বিগ ব্যাশের সূচি প্রকাশ করল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া

0
1018

অস্ট্রেলিয়ার ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট বিগ ব্যাশ লিগের ১১তম আসরের সূচি চূড়ান্ত করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। ২০২১-২২ মৌসুমের বিগব্যাশ শুরু হবে চলতি বছরের ৫ ডিসেম্বর। নতুন বছরের জানুয়ারির ২৮ তারিখে ফাইনালের মধ্য দিয়ে আসরটির পর্দা নামবে।

বিগ ব্যাশের সূচি প্রকাশ করল অস্ট্রেলিয়া

Advertisment

বিগ ব্যাশের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন সিডনি সিক্সার্স ও মেলবোর্ন স্টার্সের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে ক্রিকেটের অন্যতম জমজমাট এই লিগের আগামী আসর শুরু হবে। ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে সিডনি সিক্সার্সের হোম ভেন্যু সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে (এসসিজি)। এই মৌসুম থেকে বিগব্যাশে আবারও হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে পদ্ধতি ফিরিয়ে এনেছে সিএ। কোভিড-১৯ সংক্রমণ ঝুঁকি এড়াতে গত মৌসুমে এই পদ্ধতিটি বন্ধ রাখা হয়েছিল।

বিগব্যাশ শুরুর মাত্র তিন দিন পরই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অ্যাশেজের ৫ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ শুরু করবে অস্ট্রেলিয়া। অ্যাশেজ চলাকালীন সময় রাতে অনুষ্ঠিত হবে বিগব্যাশের ম্যাচ। সূচি অনুযায়ী, অ্যাশেজের সময় আট দিনে ৮টি ডাবল হেডার (এক দিনে দুই ম্যাচ) থাকাছে আসন্ন বিগ ব্যাশে।

১৮ জানুয়ারি পার্থে পঞ্চম টেস্ট দিয়ে শেষ হবে অ্যাশেজ সিরিজ। অ্যাশেজের আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একটি টেস্ট খেলবে অজিরা। ফলে অজিদের সাদা পোশাকের দলে ডাকা পাওয়া ক্রিকেটাররা এবারের বিগ ব্যাশের রাউন্ড রবিন লিগের ম্যাচগুলোতে অংশ নিতে পারবেন না।

তবে অ্যাশেজ শেষ করে ফাইনাল রাউন্ডের ম্যাচগুলো খেলতে কোনো বাঁধা থাকছে না প্যাট কামিন্স, স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার এবং মিচেল স্টার্কদের মতো তারকা ক্রিকেটারদের। এলিমিনেটর, নক আউট, ফাইনালসহ এবারের বিগ ব্যাশের ফাইনাল রাউন্ডের ম্যাচগুলো ২১ জানুয়ারি থেকে ২৮ জানুয়ারির মধ্যে সম্পন্ন হবে। এই সময় কোনো আন্তর্জাতিক ব্যস্ততা নেই অজিদের।

বিগ ব্যাশ শেষ করে ৩০ জানুয়ারি ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে ও একমাত্র টি-টোয়েন্টি খেলতে নামবে অস্ট্রেলিয়া। ফলে অজিদের রঙিন পোশাকের ক্রিকেটারদের বিগ ব্যাশের পুরো মৌসুমের জন্যই পাবে দলগুলো।

এদিকে বিদেশি কোটার খেলোয়াড়দের ক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়ার প্রস্তাবিত প্লেয়ার্স ড্রাফট বাতিল করা হয়েছে। মূলত করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে বিদেশি খেলোয়াড়দের ভ্রমণ জটিলতার কথা মাথায় রেখে এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে সিএ। ফলে দলগুলো প্রথাগত পদ্ধতিতেই বিদেশি ক্রিকেটারদের সাথে চুক্তি করতে পারবে।

এই প্রসঙ্গে বিগব্যাশ লিগ ম্যানেজার অ্যালিস্টার ডবসন বলেন, “বিদেশি খেলোয়াড়দের জন্য ‘প্লেয়ার্স ড্রাফট’ পদ্ধতিটি সত্যিই আমরা পছন্দ করেছিলাম। আগামী বছর এটা নিয়ে আবারও আলোচনা হবে। যখন আমরা দেখতে পারলাম, বিদেশি খেলোয়াড়দের ভ্রমণ নিয়ে জটিলতা থেকেই যাচ্ছে তখন আমরা ক্লাব ও খেলোয়াড়দের স্বার্থেই আরও এক বছরের জন্য এটা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।”

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।