Scores

বিপর্যয় সামলে সহজে জিতল ইংল্যান্ড

আইসিসি ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ছয় উইকেটের জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। বোলারদের কৃতিত্বে আয়ারল্যান্ডকে অল্প রানে বেঁধে ফেললেও টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা দ্রুত সাজঘরে ফিরে গেলে খানিকটা শঙ্কা জাগে।  তবে শেষ পর্যন্ত পচা শামুকে পা কাটেনি ইংল্যান্ডের। শুরুর হোঁচট সামলে ২৩ ওভার ১ বল হাতে রেখেই ম্যাচ জিতে নেয় স্বাগতিকরা।

বিপর্যয় সামলে সহজে জিতল ইংল্যান্ড

টস জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ইংল্যান্ড।  প্রথম ওভারেই ডেভিড উইলির বলে বিদায় নেন আইরিশ ওপেনার পল স্টার্লিং। নিজের পরের ওভারে এসে আবারো আঘাত হানেন উইলি। ব্যাটের কানায় লেগে উইকেটরক্ষকের হাতে বল গেলে ৩ রান করে ফেরত যান অ্যান্ডি ব্যালবিরনি। রানের খাতা খোলার আগেই ডানহাতি পেসার সাকিব মাহমুদের শিকার হন হ্যারি টেক্টর।

Also Read - বন্যার্তদের পাশে সাকিবের ফাউন্ডেশন


তবে ওপেনার গ্যারেথ ডেলানির ব্যাটটা চলছিল ভালোই। কিন্তু টেক্টরের বিদায়ের পরের ওভারে তাকেও থামিয়ে দেন উইলি। ১৬ বলে ২২ রান করে বিদায় নেন ডেলানি। পরের বলেই লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন লোরসান টাকার। ২৮ রানে ৫ উইকেট হারানো আয়ারল্যান্ড চলে যায় খাদের কিনারায়।

অভিষেক হওয়া কার্টিস ক্যাম্ফার  অভিজ্ঞ ক্রিকেটার কেভিন ও’ব্রায়েনকে সাথে নিয়ে গড়েন ৫১ রানের জুটি। রানের গতি বাড়ানোর দিকে নজর দিলে বিপদে পড়েন কেভিন। আদিল রশিদকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে আউট হন তিনি। ৩৬ বলে ২২ রান করেন কেভিন। ঐ ওভারে সিমি সিং রান আউট হলে আয়ারল্যান্ডের শত রান টপকানোটাই বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায়।

এরপর অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইনকে সাথে নিয়ে ক্যাম্ফার  ৬৬ রান যোগ করেন। ৩ চার ও ১ ছক্কায় ৪৮ বলে ৪০ রান করে টম কারানের বলে আউট হন ক্যাম্পফার। ব্যারি ম্যাকার্থি ৩ ও ক্রেইগ ইয়ং ১১ রানে ফেরত গেলে ১৭২ রানে গুটিয়ে যায় আয়ারল্যান্ড।

অভিষেকেই দৃঢ়তার পরিচয় দেন ক্যাম্পফার। এ ব্যাটসম্যান ১১৮ বলে ৫৯ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত ছিলেন। ইংলিশ বোলার ডেভিড উইলি পাঁচটি উইকেট নেন।

জবাব দিতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় ইংল্যান্ড। ওপেনার জনি বেয়ারস্টো অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইনের বলে এলবিডব্লিউ হন। জেসন রয়ের ইনিংস লম্বা করতে দেননি ক্রেইগ ইয়ং। ২২ বলে ২৪ রান করে তিনিও এলবিডব্লিউ হন। জেমস ভিন্সও ইনিংস বড় করতে পারেননি।বড় ইনিংসে আভাস দিলেও ৫ চারে ২১ বলে ২৫ রান করেন তিনি। ৫৯ রানেই ৩ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড।

টম ব্যান্টন ১১ রান করে বিদায় নেন ক্যাম্ফারের  বলে। ৭৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে ইংল্যান্ড। সেখান থেকে দলের হাল ধরেন স্যাম বিলিংস আর ইয়ন মরগান। লক্ষ্য কম থাকায় চাপমুক্ত ব্যাটিং করেন দুজন। তাদের জুটিতে ভর করে জয়ের পথে এগিয়ে যেতে থাকে ইংলিশরা। স্বাচ্ছন্দ্যেই ব্যাটিং করেন দুজন। বলের সাথে পাল্লা দিয়ে রান তুলতে থাকেন। ৪৯ বলেই এ জুটি অর্ধশতক পূর্ণ করে। ৯ টি চারের সাহায্যে ৪১ বলে অর্ধশতক হাঁকান স্যাম বিলিংস। তাদের অবিচ্ছিন্ন ৯৬ রানের জুটি ইংল্যান্ডকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যায়।

ইনিংসের প্রথম ওভারেই চোট পাওয়া আইরিশ বোলার ব্যারি ম্যাকার্থি আর বল করতে পারেননি। প্রথম ওভারের পাঁচটি বল করেছিলেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

আয়ারল্যান্ড ১৭২/১০, ৪৪.৪ ওভার
ক্যাম্ফার  ৫৯, ম্যাকব্রাইন ৪০, ডেলানি ২২
উইলি ৫/৩০,  সাকিব ২/৩৬, আদিল ১/২৬

ইংল্যান্ড ১৭৪/৪, ২৭.৫ ওভার
বিলিংস ৬৭*, মরগান ৩৬*, ভিন্স ২৫
ইয়ং ২/৫৬,  ক্যাম্ফার ১/২৬,  ম্যাকব্রাইন ১/৪৭

Related Articles

ভবিষ্যৎ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে থাকছে ফিফার নিয়মের ছোঁয়া

আইসিসির সূচিতে ১৫০ এর বেশি ম্যাচ পাচ্ছে বাংলাদেশ