

বাশারের স্মৃতি রোমন্থন

৪৬-এ পা দিলেন বাশার

হাবিবুল বাশার- বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা অধিনায়ক। দুয়ারে যখন কড়া নাড়ছে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টাইগারদের লড়াই, তখন বারবার ঘুরেফিরে আসছে ২০০৬ সালে অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ টেস্ট সিরিজের কথা, যেখানে বাংলাদেশের অধিনায়কত্ব করেছিলেন এই বাশারই।

খেলা ছেড়ে দিলেও ক্রিকেট ছাড়তে পারেননি বাশার। আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সিরিজে ভূমিকা আছে তারও, নির্বাচক হয়ে সিরিজের প্রতিনিধিদের যে মাঠে পাঠানোর কাজটা তারই! সম্প্রতি দেশের শীর্ষস্থানীয় দৈনিক প্রথম আলোর সাথে আলাপচারিতায় হাবিবুল বাশার তুলে ধরেন ২০০৬ সালের অস্ট্রেলিয়া সিরিজের স্মৃতি।

Also Read - আক্ষেপ নেই নাফিসের!


ঐ সিরিজে ফতুল্লা টেস্টে শাহরিয়ার নাফিসের সাথে ১৮৭ রানের পার্টনারশিপ গড়েছিলেন বাশার। তখনকার বিচারে বাংলাদেশের জন্য বিষয়টি ছিল রূপকথার গল্পের মতোই! এ প্রসঙ্গে বাশার বলেন, ‘আসলেই অকল্পনীয় আমরাও ভাবিনি এমন ব্যাটিং করব তবে ওরা আরও বেশি ভাবেনি অস্ট্রেলিয়া তো সব সময়ই আক্রমণাত্মক ফিল্ডিং সাজায়, অথচ ওরা ডিফেন্সিভ ফিল্ডিং সাজাতে বাধ্য হয়েছিল অমন বোলিং অ্যাটাক, ওভাবে মেরে খেলব, এটা আমরাও ভাবিনি তার ওপর শেন ওয়ার্নকে প্রথমবারের মতো খেলেছিলাম সেই ওয়ার্নকে বোলিং থেকে সরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছিল পন্টিং।’

ওয়ার্নকে সেবারই প্রথম মোকাবেলা করেছিলেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। এতে অন্যদের মতো বাশারও ছিলেন রোমাঞ্চিত, স্বাভাবিকভাবেই, ‘সত্যি বললে ওয়ার্নকে নিয়ে একটু ভয়ই ছিল এর আগে না খেললেও টিভিতে তো দেখেছি, কী করতে পারে! এত ভালো লেগ স্পিনারকে আগে খেলিওনি দানিশ কানেরিয়াকে খেলেছি, কিন্তু কানেরিয়া তো আর ওয়ার্ন নয় তবে জানতাম, ওয়ার্ন গুগলি করতে পারে না এটা একটা স্বস্তির দিক ছিল কয়েকটা বল খেলার পরই অবশ্য ভয়টা কেটে যায় আসলে ফতুল্লার ওই উইকেটটা ওয়ার্নের জন্য আদর্শ ছিল না একটু শক্ত উইকেটে ওয়ার্ন সবচেয়ে ভয়ংকর কিন্তু ফতুল্লার উইকেট সে রকম ছিল না।’

ঐ সিরিজের পর কিংবদন্তী ক্রিকেটার স্টিভ ওয়াহ বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের ড্রেসিংরুমে এসে কথা বলেছিলেন। বাশারের চোখে, অস্ট্রেলিয়া নিজেদের দর্শনের কারণেই অন্যদের চেয়ে ভিন্ন। দলটির খেলোয়াড়দের নেই কোনো ছাড় দেওয়ার মানসিকতাও।

তিনি বলেন, ‘মাঠে ওরা একচুল ছাড় দেয় না ওদের দর্শনটাই অন্যদের চেয়ে আলাদা আমি এই দর্শনের বড় ভক্তও মাঠে ওদের চেয়ে কঠিন প্রতিপক্ষ আর হয় না মাঠের বাইরে ওরাই আবার দারুণ বন্ধুত্বপূর্ণ অস্ট্রেলিয়ায় ওই সিরিজের পর স্টিভ ওয়াহ আমাদের ড্রেসিংরুমে এসে অনেকক্ষণ কথা বলেছেন উৎসাহ দিয়েছেন অন্য দলগুলো এমন হয় না।’

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

টেস্ট নয়, অস্ট্রেলিয়া সফরে সীমিত ওভারের ম্যাচ

বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ আয়োজনে অনীহা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার

অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে তামিমের ফর্মূলা

পানির দুর্গন্ধের কারণেই হচ্ছে না অনুশীলন ম্যাচ!

নাসিরের ব্যবধান গোঁফে!